অমুসলিমরা মেয়েদের পর্দার (বোরকা ও নিকাব) নিয়ে কটূক্তি করে ভিডিও বানায়

ইসলামিক শিক্ষা 21st May 16 at 12:50am 1,957
Googleplus Pint
অমুসলিমরা মেয়েদের পর্দার (বোরকা ও নিকাব) নিয়ে কটূক্তি করে ভিডিও বানায়

অমুসলিমরা মেয়েদের পর্দার (বোরকা ও নিকাব) নিয়ে কটূক্তি করে ভিডিও বানায় এইসব প্রায় শুনি..।। শুনলে তখন রাগ খুব বেশি হয় আবার অনেক কষ্ট ও হয়!
কিন্তু যখন দেখি কোন মুসলিম মেয়ে নির্লজ্জের মতো এইসব ভিডিও শেয়ার করে তারপর এইসব নিয়ে কমন্টে হাসাহাসি করে তখন একদমই সহ্য করতে পারি না!! সত্যি এইটা সহ্য করার মতো নয়!!
আমার আল্লাহর ফরজ বিধান আর রাসূলের সুন্নাহকে নিয়ে এইরকম হাসাহাসি করে তাও কোন কাফির না.. নামধারী কিছু মুসলিম তখন সত্যি..আর সহ্য করতে পারি না!! তখন ইচ্ছা আমারও করে...............
বললাম না!
আফসোস!! কোন ধরণের মুসলিম তোমরা?!!
আল্লাহর বিধান তো মানো না.. তাইবলে যারা মানে তাদের নিয়ে কটূক্তি করতে হয়!
তোমরা নিজে নিজেকে মুসলিম বলো তাহলে কেন আল্লাহর বিধান নিয়ে কটূক্তি রাসূলের সুন্নাহ নিয়েও হাসাহাসি!!
মনে রেখো..

"যে আল্লাহ ও তাঁর রাসূল (সা). এর আনুগত্য করবে না, এবং মহান রবের হুকুমের সীমালঙ্গন করবে, তাকে আল্লাহ জাহান্নামে প্রবেশ করাবেন। সে তাতে চিরদিন থাকবে। এবং তার জন্য রয়েছে লজ্জাজনক শাস্তি।"
__সূরা নিসা -১৪


কোন কাফির এইরকম করলে সহ্য হয় না..আর আজ মুসলিমরা এইরকম করে!!সত্যি..কাল আমার ফ্রেন্ড লিস্টেরই এক বোনের টাইমলাইনে দেখা ভিডিও.. দেখার মতো সাহস আমার হয় নি..রাগ তো হয়েছিল আর চোখের পানিও ধরে রাখতে পারিনি!
আফসোস! শুধুই আফসোস!!
যদি নিজেকে সত্যি মুসলিম মনে করো তাহলে নিচের আয়াতে কি বলা হয়েছে..একটু চিন্তা করে দেখো..

"অতএব তারা সামান্য হেসে নিক,
তাদের কৃতকর্মের জন্য তারা অনেক বেশি কাঁদবে।"
__সূরা তাওবা - ৮২


একটু চিন্তা করো..
মুসলিম নিজেকে বলছো কিন্তু আল্লাহর বিধান কে কটূক্তি করছো! নবী (সা) এর সুন্নাহ নিয়ে হাসাহাসি করছো!
মনে রেখো..
মরতে তোমাকে হবেই!
আর দুনিয়াতে কি করেছো তার ও হিসেব দিতে হবে!
তখন এই অপরাধের জন্য তোমাকে কঠিন শাস্তি পেতে হবে!

Googleplus Pint
Jafar IqBal
Administrator
Like - Dislike Votes 24 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)