আমেরিকার এক শহরে এক নাম করা businessman ছিলো

জীবনের গল্প 6th May 16 at 11:25pm 561
Googleplus Pint
আমেরিকার এক শহরে এক নাম করা businessman ছিলো

আমেরিকার এক শহরে এক নাম করা businessman ছিলো। টাকা, পয়সা, নামে,দামে, কোনো কিছুরই তার অভাব ছিলো না।কিন্তু তার মডার্ন সোসাইটি তে মুখ দেখাতে পারতোনা সুধু তার মায়ের জন্য। কারন তার মা ছিলো অন্ধ। মায়ের মুখে ছিলো আগুনে পোড়া দাগ। আর মাথায় কোনো চুল ছিলো না। তাই মডার্ন সোসাইটিতে নিজের মান সম্মান বজায় রাখার জন্য মা কে বাসা থেকে বের করে দিলো। বেচারি অন্ধ মা কেদে কেদে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন। হঠাত একটি গাড়িতে ধাক্কা খেয়ে বৃদ্ধা মারা গেলে ছেলে একটা কস্ট পেলো না।ভাবলো আপদ বিদায় হয়েছে।
কিছুদিন পর কোনো documents খুজতে খুজতে মায়ের ঘরে মায়ের লেখা একটা ডাইরি পেলো। ডাইরিতে লেখা ছিলো।
,
,
,
,
০৫-১২-১৯৮০=আজ আমি সুন্দরি মিস আমেরিকা এর award পেয়েছি।
,
,
,
০২-০৫-১৯৮৩=আজ আমার pregnant এর abortion না করার জন্য আমার স্বামী আমাকে divorce দিয়েছে।
,
,
,
০৭-০৩-১৯৮৫=আজ আমার বাড়িতে আগুন লেগেছিলো। আমি বাহিরে ছিলাম। আর আমার কলিজার টুকরা ছেলে বাড়ির ভিতোরে ছিলো। নিজের জীবন বাজি রেখে সুধু ছেলের জীবন বাচাতে গিয়ে আগুন লেগে আমার চুল এবং মুখ পুড়ে আমার সম্মস্ত সোন্দরজ্য ছাই হয়ে গেছে। তাতে আমার কোন দুঃখ নেই।

কিন্তু তবু আমার কলিজার টুকরা ছেলের চোখ দুটো আমি বাচাতে পারিনি।
,
,
,
০৭-১৫-১৯৮৫= আজ আমার নিজের চোখ দুটো আমার ছেলে কে দিতে যাচ্ছি। The end of my life................

ডাইরিটি পড়ে ছেলে পাগলের
মতো কাদতে কাদতে দেয়ালে মাথা আছড়াতে আছ হয়ে অজ্ঞান হয়ে গেল ।
=========
(আপনি যদি মনে করেন পোস্টটি গুরুত্বপূর্ণ তবে শেয়ারকরে বন্ধুদের দেখার সুযোগ দিন। নিজে জানুন ও অন্যকে জানতে সাহয্য করুন। নিয়মিত লাইক, কমেন্টস না করলে এই মুল্যবান পোস্ট গুলো আর আপনার ওয়ালে খুজে পাবেন না।)

আপনাদের সুখী জীবনই আমাদের কাম্য। ধন্যবাদ।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 28 - Rating 4 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)