ঘুরে আসুন ভূস্বর্গ কাশ্মির (পর্ব-১)

দেখা হয় নাই 1st May 16 at 9:58am 1,679
Googleplus Pint
ঘুরে আসুন ভূস্বর্গ কাশ্মির (পর্ব-১)

কাশ্মির! সৌন্দর্য্যে যার তুলনা নেই। পাহাড়ের পর পাহাড়, ভ্যালি, হ্রদ সব মিলিয়ে কাশ্মির অনন্যা। জীবনে একবার হলেও এখানে ভ্রমণের স্বাদ নিতে চান সব ভ্রমন পিপাসুরাই। নতুন জীবনসঙ্গীর সাথে হানিমুনে বা বন্ধুদের সাথে হাইকিং করতে ঘুরে আসুন ভূ-স্বর্গ কাশ্মিরে।

শ্রী-নগর

শুধু কাশ্মিরেই নয়, সমস্ত ইন্ডিয়াতেই বেড়ানোর বিভিন্ন জায়গার মধ্যে শ্রী-নগরের আবেদন ভিন্ন। নৌকায় বেড়ানো থেকে শুরু করে ট্রাকিং, পাখি দেখা থেকে শুরু করে জল স্কিইং, শ্রী-নগর সবদিকে স্বয়ংসম্পূর্ণ।

মৌসুম- জুন থেকে অক্টোবর। আর তুষারপাত দেখতে হলে ডিসেম্বর এবং জানুয়ারি।

অবশ্যই করবেন- বোট হাউজে থাকবেন।

গুলমার্গ

এডভেঞ্চার করার জন্য সবচেয়ে চমৎকার পছন্দ গুলমার্গ। স্কিইং করতে পারবেন ইচ্ছে মত। আপনি যদি স্কিইং এ আগ্রহী না হোন, তবু আরও নানান এডভেঞ্চারের সুযোগ আছে এখানে। বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ক্যাবল কার আছে এখানে। ১৩ হাজার উচ্চতা থেকে অতুলনীয় গুলমার্গকে উপভোগ করতে পারবেন এখান থেকে। গুলমার্গকে বলা হয়, ‘Meadow of Flowers’। পেছনে বরফে ঢাকা পর্বতের সারি আর সামনে উজ্জ্বল ফুলেরা স্বাগত জানাবে আপনাকে এখানে।

মৌসুম- জুন থেকে অক্টোবর। আর তুষারপাত দেখতে হলে ডিসেম্বর এবং জানুয়ারি।

অবশ্যই করবেন- পর্বতে বাইকিং, শীতকালে যদি যান তবে স্কিইং, গন্ডোলা রাইডস এ চড়বেন ভ্যালির প্যানারমিক দৃশ্য দেখার জন্য।

সোনমার্গ

গ্রীষ্মে বেড়ানোর জন্য সোনমার্গ অসাধারণ। এই অঞ্চলকে বলা হয় 'Meadow of Gold'। ফুলে ফুলে বিছানো পাহাড় আর তার পথ ধরে ট্রেকিং এখানে প্রধাণ আকর্ষণ। কাশ্মিরে গেলে ভ্রমণপিপাসুরা এখানে অবশ্যই আসেন এখানকার শ্বাসরুদ্ধকর দৃশ্য উপভোগ করার জন্য।

মৌসুম- জুন থেকে অক্টোবর। আর তুষারপাত দেখতে হলে ডিসেম্বর এবং জানুয়ারি।

অবশ্যই করবেন- ট্রেকিং, ক্যাম্পিং , প্রকৃতির মাঝে হেঁটে বেড়ানো।

লেহ

লেহ হল শুদ্ধ রোমাঞ্চের ভূমি। এখানেও গ্রীষ্ম বেশী উপভোগ্য। সুউচ্চ পর্বতমালা, আলপাইন লেক এবং খেয়ালী গড়নের ভূমি আপনার কিছুতেই মিস করা উচিৎ নয়। বাইকারদের স্বপ্ন এই এলাকা ভ্রমণ। আসুন আর সৌন্দর্য্যে লুটোপুটি খেয়ে ভালবাসুন প্রকৃতিকে। ছবির মত দৃশ্যাবলী কখনো আপনাকে নিরাশ করবে না।

মৌসুম- এপ্রিল থেকে জুন। সেপ্টেম্বর থেকে অক্টোবর। নভেম্বর থেকে অনেক পথই বন্ধ থাকে অধিক মাত্রায় তুষারপাতের জন্য।

কুওয়ারা

কাশ্মিরের মুকুট বলা হয় একে। আলপাইন পর্বতমালা, স্বচ্ছ পানির লেক, সবুজ তৃণভূমি সব মিলিয়ে কুওয়ারা এক বৈচিত্রময় প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যের ভান্ডার। পুরো শহরটি কাশ্মিরের সৌন্দর্য্যকে বাড়িয়েছে বহুগুণে।

মৌসুম- এপ্রিল থেকে অক্টোবর

অবশ্য করণীয়- লোলাব ভ্যালিতে যাবেন অবশ্যই। কামার সাহিব শ্রাইন, শেখ বাবা বেহরাম এসব জায়গাতেও যাবেন।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 29 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)