কিছু উপায়ে বিদ্যুৎ বিলের খরচ কমিয়ে ফেলুন!

টুকিটাকি টিপস 29th Apr 16 at 8:19am 821
Googleplus Pint
কিছু উপায়ে বিদ্যুৎ বিলের খরচ কমিয়ে ফেলুন!

ঋতু পরিক্রমায় প্রকৃতিতে এখন গরমকাল। আর এ গরমে যদি খরচ বেড়ে যায় তাহলে মাথা কার ভালো থাকে। তবে অন্যান্য সময়ের থেকে এ সময়ে বিদ্যুৎ বিল একটু বাড়বে এটাই স্বাভাবিক। কারণ এ সময়ে ঘরে ফ্যান বা এসি চালাতে হয় এছাড়াও ইলেকট্রিক পণ্যের ব্যবহার একটু বেড়ে যায়।

তবে একটু সচেতন ভাবে চললে এ বাড়তি খরচ থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। আর আজ বিডি লাইভ পাঠকদের জন্য দেয়া হলো সেসব উপায়।


# এই গরমে এসি বা ফ্যান চালিয়ে থাকা কষ্টকর। ঘর ঠাণ্ডা করতে এসির কোনো জুড়ি নাই। তবে এসি যত বেশি ঘর ঠাণ্ডা করবে তত বেশি বিদ্যুৎ খরচ হবে। তাই ১৮ ডিগ্রীতে এসি না চালিয়ে ২৪ ডিগ্রীতে চালালে ঘর ঠাণ্ডা থাকবে। আবার বিদ্যুত খরচও সাশ্রয় হবে।

# অনেক সময় টিভি দেখা হয়ে গেলে আমরা রিমোট কন্ট্রোলের সাহায্যে বন্ধ করে দিই। কিন্তু সুইচ অফ করার কথা খেয়াল থাকে না। অর্থাৎ টিভি দীর্ঘক্ষণ স্ট্যান্ড বাই মোডে থাকে। এত বেশ বিদ্যুতের অপচয় হয়। তাই এরপর থেকে শুধু রিমোট কন্ট্রোলে টিভি বন্ধ না করে, খেয়াল করে সুইচ অফ করবেন।

# সাধারণ বাল্বের বদলে কমপ্যাক্ট ফ্লুরোসেন্ট বা সিএফএল লাগান। তাতে বিদ্যুতের খরচ সাশ্রয় এবং দেখতেও সুন্দর লাগবে। প্রথামিকভাবে দাম একটু বেশি পড়লেও চলবে সাধারণ বাল্বের থেকে অনেক বেশি।

# রেফ্রিজারেটর যেন দেয়ালের গায়ে না থাকে সেদিকে খেয়াল রাখবেন। দেওয়াল আর রেফ্রিজারেটরের মধ্যে একটু স্পেস থাকলে ভালো হয়। তাতে ভালো ভাবে হাওয়া চলাচল করতে পারে। ফ্রিজে ঠেসে জিনিসপত্র রাখবেন না।

যে খাবারগুলো অনেক দিনের বা আর প্রয়োজন নাই, সেগুলো ফেলে দিন। গরম কোনো খাবার ঠাণ্ডা না করে সোজা ফ্রিজে ঢোকাবেন না। কোনো খাবারই না ঢেকে ফ্রিজে রাখবেন না। তাতে ফ্রিজের কম্প্রেসরের উপর চাপ পড়ে।

# তেমন দরকার না থাকলে গিজার ব্যবহার করবেন না। গরমকালে ঠাণ্ডা পানিতে গোসল করাই ভাল। একান্তই গরম পানির প্রয়োজন হলে সোলার ওয়াটার হিটার ব্যবহার করতে পারেন।

# মাইক্রওয়েভে রান্না বা খাবার গরম করার সময়, রান্না ঠিক মতো হচ্ছে কিনা বার বার দেখবেন না। আপনি প্রতিবার মাইক্রোওয়েভের ঢাকনা খোলার সঙ্গে সঙ্গে মাইক্রোওয়েভের টেম্পারেচার ২৫ ডিগ্রি কমে যায়।

# সব সময় শুকনো জামাকাপড় ইস্ত্রি করুন। ওয়াশিং মেশিনের ড্রায়ার থেকে আধ শুকনো জামা কাপড় বের করে ইস্ত্রি করলে অতিরিক্ত বিদ্যুৎ খরচ হয়। এমন ইস্ত্রি ব্যবহার করুন, যাতে কম টেম্পারেচারের অপশন আছে।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 45 - Rating 6 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)