সৎ মেয়েকে বেহুঁশ করে তিন বছর ধরে লাগাতার ধর্ষণ

আন্তর্জাতিক 29 Aug 2018 at 3:09pm 1,386
Googleplus Pint
সৎ মেয়েকে বেহুঁশ করে তিন বছর ধরে লাগাতার ধর্ষণ

সৎ মেয়েকে তিন বছর ধরে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ভারতের দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিংয়ের। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ক্যানিং থানার পুলিশ। ক্যানিংয়ের বাসিন্দা ওই ব্যক্তি কয়েক বছর আগে কন্যাসন্তানসহ এক মহিলাকে নিকাহ করেন।

মেয়েটির দাবি, প্রতিদিন রাতে তার আব্বা খাবারের সঙ্গে কিছু মিশিয়ে তাকে খাইয়ে দিত। তারপর সে ঘুমিয়ে পড়লে চলত অত্যাচার। সকালে উঠে প্রতিদিনই সারা শরীরে ব্যথা অনুভব করত মেয়েটি। আম্মাকে সে কথা জানালে তিনি বিশেষ গুরুত্ব দেননি। গত তিন বছর ধরে এমন চলছিল।

সন্দেহ হওয়ায় একদিন আব্বার দেওয়া খাবার না খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ার ভান করে মেয়েটি। কিছুক্ষণ পর সে দেখে আব্বা তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করছে। তখন সে মাথায় আঘাত করে তাকে সরিয়ে দেয়। মেয়েটির আরও অভিযোগ, টাকার বিনিময়ে লোক দিয়ে তাকে ধর্ষণ করাত আব্বা। নিজের চোখে অন্যদের থেকে আব্বাকে টাকা নিতেও দেখেছে সে। প্রতিবাদ করলে খুন করার হুমকি দিত।

সম্প্রতি, নিকাহ হয় নির্যাতিতার। গতকাল আব্বা তাকে বাড়ি নিয়ে যাওয়ার জন্য শওহরের বাড়িতে আসে। কিন্তু, আব্বার সঙ্গে যেতে অস্বীকার করে মেয়েটি। সন্দেহ হওয়ায় শওহর ও শাশুড়ি তাকে প্রশ্ন করে। তখন তাদের কাছে সব খুলে বলে মেয়েটি। প্রতিবেশীদের বিষয়টি জানানো হলে ওই ব্যক্তিকে আটকে রেখে মারধর করা হয়।

পরে ক্যানিং থানার পুলিশের হাতে তাকে তুলে দেওয়া হয়। মেয়েটির অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে। নির্যাতিতার বক্তব্য, “শ্বশুরবাড়ির লোকদের আমি সব জানিয়েছি। ওরাই আব্বাকে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে। আমি চাই ওর উপযুক্ত শাস্তি হোক।”

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 0 - Rating 0 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)