পবিত্র ‘কোরআন’ পড়েছেন কঙ্গনা!

বিবিধ বিনোদন 10 Aug 2018 at 9:59am 205
Googleplus Pint
পবিত্র ‘কোরআন’ পড়েছেন কঙ্গনা!

বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় নায়িকা কঙ্গনা রানাউত। বলি পাড়ায় সবচেয়ে স্পষ্টভাষী নায়িকা হিসেবেও পরিচিত কঙ্গনা।

এই বলিউড অভিনেত্রী অনেক বিষয় নিয়েই সচেতন। এর মধ্যে নারী অধিকার নিয়ে বেশ সচেতন তিনি।

কিন্তু, এবার তিনি নিজের মুখে জানালেন ভিন্ন এক তথ্য। অনেকে এটা শুনলে অবাকও হতে পারেন। কঙ্গনা নাকি নিজেই জানিয়েছেন আধ্যাত্মচিন্তার প্রতি তিনি আকৃষ্ট। এমনকি, তিনি নাকি নিজেই জানিয়েছেন ইসলাম ধর্মের পবিত্র গ্রন্থ কোরআন শরিফ পড়েছেন বলেও জানান এ নায়িকা। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

কঙ্গনা বলেন, ‘আমি পবিত্র ধর্মগ্রন্থগুলো পড়েছি। ভাগবত গীতা, বাইবেল, কোরআনের বেশ কিছু অধ্যায়, কোয়ান্টাম ফিজিক্স নিয়ে বই, বেদান্ত এবং দীপক চোপড়ার মতো আধুনিক দার্শনিকের বইও পড়েছি।’

কঙ্গনা নাকি যোগী বাসুদেবের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করতে চান। বলেন, তিনি ‘ইনার ইঞ্জিনিয়ারিং’ নামের একটি বই লিখেছেন, যার চিন্তাদর্শন একেবারেই নতুন।

কঙ্গনা জানিয়েছেন, ভারতীয় ধর্মতাত্ত্বিক ও দার্শনিক স্বামী বিবেকানন্দের ব্যবহারিক ও বিজ্ঞানসম্মত ভাবনা তার (কঙ্গনা) জীবনে গভীর প্রভাব ফেলেছে বলেও জানান তিনি। বলেন, বহু আগে থেকেই প্রতিষ্ঠিত ধর্মগ্রন্থগুলো পড়েন তিনি। এবং আধ্যাত্মচিন্তায় মশগুল থাকেন।

কঙ্গনা বলেন, ‘স্বামী বিবেকানন্দের দর্শনে যে কারণ ও প্রভাব নিয়ে ব্যাখ্যা রয়েছে, তা আমার ভেতরে গভীর ছাপ ফেলেছে। কর্মজীবী নারী হিসেবে ছোট ছোট ভাগে এ দর্শন আমার লক্ষ্য বিনির্মাণে সাহায্য করে। কখনো একটি অংশ, আবার কখনো একটি পুরো বিষয় অর্জনে সাহায্য করে।’

এই অভিনেত্রী তার আসন্ন চলচ্চিত্র ‘মনিকর্নিকা : দ্য কুইন অব ঝাঁসি’ নিয়েও কথা বলেছেন। কঙ্গনা বলেন, ‘তিনি একজন শহিদ। জাতীয়তাবাদের প্রেরণায় তিনি নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন। এটা আমার ব্যক্তিত্বে ভিন্ন মাত্রা এনেছে। আমি যখন অন স্ক্রিনে অভিনয় করি, তখন চরিত্রের ভেতর ঢুকে পড়ি। এটা সচেতন ভাবে না, তবে যখন ফিরে তাকাই, দেখি আমি চরিত্রের সঙ্গে একাত্ম হয়েছিলাম। মাঝে মধ্যে আমি ওই চরিত্রের মতোই আচরণ করে ফেলি।’

সম্প্রতিকালে অন্য আরেকটি অনুষ্ঠানে কঙ্গনা বলেন, তিনি সবসময় আত্মবিশ্বাসী ছিলেন। এমনকি খুব অল্প বয়সেও ভীষণ আত্মবিশ্বাসী ছিলেন।

কঙ্গনা আরও বলেন, ‘ভারতীয়রা এমনিতেই একটু বেশি সহানুভূতিশীল। সব সময়ই অনুনয়-বিনয়ের ওপর নির্ভরশীল। ভবিষ্যতে তাদের আরো বেশি দৃপ্ত, বলিষ্ঠ হতে হবে। এতে তারা জীবনে আরো উন্নতি করবে এবং জীবনটাকে ভালোভাবে উপভোগ করতে পারবে।’

প্রসঙ্গত, কঙ্গনা রানাউত ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই সাহসী অভিনয়ের জন্য ব্যাপক জনপ্রিয়। ভিন্ন ধারার অভিনয় দিয়ে এর মধ্যেই অসংখ্য ভক্তদের মন জয় করেছেন তিনি। যার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হলো- ‘ফ্যাশন’, ‘গ্যাংস্টার’, ‘লাইফ ইন এ মেট্রো’, ‘কুইন’, ‘তনু ওয়েডস মনু’র মতো সুপারডুপার হিট সিনেমাগুলো।

বিডি২৪লাইভ/টিএএফ

Googleplus Pint
Jafar IqBal
Administrator
Like - Dislike Votes 0 - Rating 0 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)