হুমকির মুখে বিশ্বকাপের যে ১০টি রেকর্ড

ফুটবল দুনিয়া 13 Jun 2018 at 8:29pm 418
Googleplus Pint
হুমকির মুখে বিশ্বকাপের যে ১০টি রেকর্ড

আর ৪৮ ঘণ্টার কম সময়ের মধ্যেই রাশিয়ায় বসবে ফুটবলের মহাযজ্ঞ। আগামী এক মাস ফুটবলের এই মহাযজ্ঞে মেতে থাকবে সবাই। এ বিশ্বকাপে অনেক রেকর্ডের ভাঙা গড়া যে চলবে তা বলাই বাহুল্য। তবে কিছু অনন্য রেকর্ডও আছে যা রাশিয়া বিশ্বকাপে ভাঙতে পারে। চলুন দেখে নেয়া যাক এমন দশটি সম্ভাবনা:

১/ গ্রুপ ‘এ’ ও ‘বি’ তে থাকা উরুগুয়ে ও পর্তুগালের দ্বিতীয় রাউন্ডে পরস্পরের মুখোমুখি হবার ভালো সম্ভাবনা রয়েছে। যদি বিশ্বকাপের দ্বিতীয় পর্বে পর্তুগাল ও উরুগুয়ে মুখোমুখি হয় তাহলে তাদের কোচ ফার্নান্দো সান্তোস এবং অস্কার তাবারেজের মোট বয়স হবে ১৩৫ বছর। বিশ্বকাপে আগে কখনো এতো বেশি বয়সী কোচেদের কোন ম্যাচ হয়নি। বর্তমান রেকর্ডটি গ্রিসের অত্তো রিহাগেল এবং নাইজেরিয়ার লার্স লেজারব্যাকের দখলে। ২০১০ বিশ্বকাপে যখন গ্রিস ও নাইজেরিয়া মুখোমুখি হয় তখন তাদের মোট বয়স ছিলো ১৩৩ বছর নয় মাস।

২/ মিশরের গোলক্ষক এসাম এল হাদারির বর্তমান বয়স ৪৫ বছর পাঁচ মাস। মিশরের হয়ে তিনি যদি কোন ম্যাচে মাঠে নামেন তাহলে তিনি বিশ্বকাপে খেলা সবচেয়ে বয়স্ক ফুটবলার হওয়ার রেকর্ডটি দখল করবেন। বর্তমান রেকর্ডটি ফারিদ মনদ্রাগনের দখলেন। তিনি ৪৩ বছর ৩ দিন বয়সে বিশ্বকাপে খেলেছিলেন।

৩/ বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ টানা অপরাজিত থাকার রেকর্ডটি ব্রাজিলের। তারা ১৯৫৪ বিশ্বকাপ থেকে ১৯৬৬ বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব পর্যন্ত মোট ১৩টি ম্যাচ টানা অপরাজিত ছিল। জার্মানি রাশিয়া বিশ্বকাপ শুরু করবে আট ম্যাচ অপরাজিত থাকার স্ট্রিক দিয়ে। এ বিশ্বকাপে তারা আর পাঁচটি ম্যাচ টানা অপরাজিত থাকলেই ব্রাজিলের রেকর্ডকে স্পর্শ করবে। আরো ছয়টি ম্যাচ টানা অপরাজিত থাকলে সে রেকর্ডকে ছাড়িয়ে যাবে বর্তমান বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। বিশ্বকাপে জার্মানদের সর্বশেষ পরাজয় স্পেনের বিপক্ষে। ২০১০ সালের বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে স্পেনের বিপক্ষে ১-০ গোলে হেরেছিলো জার্মানরা।

৪/ অধিনায়ক হিসেবে বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ গোল করার রেকর্ডটি আর্জেন্টাইন ফুটবল কিংবদন্তি ডিয়াগো ম্যারাডোনার দখলে। অধিনায়ক হিসেবে ৬ টি গোল করেছেন তিনি। আরেক আর্জেন্টাইন লিওনেল মেসির এবার সুযোগ রয়েছে তাঁর পূর্বসুরিকে ছাড়িয়ে যাবার। অধিনায়ক হিসেবে বিশ্বকাপে মেসির গোল ৪ টি।

৫/ কনকাকাফ অঞ্চলের কোন দলের বিশ্বকাপে টানা কোন ম্যাচ না হারার রেকর্ড মেক্সিকোর। তারা টানা ছয় ম্যাচ অপরাজিত ছিলো। এবার সে রেকর্ড ভাঙার দাড়প্রান্তে আছে কোস্টারিকা। গত ব্রাজিল বিশ্বকাপে পাঁচটি ম্যাচ খেলে একটিতেও হারেনি তারা। এবারের বিশ্বকাপে সার্বিয়ার বিপক্ষে যদি পরাজয় এড়াতে পারে তাহলে সেই রেকর্ডে ভাগ বসাবে কোস্টারিকা। এর পরের ম্যাচে ব্রাজিলের বিপক্ষে অপরাজিত থাকলে সে রেকর্ডকে পেছনে ফেলবে তারা।

৬/ দুইটি বিশ্বকাপে পাঁচ কিংবা তার চেয়ে অধিক গোল করা খেলোয়াড়ের সংখ্যা তিনজন। মিরোস্লাভ ক্লোসা, থমাস মুলার এবং তেওফিলো কুবিয়াসেরই রয়েছে এই রেকর্ড। থমাস মুলার এবার এই রেকর্ড ভাঙার দাড়প্রান্তে দাঁড়িয়ে আছেন। এ বিশ্বকাপে পাঁচ গোল করতে পারলেই প্রথম কোন খেলোয়াড় হিসেবে তিনটি বিশ্বকাপে পাঁচ গোল করবেন থমাস মুলার।

৭/ এবারের বিশ্বকাপে মাঠে নামলেই বিশ্বের তৃতীয় খেলোয়াড় হিসেবে পাঁচটি বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করবেন মেক্সিকোর রাফা মার্কুইজ। আরেক মেক্সিকান অ্যান্তোনিও কার্বাহাল এবং জার্মান কিংবদন্তি লোথার ম্যাথাউসেরই শুধু এই রেকর্ড রয়েছে।

৮/ বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ টানা ড্র করার রেকর্ড বেলজিয়ামের। ১৯৯৮ বিশ্বকাপ থেকে ২০০২ বিশ্বকাপ পর্যন্ত টানা পাঁচ ম্যাচ ড্র করেছিলো বেলজিয়াম। কোস্টা রিকা ব্রাজিল বিশ্বকাপে টানা তিন ড্র করে রাশিয়ায় পা রাখছে। আর দুটি ম্যাচ ড্র করলেই সে রেকর্ড স্পর্শ করবে কোস্টারিকা।

৯/ এবারের বিশ্বকাপে কমপক্ষে একটি করে গোল করলেই চারটি বিশ্বকাপে গোল করার কৃতিত্ব অর্জন করবেন টিম কাহিল, রাফা মার্কুইজ এবং ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এর আগের তিনটি বিশ্বকাপেই গোল করেছিলেন তারা। চারটি বিশ্বকাপে গোল করার কৃতিত্ব শুধুমাত্র পেলে, মিরোস্লাভ ক্লোসা এবং উয়ে সিলারের রয়েছে।

১০/ খেলোয়াড় এবং কোচ উভয় ভূমিকায় বিশ্বকাপ জেতার কৃতিত্ব রয়েছে শুধুমাত্র দুই জন খেলোয়াড়ের। ব্রাজিলের মারিও জাগালো এবং জার্মানির ফ্রাঞ্জ বেকেনবাওয়ার খেলোয়াড় এবং কোচ উভয় ভূমিকায় নিজ দেশকে বিশ্বকাপ জিতিয়েছিলেন। এবার সেই সংক্ষিপ্ত তালিকায় যাওয়ার সুযোগ ফ্রান্স কোচ দিদিয়ের দেশমের সামনে। ফ্রান্সকে বিশ্বকাপ জেতাতে পারলে তিনিও এ তালিকায় ঢুকে যাবেন। খেলোয়াড় হিসেবে ফ্রান্সের হয়ে ১৯৯৮ সালের বিশ্বকাপ জিতেছিলেন দেশম।

সূত্রঃ জাগো নিউজ

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 0 - Rating 0 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)