ফিক্সিংয়ে অভিযুক্ত গলের কিউরেটর

ক্রিকেট দুনিয়া 26 May 2018 at 10:23pm 905
Googleplus Pint
ফিক্সিংয়ে অভিযুক্ত গলের কিউরেটর

শ্রীলঙ্কার গল স্টেডিয়ামের সহকারী ম্যানেজার ও কিউরেটর থারাঙ্গা ইন্ডিকার বিরুদ্ধে স্পট ফিক্সিংয়ের অভিযোগ উঠেছে। বার্তা সংস্থা আলজাজিরার এক প্রতিবেদনে বিষয়টি উঠে এসেছে।

গত রোববার আলজাজিরা টিভিতে তাদের প্রতিবেদন প্রকাশ করে। এরপরই আইসিসি বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করে। মূলত দুটি সিরিজকে ঘিরে গলের কিউরেটরের ওপর সন্দেহ করা হয়। ২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়া সিরিজ এবং ২০১৭ সালে ভারত সিরিজ। আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, দুটি সিরিজেই উইকেট ‘ডক্টরিং’ করেছিলেন থারাঙ্গা ইন্ডিকা। ফিক্সারের প্রত্যাশিত উইকেট প্রস্তুত করেছিলেন থারাঙ্গা। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজে স্পিন সহায়ক উইকেট এবং ভারতের বিপক্ষে সিরিজে ব্যাটসম্যানদের সহায়ক উইকেট প্রস্তুত করেছিলেন গলের কিউরেটর।

কিউরেটরকে প্রস্তাব দেওয়া দুই ফিক্সার এরই মধ্যে বিষয়টি স্বীকার করেছে। তারা হলেন মুম্বাইয়ের পেশাদার ক্রিকেটার রবিন মরিস এবং কলম্বোর পেশাদার ক্রিকেটার থারিন্দু মেন্ডিস। তাদের দুজনের কথোপকথনের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে আল জাজিরা। পাশাপাশি রবিন মরিস এবং থারিন্দু মেন্ডিস জানিয়েছেন নভেম্বরে ইংল্যান্ড সিরিজের উইকেট ‘ডক্টরিং’-এর বিষয়েও কথা চলছিল তাদের।

২০১৬ সালের গলে অস্ট্রেলিয়া যেই উইকেটে খেলেছিল সেখানে প্রথম ইনিংসে মাত্র ১০৬ রানে অলআউট হয়েছিল এবং দ্বিতীয় ইনিংসে গুটিয়ে যায় ১৮৩ রানে। ম্যাচটি তারা হেরেছিল ২২৯ রানে।

অস্ট্রেলিয়ার ২০ উইকেটের ১৮টি পেয়েছিল স্পিনাররা এবং ‍দুই ইনিংস মিলিয়ে ৮৫ ওভারও ব্যাটিংয়ের ‍সুযোগ পাননি তারা। ম্যাচ যেন পাঁচ দিনে না যায় সেই মোতাবেক উইকেট প্রস্তুত করেছিলেন কিউরেটর।

এছাড়া ২০১৭ সালে ভারতের বিপক্ষে সিরিজে ব্যাটসম্যানদের সহায়তা দেওয়া হয়েছিল। ওই ম্যাচে ৬০০ রান করেছিল ভারত। দুই সিরিজেই দুইহাত ভরে কামিয়েছেন কিউরেটর।

আলজাজিরার প্রতিবেদনে দেখা যায়, মরিস ইন্ডিকাকে দেখিয়ে বলছিলেন, ‘তার কী হয়েছে-আমরা যে ধরনের উইকেট চাচ্ছি সেই ধরনের উইকেট পাব। কারণ ও হচ্ছে এখানকার মূল কিউরেটর। পাশাপাশি এখানকার সহকারী ম্যানেজার। ’

উইকেট ‘ডক্টরিং’ করায় ৩৭ হাজার ডলার পেয়েছিলেন থারাঙ্গা ইন্ডিকা। পাশাপাশি নিজেদের পক্ষে ফল আসায় ৩০ শতাংশ উইনিং বোনাসও পেয়েছিলেন।

তথ্যসূত্রঃ ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 0 - Rating 0 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)