JanaBD.ComLoginSign Up

Bangla eid sms, Bangla eid mubarak sms, Bangla new eid sms

ইসলামের আলোকে তালাক দেওয়ার সঠিক পদ্ধতি

ইসলামিক সংবাদ 5th Dec 17 at 8:04pm 1,478
Googleplus Pint
ইসলামের আলোকে তালাক দেওয়ার সঠিক পদ্ধতি

ইসলামের আলোকে তালাক দেওয়ার সঠিক পদ্ধতি
মুফতি মাহমুদ হাসান
ইসলামের আলোকে তালাক দেওয়ার সঠিক পদ্ধতি
অ-অঅ+
যদি কোনো স্ত্রী স্বামীর অধিকার আদায় না করে; বরং উচ্ছৃঙ্খল জীবন যাপন করতে অভ্যস্ত হয়, তাহলে স্বামীর দায়িত্ব হলো তাকে সংশোধনের সর্বাত্মক চেষ্টা করা। তালাক দেওয়ার আগে ইসলামে কয়েকটি পদক্ষেপের কথা বলা হয়েছে।

স্বামী সেগুলো অনুসরণ করবে। তার পরও যদি স্ত্রীর মধ্যে কোনো পরিবর্তন না আসে, তাহলে চূড়ান্ত ফয়সালা তালাক দেওয়ার পথ বেছে নিতে পারবে।
প্রথম পদক্ষেপ : স্ত্রীর অবাধ্যতা দেখেই উত্তেজিত হবে না; বরং নিজেকে সংযত রাখবে ও তাকে মিষ্টি ভাষায় বোঝানোর চেষ্টা করবে। স্ত্রীর প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করে তার মন গলানোর চেষ্টা করবে। স্ত্রী কোনো ভুল ধারণায় থাকলে যথাসম্ভব তা দূর করার চেষ্টা করবে। স্বামী নিজেকে সংযত রেখে সব কিছু ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবে। ছাড় দেওয়া ও মায়া-মমতার মাধ্যমে যত দূর সম্ভব দাম্পত্য জীবন স্থায়ী করার আপ্রাণ চেষ্টা করবে।

দ্বিতীয় পদক্ষেপ : উক্ত পদক্ষেপের মাধ্যমে কাজ না হলে স্ত্রীর ব্যবহারে রাগ-অনুরাগ, অভিমান প্রকাশ করার জন্য স্বামী স্ত্রীর সঙ্গে একত্রে রাতযাপন থেকে বিরত থাকবে। স্ত্রীর ঘুমানোর জায়গা পৃথক করে দেবে।

স্ত্রী যদি এতেই সতর্ক হয়ে যায় এবং নিজেকে সংশোধন করে নেয়, তাহলে দাম্পত্য জীবন সুখের হবে। আল্লাহ বলেন, ‘স্ত্রীদের মধ্যে যাদের অবাধ্যতার আশঙ্কা করো তাদের সদুপদেশ দাও। তারপর তাদের শয্যা বর্জন করো। অতঃপর তাদের সামান্য প্রহার করো। (অর্থাৎ এমনভাবে হালকা প্রহার করবে, যাতে শরীরে কোনো যখম বা আঘাত না হয় এবং মুখে ও লজ্জাস্থানে কখনো প্রহার করবে না। মুজামে তাবরানি : হা. ২১৩০) যদি তারা তোমাদের অনুগত হয়, তবে তাদের বিরুদ্ধে কোনো পথ অন্বেষণ কোরো না। (সুরা নিসা, আয়াত : ৩৪)

তৃতীয় পদক্ষেপ : উল্লিখিত দুটি পদক্ষেপ গ্রহণ করার পরও কোনো কাজ না হলে তৃতীয় পদক্ষেপ হিসেবে ইসলামের নির্দেশ হলো উভয় পক্ষ থেকে এক বা একাধিক সালিসের মাধ্যমে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যকার সমস্যা নিরসনের চেষ্টা করবে। কোরআনে কারিমে ইরশাদ হচ্ছে, ‘তোমরা যদি স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ সৃষ্টির আশঙ্কা করো, তবে মীমাংসার জন্য পুরুষের পরিবার থেকে একজন সালিস ও নারীর পরিবার থেকে একজন সালিস পাঠিয়ে দেবে। তারা দুজন যদি মীমাংসা করতে চায়, তবে আল্লাহ উভয়ের মধ্যে ঐক্য সৃষ্টি করে দেবেন। নিশ্চয়ই আল্লাহ সর্ববিষয়ে জ্ঞাত ও সর্ববিষয়ে অবহিত। ’ (সুরা : নিসা, আয়াত : ৩৫)

তালাক হলো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত

যদি পরিস্থিতি এমন ভয়াবহ অবস্থায় পৌঁছে যায় যে মীমাংসার সব চেষ্টা ব্যর্থ হয়, তখন ইসলামী শরিয়ত স্বামীকে তালাক দেওয়ার এখতিয়ার দিয়েছে। তবে ইসলামের দৃষ্টিতে তালাক দেওয়া অত্যন্ত অপছন্দনীয় ও ঘৃণিত কাজ। হাদিস শরিফে রয়েছে, ‘আল্লাহর কাছে বৈধ কাজগুলোর মধ্যে সবচেয়ে ঘৃণিত কাজ হলো তালাক। ’ (আবু দাউদ : হাদিস : ২১৭৮)

এর পরও তালাক দেওয়া ছাড়া অন্য কোনো পথ খোলা না থাকলে ইসলামী শরিয়ত সমর্থিত পদ্ধতি অনুসরণ করে তালাক দেবে। এ পদ্ধতি অনুসরণ করার অনেক সুফল রয়েছে।

তালাক দেওয়ার সর্বোত্তম পদ্ধতি

এক. কোরআন-হাদিসের নির্দেশনা এবং সাহাবা-তাবেঈনের কর্মপন্থা থেকে প্রমাণিত যে তালাক দেওয়ার সর্বোত্তম পদ্ধতি হলো, স্ত্রী যখন হায়েজ (মাসিক ঋতুস্রাব) থেকে পবিত্র হবে, তখন স্বামী তার সঙ্গে সহবাস না করে সুস্পষ্ট শব্দে তালাক দেবে। হায়েজ অবস্থায় তালাক দেওয়া এ জন্যই নিষিদ্ধ, যাতে তার উক্ত দুঃসময়ের কারণে তালাক সংঘটিত না হয়; বরং ভালো সময়ে বুঝে-শুনে তালাক সংঘটিত হয়। (হুজ্জাতুল্লাহিল বালেগা : ২/১৩৯)

দুই. স্বামী সুস্পষ্ট শব্দে এক তালাক দেবে। এরপর স্বামী যদি স্ত্রীকে ইদ্দত চলা অবস্থায় ফিরিয়ে নেয় তাহলে ভালো। পুনরায় স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্ক কায়েম হয়ে যাবে। নতুন করে বিবাহের প্রয়োজন হবে না। আর যদি ইদ্দত চলাকালে স্বামী স্ত্রীকে ফিরিয়ে না নেয়, তাহলে ইদ্দত (তিন ঋতুস্রাব বা তিন মাস) শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবে। স্ত্রী স্বামী থেকে সম্পূর্ণ পৃথক হয়ে যাবে। অধিকাংশ ক্ষেত্রে দেখা যায়, তালাকের পরে উভয়েই অনুতপ্ত হয় এবং বৈবাহিক সম্পর্ক পুনর্বহাল করার আপ্রাণ চেষ্টা করে। যদি ইসলামের নির্দেশনা অনুযায়ী এক তালাক দেওয়া হয়, তাহলে এ আশা পূরণের সুযোগ থাকে এবং তারা পুনরায় বৈবাহিক জীবন শুরু করতে পারে। কিন্তু স্বামী একসঙ্গে তিন তালাক দিলে ইদ্দত চলাকালেও স্ত্রীকে ফিরিয়ে নেওয়ার সুযোগ থাকে না। ইদ্দতের পরেও নতুনভাবে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার অবকাশ থাকে না। তারা একে অন্যের জন্য সম্পূর্ণ হারাম হয়ে যায়। এমতাবস্থায় অনুতপ্ত হওয়া এবং আপসের জন্য আগ্রহী হলেও তা কোনো কাজে আসে না।

তিন. যদি তারা চায় যে আর কোনো দিন তারা একে অন্যের সংসারে ফিরে আসবে না, সে ক্ষেত্রেও ইসলাম একসঙ্গে তিন তালাক দিতে নিষেধ করেছে। তাই হায়েজের পর প্রত্যেক পবিত্রতার সময় এক তালাক করে তিন তালাক দেবে। এভাবে তিন তালাকের মাধ্যমে তারা সম্পূর্ণ পৃথক হয়ে যাবে। এ পদ্ধতিতে তালাক দিলে তালাক-পরবর্তী পরিস্থিতি নিয়ে স্বাভাবিকভাবে চিন্তাভাবনা করার সুযোগ পাওয়া যায়। ধীরস্থিরভাবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া যায়। তাড়াহুড়া করে অনাকাঙ্ক্ষিত কোনো সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় না। পক্ষান্তরে একসঙ্গে তিন তালাক দিলে এই অবকাশগুলো থাকে না এবং তা কোনো সুফলও বয়ে আনে না; বরং স্বামী-স্ত্রী উভয়ে যন্ত্রণায় ছটফট করতে থাকে। জীবন তাদের জন্য দুর্বিষহ হয়ে পড়ে।

চার. ইসলামে তালাক দেওয়ার অধিকার কেবল স্বামীকেই দেওয়া হয়েছে, স্ত্রীর হাতে তা দেওয়া হয়নি। কেননা নারীদের স্বভাবে সাধারণত তাড়াহুড়ো করার প্রবণতাটা বেশি। তাই তাদের তালাকের ক্ষমতায় দিলে ছোটখাটো বিষয়েও তাড়াহুড়ো করে তালাক দিয়ে দেওয়ার আশঙ্কা বেশি। সুতরাং অধিক পরিমাণে বিবাহবিচ্ছেদ রোধেই ইসলাম নারীদের তালাকের ক্ষমতা দেয়নি।

পাঁচ. তবে ইসলামে নারীদের সম্পূর্ণ আটক করে রাখতেও বলা হয়নি; বরং তারাও প্রয়োজনে যথাযথ নিয়মে বিবাহবিচ্ছেদ করতে পারবে। এ জন্য তাদের নির্দিষ্ট ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে। যথা—ক. বিবাহের আগেই স্ত্রী এ শর্ত দিতে পারবে যে আমাকে তালাক দেওয়ার অধিকার দিতে হবে, তখন স্বামী অধিকার দিলে স্ত্রী প্রয়োজনে সে অধিকার প্রয়োগ করতে পারবে।

খ. যদি বিবাহের সময় শর্ত না-ও দিয়ে থাকে, তার পরও স্ত্রী স্বামীর কাছ থেকে টাকার বিনিময়ে তালাক নিতে পারবে।

গ. আর যদি তা-ও না করে, তবুও স্বামী নপুংসক হলে, পাগল, অস্বাভাবিক রাগসম্পন্ন হলে বা নিখোঁজ হয়ে গেলে অথবা যেকোনো কঠিন সমস্যায় পতিত হলে স্ত্রী বিচারকের মাধ্যমে নিজেই তালাক নিয়ে নিতে পারবে।

লেখক : মুহাদ্দিস ও ফতোয়া গবেষক

Googleplus Pint
Masuk Ali
Member
Like - Dislike Votes 38 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি
শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে, শনিবার ঈদ শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে, শনিবার ঈদ
15 Jun 2018 at 7:33pm 147
২২ ঘণ্টা রোজা রাখছেন গ্রিনল্যান্ডের মুসলিমরা ২২ ঘণ্টা রোজা রাখছেন গ্রিনল্যান্ডের মুসলিমরা
20 May 2018 at 3:34pm 1,321
সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - ২০১৮ সেহরি ও ইফতারের সময়সূচি - ২০১৮
17 May 2018 at 9:00pm 1,089
চাঁদ দেখা যায়নি, রোজা শুরু শুক্রবার চাঁদ দেখা যায়নি, রোজা শুরু শুক্রবার
16 May 2018 at 7:51pm 437
বৃহস্পতিবার থেকে সৌদি আরবে রোজা শুরু বৃহস্পতিবার থেকে সৌদি আরবে রোজা শুরু
16 May 2018 at 7:12am 658
সাহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৮ সাহরি ও ইফতারের সময়সূচি ২০১৮
26 Apr 2018 at 3:17pm 1,304
ইসলাম কেন এতটা গুরুত্বপূর্ণ ধর্ম? ইসলাম কেন এতটা গুরুত্বপূর্ণ ধর্ম?
31st Dec 17 at 5:40pm 1,444
চীন, ভারত ও আমেরিকায় কি নবী এসেছেন? চীন, ভারত ও আমেরিকায় কি নবী এসেছেন?
7th Dec 17 at 9:47pm 2,621

পাঠকের মন্তব্য (0)

Recent Posts আরও দেখুন
ফেবারিট ব্রাজিলকেও থমকে দিলো সুইজারল্যান্ডফেবারিট ব্রাজিলকেও থমকে দিলো সুইজারল্যান্ড
4 hours ago 84
কুটিনহোর গোলে এগিয়ে গেল ব্রাজিলকুটিনহোর গোলে এগিয়ে গেল ব্রাজিল
5 hours ago 51
বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে কাঁদিয়ে মেক্সিকোর অবিস্মরণীয় জয়বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে কাঁদিয়ে মেক্সিকোর অবিস্মরণীয় জয়
Yesterday at 11:23pm 81
প্রচণ্ড গরমে গায়ে কম্বল পেঁচিয়ে ঘুরে বেড়ান এই ব্যাক্তি! কারণ জানলে অবাক হবেনপ্রচণ্ড গরমে গায়ে কম্বল পেঁচিয়ে ঘুরে বেড়ান এই ব্যাক্তি! কারণ জানলে অবাক হবেন
Yesterday at 10:32pm 68
সালমানের ঈদ পার্টিতে লুলিয়া, সোনাক্ষী, ডেইজিসালমানের ঈদ পার্টিতে লুলিয়া, সোনাক্ষী, ডেইজি
Yesterday at 6:20pm 95
একেই বলে অভিজ্ঞতাএকেই বলে অভিজ্ঞতা
Yesterday at 6:16pm 97
আর্জেন্টিনার জন্য বিশেষ পরিকল্পনার হুঁশিয়ারি ক্রোয়েশিয়ারআর্জেন্টিনার জন্য বিশেষ পরিকল্পনার হুঁশিয়ারি ক্রোয়েশিয়ার
Yesterday at 11:36am 341
প্রথমদিনই বক্স অফিসে ঝড় তুলল সালমানের ‘রেস থ্রি’প্রথমদিনই বক্স অফিসে ঝড় তুলল সালমানের ‘রেস থ্রি’
Yesterday at 11:36am 279