মেয়েদের আশেপাশে যেতেই এখন ভয় পান গেইল

খেলাধুলার বিবিধ 27th Oct 17 at 10:56pm 726
Googleplus Pint
মেয়েদের আশেপাশে যেতেই এখন ভয় পান গেইল

'টি-টোয়েন্টির ফেরিওয়ালা' খ্যাত ক্রিস গেইল তার বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি নারীঘটিত বিষয়েও সমান আলোচিত।

কিছুদিন আগে আরও একবার তার নারী কেলেঙ্কারির কথা ফাঁস হয়েছে।

২০১৫ বিশ্বকাপের সময়ে অস্ট্রেলিয়ার এক ম্যাসাজ থেরাপিস্ট তরুণীকে যৌন হয়রানির অভিযোগের বিরুদ্ধে পাল্টা মানহানির মামলা করেছেন ক্যারিবীয় দানব। কিন্তু এই ঘটনার পর থেকেই নাকি মেয়েদের আশেপাশে যেতেই ভয় পাচ্ছেন গেইল!

গেইলের পুরনো বন্ধু ডনোভান মিলার সম্প্রতি এই তথ্য আদালতের সামনে প্রকাশ করেছেন। মিলারের সঙ্গে গেইলের বন্ধুত্ব ২২ বছরের। এই ক্যারিবীয় ব্যাটিং দানবকে খুব ভালো করেই চেনেন মিলার। বন্ধুর পক্ষে আদালতে সাক্ষ্য দিতে গিয়ে মিলার বলেন, 'আমি ওকে খুব ভালোভাবে চিনি। সে এখন সব সময় আতঙ্কে থাকে, ভাবে সবাই তাঁর ক্ষতি করতে চাচ্ছে।

আপনারা দেখতেই পাচ্ছেন ঘটনাগুলো ওর ওপর প্রভাব ফেলছে। ওর চোখের দিকে তাকালেই বোঝা যায় ও মেয়েদের নিয়ে এখন কতটা আতঙ্কিত!'

দুই বছর আগের ঘটনা নতুন করে সামনে আসার পেছনে অস্ট্রেলীয় মিডিয়ার ভুমিকা আছে। অজি মিডিয়া প্রায় ধারাবাহিকভাবে বিষয়টি নিয়ে রিপোর্ট করে যাচ্ছিল।

শেষ পর্যন্ত ত্যক্ত বিরক্ত হয়ে মানহানির মামলা ঠুকে বসেন গেইল। তার বন্ধু মিলার আদালতে আরও বলেন, যৌন হয়রানির ঘটনা যখন প্রথম প্রথম অজি মিডিয়ায় প্রকাশিত হতো তখন তারা ভেবেছিলেন কেউ তাদের সঙ্গে মজা করছে। একইসঙ্গে তিনি গেইলকে নির্দোষ দাবি করেন।

উল্লেখ্য, অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ২০১৫ বিশ্বকাপে সিডনিতে অনুষ্ঠিত একটি ম্যাচ শেষে ওই ম্যাসাজ থেরাপিস্টকে গেইল অশালীন ইঙ্গিত করেছিলেন বলে দাবি করে আসছে দেশটির প্রথম সারির কিছু মিডিয়া। ওই তরুণী থেরাপিস্টের সামনে নাকি তোয়ালে খুলে নিজের গোপনাঙ্গ প্রদর্শন করেছিলেন গেইল। এর পর ২০১৬ সালে এক টিভি উপস্থাপিকাকে অনুষ্ঠান চলার সময়েই অভিসারের প্রস্তাব দিয়েছিলেন গেইল। ওই ঘটনার পরই সেই ম্যাসাজ থেরাপিস্ট তরুণী নিজের সাথে ঘটা ঘটনাটি প্রকাশ্যে আনার সিদ্ধান্ত নেন।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 18 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)