তোয়ালে খুলে গেইলের অসভ্যতা

খেলাধুলার বিবিধ 23rd Oct 17 at 2:36pm 685
Googleplus Pint
তোয়ালে খুলে গেইলের অসভ্যতা

বিভিন্ন সময় বিভিন্ন অভিযোগ উঠেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইলের বিরুদ্ধে। কিন্তু ওসবে পাত্তা দেননি।

অস্ট্রেলীয় একটি মিডিয়া গ্রুপ তাদের বিভিন্ন সংবাদপত্রে তাঁর সম্পর্কে ধারাবাহিকভাবে যেসব প্রতিবেদন ছাপিয়ে গেছে, সেগুলো নিয়ে অসম্ভব খেপেছেন এই ক্যারিবীয় ক্রিকেটার।

মানহানির মামলা দায়ের করেছেন, বলেছেন, এই ব্যাপারটি নিয়ে তিনি লড়ে যাবেন, এমন অশালীন অভিযোগ থেকে নিজেকে তিনি মুক্ত করবেনই।

অভিযোগটা কী? অভিযোগটা খুবই অশ্লীল। ২০১৫ বিশ্বকাপের একটি ম্যাচে সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডের ড্রেসিংরুমে তিনি নাকি একজন নারী ম্যাসাজ থেরাপিস্টের সামনে তোয়ালে খুলে ফেলেছিলেন। দেখিয়েছিলেন শরীরের গোপনাঙ্গ! গেইল দাবি করেছেন, এ ধরনের কোনো ব্যাপার ঘটেনি। বরং তাঁর সুনাম নষ্ট করার অপচেষ্টা নাকি চলছে!

গত জানুয়ারি মাসে ব্যাপারটি নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার ফেয়ারফ্যাক্স মিডিয়া গ্রুপের কয়েকটি সংবাদপত্র যেমন সিডনি মর্নিং হেরাল্ড, দ্য এজ এবং দ্য ক্যানবেরা টাইমসে ধারাবাহিকভাবে কিছু প্রতিবেদন ছাপা হয়।

ওই প্রতিবেদনের তথ্য তাঁর মানহানি করেছে—এমনটা দাবি করে তিনি নিউসাউথ ওয়েলসের একটি আদালতে মামলাও ঠুকে দিয়েছেন। রোববার সেই মামলার শুনানিতে গেইলের পক্ষের কৌঁসুলি বলেছেন, তাঁর মক্কেলের বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ আনা হয়েছে, সেগুলো পুরোপুরি মিথ্যা। এর মাধ্যমে তারা গেইলকে অসম্মান করেছে। তাঁকে ধ্বংস করে দেওয়ার পাঁয়তারা করছে।

এই অভিযোগ সম্পর্কে বলতে গিয়ে গেইল কিছুটা আবেগপ্রবণও, ‘আমি এ জীবনে যত বাজে ঘটনার মুখোমুখি হয়েছি, এই অভিযোগটি হচ্ছে ভয়াবহতম। তবে আমি দৃঢ়প্রতিজ্ঞ, মিথ্যা এই অভিযোগ থেকে আমি নিজেকে মুক্ত করবই।’

ফেয়ারফ্যাক্স মিডিয়া অবশ্য বলেছে, প্রয়োজনীয় তথ্য-প্রমাণ হাতে নিয়েই তারা এই সংবাদ ছাপিয়েছে।

গত বছর অস্ট্রেলিয়ার বিগব্যাশে খেলতে গিয়েও একজন নারী টেলিভিশন উপস্থাপকের সঙ্গে অপ্রীতিকর আলাপচারিতায় জড়িয়ে পড়েছিলেন গেইল। তবে এই অভিযোগ আরও গুরুতর। দেখা যাক, গেইল নিজেকে নিষ্কলঙ্ক প্রমাণ করতে পারেন কি না। এ নিয়ে আদালতে শুরু হচ্ছে শুনানি।

সূত্র: এএফপি।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 15 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)