নিয়মিত স্বামীর রক্তপান করত এই 'পিশাচ' স্ত্রী

ভয়ানক অন্যরকম খবর 8th Aug 17 at 2:16pm 2,255
Googleplus Pint
নিয়মিত স্বামীর রক্তপান করত এই 'পিশাচ' স্ত্রী

দেশবাসীকে 'ডিজিটাল ইন্ডিয়া' গড়ে তোলার স্বপ্ন দেখিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু এখনো যে দেশের প্রত্যন্ত প্রান্তে আমজনতার বাড়িতে পিশাচ, তন্ত্রসাধনার মতো বুজরুকি চলে, সেখানে এই স্বপ্ন কি আদৌ সফল হবে? ঘটনাস্থল ভারতের বীরভূমের সদাইপুর থানা এলাকা। এক মহিলার বিরুদ্ধে স্বামীর রক্তপানের অভিযোগকে ঘিরে শোরগোল পড়ে গিয়েছে ওই গ্রামে।

অভিযোগ, অভিজিৎ বাগদির (২২) স্ত্রী সাবিত্রী বাগদি (১৮) সাধনার নামে নিয়মিত স্বামীর বুকের ওপর উঠে বসে রক্তপান করত। তাঁদের ঘরে নাকি এদিক-ওদিক ছড়িয়ে ছিটিয়ে মৃত মানুষের খুলি, হাড়গোড় পড়ে থাকতে দেখা যেত। এমনকি, সাবিত্রীকে প্রতিবেশীরা নগ্ন অবস্থায় বাড়ির চারপাশে ঘুরে বেড়াতে দেখেছে গভীর রাতে। ভয়ে, স্থানীয়রা খুব একটা ওই অভিশপ্ত বাড়ির কাছেও যেতেন না।

সম্প্রতি অভিজিৎ অসুস্থ হয়ে বর্ধমান হাসপাতালে ভর্তি হন। তাঁর মা ছবি বাগদির অভিযোগ, পুত্রবধূর তন্ত্রসাধনার জেরেই অসুস্থ হয়ে পড়েন অভিজিৎ। নিয়মিত তাঁর রক্তপান করত অভিযুক্ত সাবিত্রী।

শেষ পর্যন্ত গতকাল রবিবার রাতে হাসপাতাল থেকে খবর আসে, অভিজিৎ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন।

এই খবর গ্রামে আসতেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন স্থানীয় বাসিন্দারা। দলবল বেঁধে তাঁরা মূল অভিযুক্ত ও তার বাবা-মা ও দুই দাদার ওপর চড়াও হয়। স্থানীয় কয়েকজনের তৎপরতায় কোনোমতে প্রাণে বাঁচেন অভিযুক্ত। খবর পেয়ে পুলিশ অভিযুক্তদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

এদিকে স্থানীয়দের অভিযোগ, অভিজিতের মৃতদেহ গ্রামে এসে পৌঁছলেও শোকপ্রকাশ করতে দেখা যায়নি তাঁর স্ত্রীকে। বরং সেই সময় নাকি ঘরের ভেতর থেকে মৃত মানুষের খুলি, কাটা আঙুল নিয়ে এসেও কিছু মন্ত্র পড়তে শুরু করে সাবিত্রী।

অথচ মাত্র দুই বছর আগেই অভিজিৎ ও সাবিত্রীর বিয়ে হয়। তাঁদের একটি সন্তানও রয়েছে। স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রথম থেকেই বাবার বাড়ির সদস্যদের কথায় পৈশাচিক সাধনায় মেতে থাকত সাবিত্রী। অস্বাভাবিক আচরণ করত। স্বামীকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। স্বামীর বুকের ওপর উঠে বসে রক্তপান করার কথাও জানা গিয়েছে।

থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আপাতত অভিযুক্ত ও তার আত্মীয়দের জিজ্ঞাসাবাদ করে আসল ঘটনা জানার চেষ্টা চলছে।

সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 34 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)