চুল বাঁধা অবস্থায় নারীদের নামাজ হবে কি?

ইসলামিক শিক্ষা 15th Jul 17 at 9:08pm 613
Googleplus Pint
চুল বাঁধা অবস্থায় নারীদের নামাজ হবে কি?

নামাজ, রোজা, হজ, জাকাত, পরিবার, সমাজসহ জীবনঘনিষ্ঠ ইসলামবিষয়ক প্রশ্নোত্তর অনুষ্ঠান ‘আপনার জিজ্ঞাসা’।

জয়নুল আবেদীন আজাদের উপস্থাপনায় এনটিভির জনপ্রিয় এ অনুষ্ঠানে দ‍র্শকের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন বিশিষ্ট আলেম ড. মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ।

বিশেষ আপনার জিজ্ঞাসার ৫০০তম পর্বে নারীদের মাথার চুল বেঁধে রাখা অবস্থায় নামাজ হবে কি না, সে সম্পর্কে টেলিফোনে রাজশাহী থেকে জানতে চেয়েছেন লায়লা। অনুলিখনে ছিলেন জহুরা সুলতানা।

প্রশ্ন : আমি অনেক বিষয় যেমন সহিহ হাদিস, বুখারি শরিফ পড়াশোনা করি। আপনাদের এই অনুষ্ঠান আমি নিয়মিত দেখি। ইউটিউবেও ড. সাইফুল্লাহ সাহেবের অনুষ্ঠানগুলো দেখি। হঠাৎ দু-তিনদিন আগে আমি জানতে পারলাম, মেয়েরা নাকি নামাজ পড়ার সময় চুল ছেড়ে দিত হবে। চুলে যে আমরা খোঁপা করি বা ক্লিপ বেঁধে রাখি এটা নাকি ঠিক না? আমাকে এটা একটু জানাবেন যে, আসলে আমরা চুলগুলি কী করব?

উত্তর : সালাতের সময়ে চুল ছেড়ে দেওয়ার বিষয়ে আলেমদের মধ্যে দ্বিমত রয়েছে। একদল ওলামায়ে কেরাম এটাকে মুস্তাহাব বা উত্তম বলেছেন। যদি কেউ নামাজের আগেই চুলে বেণী করে নেন অথবা আগেই করে থাকেন, তাঁর জন্য বাধ্যতামূলক নয় যে, চুলকে ছেড়ে দিতে হবে। যদি কেউ ছেড়ে দেন, তাহলে তিনি তাঁদের (যাঁরা এই বক্তব্য দিয়েছেন, উত্তম হওয়ার বিষয় বলেছেন) এই আমলটি করলেন। তবে, এটা বাধ্যতামূলক বিষয় নয় যে এই কারণে সালাত মাকরূহ হবে অথবা সালাত নষ্ট হবে বা সালাতের ফজিলত কম হবে। এই ধরনের বাধ্যতামূলক বিষয় নয়।

নামাজের আগে যদি কেউ চুল বাঁধেন অথবা ছেড়ে দেন, উভয় অবস্থায় তাঁর মাথার চুল ঢেকে রাখতে হবে। যদি চুল আগে বেঁধে রাখেন সেই অবস্থায় নামাজ শুদ্ধ হয়ে যাবে, আর যদি চুল ছেড়ে দেন এবং ঢেকে রাখেন সেই অবস্থায়ও নামাজ শুদ্ধ হয়ে যাবে।

সূত্রঃ এনটিভি

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 22 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)