কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই রঙ ফর্সা করবে এই ৩ টি দারুণ ফেসমাস্ক

রূপচর্চা/বিউটি-টিপস 8th Jul 17 at 10:52am 387
Googleplus Pint
কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ছাড়াই রঙ ফর্সা করবে এই ৩ টি দারুণ ফেসমাস্ক

প্রত্যেক নারীরই কাম্য ফর্সা ও দাগহীন ত্বক। আর তা অর্জনের জন্য তারা ব্যবহার করে থাকেন অনেক কিছুই। এজন্য বাজারে অনেক রঙ ফর্সাকারী ক্রিমও রমরমা ব্যবসা করছে, যেগুলোতে আছে ত্বকের জন্য ক্ষতিকর রাসায়নিক । কিন্তু আপনার ঘরেই এমন কিছু প্রাকৃতিক উপাদান উপস্থিত যা ত্বক ফর্সা করতে অত্যন্ত কার্যকরী। চলুন, জেনে নিই ত্বক ফর্সা করার প্রাকৃতিক উপাদানগুলোর কথা ও ব্যবহার প্রনালী।

১। পেঁপে এবং মধুর মাস্ক

পাকা পেঁপে শুধু খেতেই সুস্বাদু নয় ত্বকের জন্যও এটি অত্যন্ত উপকারী। পেঁপেতে পেপেইন নামক এনজাইম থাকে এবং আলফা হাইড্রোক্সি এসিড থাকে যা মৃত চামড়া দূর করে ত্বক পরিষ্কার করতে সাহায্য করে, ফলে ত্বক হয়ে ওঠে উজ্জ্বল। এই মাস্কের অন্য উপাদানটি হচ্ছে মধু, যার ব্যাকটেরিয়াররোধী গুণ আছে বলে ত্বককে সুরক্ষা দিতে পারে। এর জন্য আধা কাপ পাকা পেঁপের টুকরো এবং ১ চা চামচ মধু নিন। পেঁপের টুকরোগুলো ভালো করে থেঁতলে নিন। এর সাথে মধু মিশিয়ে ঘন পেস্ট তৈরি করুন। এবার এই পেস্ট ভালো করে মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর উষ্ণ পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। এরপর ঠান্ডা পানির ঝাপটা দিন এবং তোয়ালে দিয়ে মুখ মুছে নিন। প্রতি রাতে ঘুমানোর আগে ব্যবহার করুন এই ফেস প্যাকটি। এটি স্বাভাবিক ও তৈলাক্ত ত্বকের জন্য ভালো।

কিছু মানুষের ক্ষেত্রে পেপেইন অ্যালার্জিক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে। আপনি যদি পেঁপের প্রতি অ্যালারজিক হন তাহলে এই প্যাকটি ব্যবহার করবেন না।

২। শুষ্ক কমলার খোসা এবং দই

ত্বক ফর্সা করতে কমলার খোসা দারুণ কাজ করে। এছাড়াও ভিটামিন সি তে সমৃদ্ধ হওয়ায় এটি রঞ্জকরোধী উপাদান হিসেবে কাজ করে। এই মাস্ক তৈরি করতে আপনার যা প্রয়োজন হবে তা হল – কয়েকটি কমলার খোসা এবং টক দই। কমলার খোসাগুলোকে ২/৩ দিন সূর্যের আলোয় শুকিয়ে নিন। শুকনো খোসাগুলকে ভালো করে গুঁড়ো করে নিন। ১ টেবিল চামচ কমলার খোসার পাউডারের সাথে দই মিশিয়ে মসৃণ পেস্ট তৈরি করুন। আপনার মুখ পরিষ্কার করে নিয়ে এই পেস্ট মুখে লাগান এবং ১৫-২০ মিনিট রেখে দিন। তারপর উষ্ণ পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। একদিন পর পর এই মাস্কটি ব্যবহার করুন রাতে ঘুমানোর আগে। সব ধরনের ত্বকের জন্যই এটি উপযোগী।

৩। দুধ, লেবুর রস ও মধুর মাস্ক

লেবুর রস ভিটামিন সি তে সমৃদ্ধ। ত্বকের রঙ গাঢ় করার জন্য দায়ী মেলানিনের উৎপাদন কমাতে পারে লেবুর রস। এই মাস্ক তৈরির জন্য ১ টেবিলচামচ দুধ, ১ টেবিল চামচ লেবুর রস এবং ১ টেবিল চামচ মধু প্রয়োজন। একটি পাত্রে সবগুলো উপাদান নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। মুখ পরিষ্কার করার পরে মাস্কটি মুখে লাগান। ২০ মিনিট রাখার পর উষ্ণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। একদিন পর পর রাতে ঘুমানোর আগে এই মাস্কটি মুখে লাগান। যেকোন ধরনের ত্বকের জন্যই এটি উপকারী।

যদি আপনার ত্বকে এই মাস্ক লাগানোর পরে জ্বালাপোড়ার অনুভূতি হয় তাহলে দ্রুত মুখ ধুয়ে নিন এবং বরফ লাগান।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 29 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)