ওয়ালটন প্রিমো ইএফ৬ স্মার্টফোনের উন্নত সংস্করণ বাজারে

মোবাইল ফোন রিভিউ 3rd Jul 17 at 7:03pm 495
Googleplus Pint
ওয়ালটন প্রিমো ইএফ৬ স্মার্টফোনের উন্নত সংস্করণ বাজারে

‘প্রিমো ইএফ৬’ মডেলের উন্নত সংস্করণ ‘ইএফ৬প্লাস’ বাজারে ছেড়েছে ওয়ালটন। সুদৃশ্য ডিজাইনের নতুন এই ফোনে বাড়ানো হয়েছে র‌্যাম। ফলে বেড়েছে এর গতি ও কার্যক্ষমতা। একই সঙ্গে থাকছে ৫ ইঞ্চির উজ্জ্বল পর্দা। যা উন্নতমানের ছবি বা ভিডিও ধারণ, গেম খেলা বা মুভি দেখাসহ প্রয়োজনীয় কাজে দেবে আনন্দময় অভিজ্ঞতা।

দেশের সকল ওয়ালটন প্লাজা ও ব্র্যান্ডেট আউটলেটে পাওয়া যাচ্ছে নতুন এই ফোন। যার মূল্য ধরা হয়েছে মাত্র ৪ হাজার ৯৯০ টাকা। আকর্ষণীয় ফোনটি পাওয়া যাচ্ছে কালো, কফি ও সোনালি-এই তিন রঙে। এতে থাকছে ১ বছরের বিক্রয়োত্তর সেবা।

ওয়ালটনের সেল্যুলার ফোন গবেষণা ও উন্নয়ন বিভাগের ডেপুটি ডিরেক্টর আরিফুল হক রায়হান বলেন, ‘সাশ্রয়ী মূল্যের নতুন এই ফোনের র‌্যাম বাড়িয়ে ১ গিগাবাইট করা হয়েছে। ফলে ফোনটির পারফরম্যান্স আগের চেয়ে অনেক বেড়েছে। সঙ্গে থাকছে অন্যান্য প্রয়োজনীয় সব ফিচার। যা প্রাথমিক ব্যবহারকারীদের জন্য আদর্শ। ৫ ইঞ্চির বড় পর্দা থাকায় ভিডিও দেখা, গেম খেলা বা ইন্টারনেট ব্যবহার হবে মধুর। দামটাও সাধ্যের মধ্যে থাকায় এই ফোন পূরণ করবে সবার স্মার্টফোনের চাহিদা।’

তিনি জানান, ‘প্রিমো ইএফ৬প্লাস’ মডেলের স্মার্টফোনে ব্যবহৃত হয়েছে ১.২ গিগাহার্জ গতির কোয়াড কোর প্রসেসর। রয়েছে ৮ গিগাবাইট স্টোরেজ, যা ৩২ গিগাবাইট পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। গ্রাফিক্স হিসেবে আছে মালি-৪০০। ফলে প্রয়োজনীয় গেম খেলা যাবে অনায়াসেই।

জীবনের রঙিন ও স্মরণীয় মুহূর্তগুলো ফ্রেমবন্দি করতে এই ফোনের পেছনে আছে বিএসআই সেন্সরযুক্ত ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এলইডি ফ্ল্যাশ থাকায় অন্ধকারেও ভালো ছবি তোলা যাবে। ধারণ করা যাবে এইচডি ভিডিও। সেলফি ও ভিডিও কলের জন্য সামনে থাকছে ২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। ক্যামেরার বিশেষ ফিচারের মধ্যে আছে টাইম ল্যাপস, ডিজিটাল জুম, সেলফ টাইমার, ম্যানুয়াল এক্সপোজার, মিরর রিফ্লেক্সশন, কালার ইফেক্ট, হোয়াইট ব্যালান্স, আইএসও ব্যালান্স, কনট্রাস্ট, ব্রাইটনেস, ফেস বিউটি, প্যানোরমা, স্লো মোশন, সিন মোড ইত্যাদি।

অ্যান্ড্রয়েড মার্সম্যালো ৬.০ পরিচালিত ফোনটি থ্রিজি সমর্থন করে। এতে থাকছে একই সঙ্গে দুটি সিম কার্ড ব্যবহারের সুবিধা। কানেক্টিভিটি হিসেবে আছে ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ-৪, মাইক্রো ইউএসবি২, ল্যান হটস্পট, ওটিএ ইত্যাদি। মাল্টিমিডিয়া ফিচার হিসেবে আছে এইচডি ভিডিও প্লেব্যাক ও রেকর্ডিংসহ এফএম রেডিও। এ জিপিএস সাপোর্টেড ফোনে মোশন সেন্সর হিসেবে আছে অ্যাক্সেলেরোমিটার (থ্রিডি)।

এই স্মার্টফোনে ব্যবহৃত হয়েছে ২ হাজার ৩০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি। ফলে মিলবে কাঙ্ক্ষিত ব্যাটারি ব্যাকআপ।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 14 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)