JanaBD.ComLoginSign Up


‘যে ব্যক্তি ঈমানের সঙ্গে রমজান মাসে রোজা রাখবে তার পূর্বের সব গুনাহ মাফ করে দেয়া হবে’

ইসলামিক শিক্ষা 13th Jun 17 at 10:46pm 565
Googleplus Pint
‘যে ব্যক্তি ঈমানের সঙ্গে রমজান মাসে রোজা রাখবে তার পূর্বের সব গুনাহ মাফ করে দেয়া হবে’

তাওহিদ ও রিসালাতকে বিশ্বাস করা এবং দ্বীনের সব জরুরি বিষয়ের ওপর ঈমান আনার পর যেভাবে প্রত্যেক মুসলমানের ওপর পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ ফরজ, ঠিক তেমনিভাব রমজান মাসের রোজাও প্রত্যেক বিবেকসম্পন্ন ও প্রাপ্ত বয়স্ক (নর-নারী) মুসলমানের ওপর ফরজ।ইসলামে রোজার গুরুত্ব কতখানি তা বলে শেষ করা যাবে না। আল্লাহকে পাওয়ার বড় মাধ্যম এই রমজান মাসের রোজা। রোজা রাখার মাধ্যমে আল্লাহর দিদার (সাক্ষাত) লাভ সম্ভব।

জা মানুষের ইচ্ছাকে শক্তিশালী করে। যারা একমাস ধরে দিনের বেলায় সব ধরনের খাদ্য-দ্রব্য ও ইন্দ্রিয় তৃপ্তি থেকে দূরে থাকে, তারা অন্যের ধন-সম্পত্তির ব্যাপারে নিজের লোভ-লালসাকে দমন করতে সক্ষমতা লাভ করে। রোজা মানুষকে উদার হতে শেখায়। যারা একমাস ধরে ক্ষুধার যন্ত্রণা উপলব্ধি করে তারা ক্ষুধার্তদের কষ্ট বুঝতে পারে এবং তাদের সম্পর্কে চিন্তা-ভাবনা করে ও সহানুভূতিশীল হয়। রোজা গুনাহ বা পাপ বর্জনের পরিবেশ সৃষ্টি করে। বেশিরভাগ পাপ পেটপূজা ও ইন্দ্রিয় পরায়ণতা থেকেই জন্ম নেয়। রোজা এই দুই প্রবৃত্তিকে দমনে রেখে সমাজে দুর্নীতি ও পাপ হ্রাস করে এবং খোদাভীরুতা বা পরহেজগারিতা বাড়ায়।

সূরা বাকারাহ’র ১৮৩তম আয়াতে আল্লাহ রাব্বুল আলামিন বলেছেন-

يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آَمَنُوا كُتِبَ عَلَيْكُمُ الصِّيَامُ كَمَا كُتِبَ عَلَى الَّذِينَ مِنْ قَبْلِكُمْ لَعَلَّكُمْ تَتَّقُونَ

‘হে ঈমানদারগণ! তোমাদের ওপর রোজা ফরয করা হয়েছে, যেরূপ ফরজ করা হয়েছিল তোমাদের পূর্ববর্তী লোকদের ওপর, যেন তোমরা পরহেজগারি অর্জন করতে পার।’ (২: ১৮৩)

সূরা বাকারার ১৮৫ নম্বর আয়াতে মহান আল্লাহ তায়ালা আরও বলেন, ‘তোমাদের মধ্যে যে ব্যক্তি এই মাসকে পায় সে যেন রোজা রাখে’।

পবিত্র রমজানের ফজিলত ও মর্যাদা সম্পর্কে কয়েকটি সহি হাদিস তুলে ধরা হলো ঃ-

হযরত আবু হুরায়রা (রা.) বলেছেন, রাসুল (সা.) ঘোষণা করেন, যখন রমজান মাস আসে আসমানের দরজাগুলো খুলে দেয়া হয় এবং দোজখের দরজাগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়, আর শয়তানকে শৃঙ্খলিত করা হয়। (বুখারী, মুসলিম)

অপর হাদিসে এসেছে, হযরত সাহ্ল ইবনে সা’দ (রা.) থেকে বর্ণিত, নবী কারিম (সা.) ঘোষণা করেন, বেহেশতের ৮টি দরজা রয়েছে। এরমধ্যে ১টি দরজার নাম রাইয়ান। রোজাদার ব্যতিত আর কেউ ওই দরজা দিয়ে প্রবেশ করতে পারবে না। (বুখারী, মুসলিম)

হযরত আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত আরেকটি হাদিস, হুজুর (সা.) বলেছেন, যে ব্যক্তি ঈমানের সঙ্গে ও সওয়াবের নিয়তে রমজান মাসের রোজা রাখবে তার পূর্বের সব গুনাহ মাফ করে দেয়া হবে। (বুখারী, মুসলিম)

হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আমর (রা.) থেকে বর্ণিত হয়েছে, তিনি বলেছেন রাসুলে পাক (সা.) বলেছেন, রোজা এবং কোরআন (কেয়ামতের দিন) আল্লাহর কাছে বান্দার জন্য সুপারিশ করবে। রোজা বলবে, হে আল্লাহ আমি তাকে (রমজানের) দিনে পানাহার ও প্রবৃত্তি থেকে বাধা দিয়েছি। সুতরাং তার ব্যাপারে আমার সুপারিশ কবুল করুন। কোরআন বলবে, আমি তাকে রাতের বেলায় ঘুম হতে বাধা দিয়েছি। সুতরাং আমার সুপারিশ তার ব্যাপারে কবুল করুন। অতএব, উভয়ের সুপারিশই কবুল করা হবে (এবং তাকে জান্নাতে প্রবেশ করানো হবে)। (বায়হাকী)

বুখারী শরিফের আরেকটি হাদিসে বলা হয়েছে, নবী করীম (সা.) বলেছেন, কেউ যদি (রোজা রেখেও) মিথ্যা কথা বলা ও খারাপ কাজ পরিত্যাগ না করে তবে তার শুধু পানাহার ত্যাগ করা (অর্থাৎ উপবাস ও তৃষ্ণার্ত থাকা) আল্লাহর কোনো দরকার নেই।

হযরত সালমান ফারসী (রা.) হতে বর্ণিত, তিনি বলেছেন একবার রাসুল (সা.) আমাদের শাবান মাসের শেষ তারিখে ভাষণ দান করলেন এবং বললেন, হে মানবজাতি! তোমাদের প্রতি ছায়া বিস্তার করেছে এক মহান মাস, মোবারক মাস। এটি এমন মাস যাতে একটি রাত রয়েছে যা হাজার মাস অপেক্ষা শ্রেষ্ঠ। আল্লাহ তায়ালা এই মাসের রোজাগুলোকে করেছেন (তোমাদের ওপর) ফরজ আর রাতে নামাজপড়াকে তোমাদের জন্য করেছেন নফল।

এই মাসে যে ব্যক্তি আল্লাহর নৈকট্য লাভের উদ্দেশে ১টি নফল আমল করল সে ওই ব্যক্তির সমান হলো, যে অন্য মাসে ১টি ফরজ আদায় করলো। আর যে ব্যক্তি এইমাসে ১টি ফরজ আদায় করলো সে ওই ব্যক্তির সমান হলো, যে অন্যমাসে ৭০টি ফরজ আদায় করলো। এটা ধৈর্য্যের মাস।

আর ধৈর্য্যের সওয়াব হলো বেহেশত। এটা সহানুভূতি প্রদর্শনের মাস। এটা সেই মাস যে মাসে মুমিন বান্দার রিজিক বাড়িয়ে দেয়া হয়। এ মাসে যে ব্যক্তি কোনো রোজাদারকে ইফতার করাবে তা তার জন্য গুনাহ মাফের এবং দোযখের আগুন থেকে মুক্তির কারণ হবে। এছাড়া তার ছওয়াব হবে রোজাদার ব্যক্তির সমান। অথচ রোজাদার ব্যক্তির সওয়াব কমবে না।

হযরত আবু ওবায়দা (রা.) রমজানের গুরুত্ব সম্পর্কে আরেকটি হাদিস বর্ণনা করেছেন। তিনি বলেন, হুজুর (সা.) ঘোষণা করেন, রোজা মানুষের জন্য ঢালস্বরুপ। (ইবনেমাজাহ, নাসাঈ)

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 30 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি
কোরবানি না করে সেই অর্থ গরিবদের মধ্যে বণ্টন করা যাবে? কোরবানি না করে সেই অর্থ গরিবদের মধ্যে বণ্টন করা যাবে?
4 hours ago 68
হজ করে নিজেকে আলহাজ বলা কি জায়েজ? হজ করে নিজেকে আলহাজ বলা কি জায়েজ?
16 Aug 2018 at 6:03pm 340
ঈদের নামাজ শেষে কোলাকুলি করা কি বেদাত? ঈদের নামাজ শেষে কোলাকুলি করা কি বেদাত?
14 Aug 2018 at 5:12pm 486
মৃত ব্যক্তির নামে কোরবানি, ইসলাম কি বলে? মৃত ব্যক্তির নামে কোরবানি, ইসলাম কি বলে?
12 Aug 2018 at 10:58am 614
শুধু জুমার নামাজ আদায়কারীকে বেনামাজি বলা যাবে কি? শুধু জুমার নামাজ আদায়কারীকে বেনামাজি বলা যাবে কি?
08 Aug 2018 at 10:47am 673
ভাগে কোরবানি দেওয়া কতটুকু জায়েজ? ভাগে কোরবানি দেওয়া কতটুকু জায়েজ?
06 Aug 2018 at 9:52am 733
ঈদের দিন তাহিয়্যাতুল মসজিদ আদায় করতে হবে? ঈদের দিন তাহিয়্যাতুল মসজিদ আদায় করতে হবে?
22 Jul 2018 at 11:39am 532
সুন্নতে খাতনায় অনুষ্ঠান করা যাবে? সুন্নতে খাতনায় অনুষ্ঠান করা যাবে?
21 Jul 2018 at 2:38pm 515

পাঠকের মন্তব্য (0)

Recent Posts আরও দেখুন
৯৮০ টাকায় শক্তিশালী ব্যাটারির ওয়ালটন ফোন৯৮০ টাকায় শক্তিশালী ব্যাটারির ওয়ালটন ফোন
7 minutes ago 11
ঈদে কী কোরবানি দিচ্ছেন অপু বিশ্বাস?ঈদে কী কোরবানি দিচ্ছেন অপু বিশ্বাস?
24 minutes ago 75
নেইমারকে পেতে ২৯০০ কোটি টাকা গুনতে প্রস্তুত রিয়াল!নেইমারকে পেতে ২৯০০ কোটি টাকা গুনতে প্রস্তুত রিয়াল!
38 minutes ago 63
তান্ডব চালিয়ে সিপিএলে প্রথম সেঞ্চুরী পোলার্ডেরতান্ডব চালিয়ে সিপিএলে প্রথম সেঞ্চুরী পোলার্ডের
3 hours ago 304
দেবের কাছে যে অদ্ভুত আবদার করলেন নায়িকারা!দেবের কাছে যে অদ্ভুত আবদার করলেন নায়িকারা!
4 hours ago 295
কোরবানি না করে সেই অর্থ গরিবদের মধ্যে বণ্টন করা যাবে?কোরবানি না করে সেই অর্থ গরিবদের মধ্যে বণ্টন করা যাবে?
4 hours ago 68
ব্রেইন টিউমারের যে ৮ গোপন লক্ষণ আপনি জানতেন নাব্রেইন টিউমারের যে ৮ গোপন লক্ষণ আপনি জানতেন না
4 hours ago 84
কোন পাখি উড়তে পারে না?কোন পাখি উড়তে পারে না?
5 hours ago 96
আয়ারল্যান্ডে টি-টুয়েন্টি সিরিজ জিতল বাংলাদেশআয়ারল্যান্ডে টি-টুয়েন্টি সিরিজ জিতল বাংলাদেশ
6 hours ago 342
বিশ্বকাপ স্কোয়াডের ৯ তারকাকে ছাড়া ব্রাজিল দল ঘোষনাবিশ্বকাপ স্কোয়াডের ৯ তারকাকে ছাড়া ব্রাজিল দল ঘোষনা
6 hours ago 309