কী খুঁজে পেয়েছে নাসা?

বিজ্ঞান জগৎ 13th Jun 17 at 6:37pm 865
Googleplus Pint
কী খুঁজে পেয়েছে নাসা?

আমাদের সৌরজগতের বাইরের গ্রহগুলোর অনুসন্ধান কার্যক্রমে সর্বশেষ কি পাওয়া গেছে, তা খুব শিগগির আনুষ্ঠানিকভাবে জানাবে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা। এজন্য আগামী সপ্তাহে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে, যেখানে সৌরজগতের বাইরের জীবন সম্পর্কিত চমকপ্রদ তথ্য প্রকাশিত হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

কেপলার মিশনের এই নতুন ফলাফলগুলোকে এ যাবতকালের ‘দূরবর্তী বিশ্বের সবচেয়ে স্বয়ংসম্পূর্ণ এবং নির্ভরযোগ্য’ হিসেবে অভিহীত করেছে নাসা।

সৌরজগতের বাইরে বাসযোগ্য গ্রহ অনুসন্ধানের কাজে নিয়োজিত নাসার টেলিস্কোপ কেপলার। ২০০৯ সালে নাসা কেপলার টেলিস্কোপটি পাঠানোর পর থেকে এটি ব্যস্ত সময় পার করছে। ছায়াপথগুলোর মধ্যে কোথাও কোনো গ্রহে প্রাণের সম্ভাবনা থাকতে পারে কি না, সেই দুরূহ সন্ধানের কাজটিই করে এটি। ২০১৩ সালের মধ্যেই কেপলার তার প্রাথমিক লক্ষ্যপূরণ করে ফেলে। আবিষ্কার করে ফেলে সৌরজগতের বাইরে প্রায় পাঁচ হাজার সম্ভাব্য গ্রহ। এর মধ্যে ২ হাজার ৩৩৫টি গ্রহের অস্তিত্বের ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

২০১৪ সালে শুরু হওয়া কেপলারের দ্বিতীয় মিশনে সৌরজগতের বাইরে এখন পর্যন্ত আরো ৫২০টি সম্ভাব্য গ্রহ আবিষ্কার করা হয়, যার মধ্যে ১৪৮টি গ্রহ নিশ্চিত হওয়া গেছে।

সৌরজগতের বাইরে পৃথিবীর মতো আকৃতির ও বাসযোগ্য গ্রহ হিসেবে এখন পর্যন্ত ২১টি গ্রহ আবিষ্কার করেছে কেপলার।

তাই এবার ধারণা করা হচ্ছে, কেপলারের নতুন আবিষ্কারের তালিকায় সম্ভবত বাসযোগ্য গ্রহ হিসেবে সেরা কিছু থাকবে। নাসার আমেস রিসার্চ সেন্টারে ১৯ জুন সোমবার সকাল ১১টায় (ইডিটি) এ ব্যাপারে ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হবে। একই সঙ্গে নাসার ওয়েবসাইটেও সরাসরি অনুষ্ঠানটি লাইভ দেখানো হবে।

নাসার মতে, কেপলারের নতুন আবিষ্কার এ যাবতকালের সবচেয়ে উন্নত বিশ্লেষণের ফলাফল এবং সৌরজগতের বাইরের গ্রহ গবেষণায় নতুন কিছু উত্থাপিত হবে।

নাসার সায়েন্স মিশন পরিচালনা এর অ্যাস্ট্রোফিজিক্স বিভাগের বিজ্ঞানীদের পাশাপাশি সার্চ ফর এক্সট্রাটেরেস্ট্রিয়াল ইনস্টিটিউট, মানোয়ার হাওয়াই ইউনিভার্সিটি এবং ক্যালটেক এর বিজ্ঞানীরা সৌরজগতের বাইরে তাদের সর্বশেষ আবিষ্কারের ব্যাপারে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখবেন।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 45 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)