ঠোঁট হোক কোমল মসৃণ

রূপচর্চা/বিউটি-টিপস 12th Jun 17 at 2:14pm 268
Googleplus Pint
ঠোঁট হোক কোমল মসৃণ

কমলার কোয়ার মতো ঠোঁট কে না চায়। এমন ঠোঁট পেতে হলে দেহের অন্য সকল অঙ্গের যত্নের সাথে ঠোঁটেরও আলাদা যত্ন নেয়া। অনেকে মনে করেন শুধু শীতকালেই ঠোঁটের যত্ন নিতে হয়। গরমকালে ঠোঁটের যত্ন নেওয়ার কোনো প্রয়োজন নেই। কিন্তু এ ধারণাটি ভুল। গরমেও ঠোঁটের যত্নের প্রয়োজন রয়েছে।

গরমে সূর্যের ক্ষতিকর অতি বেগুনি রশ্মি আমাদের ঠোঁটের কোমলতা কেড়ে নেওয় আর ঠোঁটের রঙ কালো করে ফেলে। গরমে পানির অভাবে ঠোঁটের আর্দ্রতাও কমে যায়। তাছাড়া গরম কালে আমাদের সবাইকেই কম বেশি এয়ার কন্ডিশনারে থাকতে হয়, এতেও ঠোঁটের ত্বকের ক্ষতি হয়। গরমকালে তাই ঠোঁটের যত্নে আমাদের কী কী করা উচিত, চলুন জেনে নেয়া যাক ঘরোয়া টোটকা।

মৃত কোষ ঝরে যাক
মৃত কোষ ঝরিয়ে ফেলার জন্য শুধু ত্বকেরই নয়, ঠোঁটেরও এক্সফোলিয়েশন প্রয়োজন। অলিভ অয়েল আর চিনি দিয়ে ঠোঁটের জন্য স্ক্রাব বানিয়ে নিতে পারেন। কিংবা নরম ব্রাশ দিয়ে আলতো করে ঘষে নিতে হবে ঠোঁটজোড়া। তারপর লিপ বাম লাগিয়ে নিতে পারেন।

মসৃণ ঠোঁট
ঠোঁট মসৃণ রাখা খুব জরুরি! আধকাপ গোলাপের পাপড়ি মিশিয়ে নিন দুধে। এই মিশ্রণটা ঠোঁটে নিয়মিত লাগালে গোলাপের পাপড়ির মতোই হয়ে উঠবে ঠোঁট। এক চামচ মাখনের সঙ্গে হলুদ মিশিয়ে লাগালেও ফল পাওয়া যাবে। আর নারকেল তেল-আমন্ড অয়েলের তো কথাই নেই! সমান পরিমাণে মিশিয়ে ঠোঁটে লাগাতে হবে।

কালো হচ্ছে ঠোঁট?
সুর্যের তাপে ঠোঁট কালো হয়ে যাচ্ছে? তারও উপায় রয়েছে। দইয়ের সঙ্গে কেশর মিশিয়ে নিন। দিনে দু’তিনবার এই মিশ্রণটা ঠোঁটে লাগান। স্বাভাবিক রং ফিরে আসবে। আমন্ড, মাখন আর দুধের মিশ্রণও লাগাতে পারেন। ঠোঁটে যদি কালো ছোপ পড়ে গিয়ে থাকে, বিটের রস লাগালে উপকার পাবেন।

লিপ কেয়ার
কী ধরনের লিপ কেয়ার প্রডাক্ট ব্যবহার করছেন, সেটাও দেখা দরকার। লিপ বামে এসপিএফ থাকাটা গরমকালে আবশ্যিক। যে লিপ প্রডাক্টে পেট্রোলিয়াম জেলি অথবা বি’জ ওয়্যাক্স রয়েছে, সেগুলো এই মরসুমের পক্ষে ভাল। লিপগ্লসের বদলে গরমকালে বেছে নিতে পারেন ম্যাট লিপকালার।

সবার আগে খাবার
শরীর সুস্থ না রাখতে পারলে চেহারাতে তার প্রভাব পড়বেই। ঠোঁটও বাদ পড়বে না। তাই মওসুমি ফল, শাকসব্জি খেতে হবে প্রচুর পরিমাণে। রান্না করে খাওয়ার বদলে বরং স্যালাড বানিয়ে ফেতে পারেন সবজি। লো-ফ্যাট ড্রেসিং দিয়ে লাগবেও খাসা! আর পানি খেতে হবে প্রচুর। ডিহাইড্রেশনে ভুগলে কিন্তু কোনও টিপ্সই কাজে আসবে না।

ধুমপান নয়
ধূমপান করলেও ঠোঁট কালো হয়ে যায়। ফলে আগে থেকে সাবধান হওয়া ভাল।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 19 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)