রমজানে পর্যাপ্ত পানি পান করছেন তো?

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস 8th Jun 17 at 11:03am 227
Googleplus Pint
রমজানে পর্যাপ্ত পানি পান করছেন তো?

সারাদিন রোজা রেখে ক্লান্ত শরীর। ইফতারের পর একটু বিশ্রাম নিয়েই তারাবির ব্যস্ততা। তারাবির পর তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়া। আর তার পর সেহরিতে ভরপেট খাওয়া। সব কিছুর মাঝে পর্যাপ্ত পানি খাওয়ার কথা মনে থাকে না অনেকরই। ফলে সৃষ্টি হয় নানা রকম শারীরিক জটিলতা। পর্যাপ্ত পানি পান করছেন কিনা কীভাবে বুঝবেন? জেনে নিন শরীরে পর্যাপ্ত পানির অভাব হওয়ার লক্ষণগুলো সম্পর্কে।

মুখ ও ঠোটের শুষ্কতা
রোজা রাখলে মুখের শুষ্কতা স্বাভাবিক। সারাদিন পানি খাওয়া হয় না বলে মুখের ভেতরটা শুকিয়ে থাকে। তবে অতিরিক্ত শুষ্কতা কিংবা ঠোটের চামড়া ফেটে যাওয়ার সমস্যা দেখা গেলে বুঝতে হবে যে পর্যাপ্ত পানি পান করা হচ্ছে না।

কোষ্ঠকাঠিন্য
রমজানে যদি কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা দেখা দেয় তাহলে বুঝতে হবে যে শরীর পর্যাপ্ত পানি পাচ্ছে না। এক্ষেত্রে প্রচুর পানি পান করতে হবে এবং নিয়মিত ইসবগুলের ভুষির শরবত খেতে হবে।

ত্বকের শুষ্কতা
রমজানে কি ত্বক নিষ্প্রাণ দেখাচ্ছে? যদি ত্বক শুষ্ক ও নিষ্প্রাণ দেখায় তাহলে আপনি পর্যাপ্ত পানি পান করছেন না। ইফতারের পর থেকে সেহরি পর্যন্ত প্রচুর পানি পান করুন। সেই সাথে ত্বকে ভালো মানের ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। এতে ত্বকের আর্দ্রতা ফিরে আসবে।

চোখ জ্বালা ও শুষ্কতা
শরীরে পানির চাহিদা পূরণ না হলে চোখ জ্বালা-পোড়া করে। সেই সাথে চোখে শুষ্কতা অনুভব হয়। বিশেষ করে অনেকক্ষণ কম্পিউটারের দিকে তাকিয়ে রাখলে কিংবা কড়া রোদে চলাফেরার সময় খুব অস্বস্তি লাগে চোখে। এধরনের সমস্যা হলে পানি খাওয়ার পরিমাণ বাড়িয়ে দিন।

ক্লান্তি
পর্যাপ্ত পানির অভাবে শরীর ক্লান্ত হয়ে যায়। ক্লান্তিতে কাজে মনোযোগের অভাবের পাশাপাশি ঝিমুনিও পায়। শরীরে পানি সরবরাহ ঠিক থাকলে এধরনের সমস্যা হয়না। তাই রোজা রেখে অতিরিক্ত ক্লান্তি বা ঝিমুনি পেলে বুঝে নিন শরীরে পানির অভাব হয়েছে।

হজম সমস্যা
যা কিছুই খাচ্ছেন কিছুই হজম হচ্ছে না। তেলে ভাজা খাবার না খেলেও ভুগছেন গ্যাস্ট্রিকে। পর্যাপ্ত পানি পান করছেন তো? যদি না করে থাকেন তাহলে আজ থেকেই ইফতারের পর থেকে সেহরি পর্যন্ত পর্যাপ্ত পানি পান করুন। ব্রাইট সাইড।

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 29 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)