এসে গেলো ব্লুটুথের নতুন ভার্সন

বিবিধ টেক 31st May 17 at 6:11pm 1,522
Googleplus Pint
এসে গেলো ব্লুটুথের নতুন ভার্সন

এখন পর্যন্ত ব্লুটুথই হচ্ছে, সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং বহুল ব্যবহৃত ডাটা ট্রান্সফার প্রযুক্তি। তাছাড়া আমাদের মোবাইল ফোনের সঙ্গে অন্য কোনো ডিভাইস যুক্ত করতেও আমরা ব্লুটুথের ওপর নির্ভরশীল। সম্প্রতি ব্লুটুথ তার ভার্সন ৫ বের করেছে। যেটা স্যামসাং তার গ্যালাক্সি ৮ এ ব্যবহার করেছে।

এর আগে ব্লুটুথের ভার্সন ছিলো ৪-৪.২। ব্লুটুথের আপডেট ভার্সনগুলো অনেক নতুন নতুন ফিচার নিয়ে আসে।

নতুন এই ভার্সনের ব্লুটুথ রেঞ্জ অনেক বাড়াচ্ছে। অর্থাৎ আগে ব্লুটুথের সঙ্গে যুক্ত ডিভাইসটি আপনি যতটা দূরে রেখে ব্যবহার করতে পারতেন, এখন তার চেয়েও দূর রেখে ব্যবহার করতে পারবেন।

তাছাড়া ডাটা লেনদেনও আগের চেয়ে দ্রুত সময়ে হবে।

একটা সময় ছিল, যখন মানুষ ডাটা লেনদেনের জন্য ইনফ্রারেডের ওপর নির্ভর করতো। সেটা ছিল আরো বিরক্তিকর প্রযুক্তি। একটি ডিভাইসের ইনফ্রারেডের সঙ্গে আরেকটির ইনফ্রারেডের সঙ্গে যুক্ত করতে হতো। আবার তা কোনোভাবে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেলে ডাটা ট্রান্সফারও বিচ্ছিন্ন হয়ে যেত।

এরপরই মূলত ব্লুটুথ প্রযুক্তির আবির্ভাব। যেটা মানুষকে অনেক ঝামেলা থেকে মুক্তি দিয়েছিল।

মানুষ দূর থেকেই ছবি কিংবা গান শেয়ার করতে পারতো। এরপর ধীরে ধীরে তারহীন প্রযুক্তির উন্নয়নে ব্লুটুথ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি ৮ এর ব্লুটুথ ২৬০ ফুট দূরের স্পিকারও বাজাতে সক্ষম। অথচ আগের ভার্সনে মাত্র ৬৬ ফুট দূর থেকে কাজ করা যেত।

তবে এখনই সকল ব্লুটুথ ডিভাইস ব্লুটুথ-৫ সাপোর্ট করছে না। বেশকিছু ব্লুটুথ ডিভাইস ভার্সন ৫ সাপোর্ট করবে ২০১৮ থেকে।

তখন আপনি আপনার ফোন তিন তলায় রেখে ব্লুটুথ হেডসেটের সাহায্যে নিচে বসেই কথা বলতে পারবেন।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 73 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (2)