আপনার সঙ্গী বা সঙ্গিনী হিংসুটে, বুঝে নিন ৬ লক্ষণে

লাইফ স্টাইল 30th May 17 at 1:48pm 661
Googleplus Pint
আপনার সঙ্গী বা সঙ্গিনী হিংসুটে, বুঝে নিন ৬ লক্ষণে

বিয়ের পর দম্পতিদের উচিত হিংসাত্মক কার্যকলাপ থেকে নিজেকে সামলে নেওয়া। কিন্তু অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেখা যায়, আপনার সঙ্গী বা সঙ্গিনীটি দারুণ হিংসা মনে পুষে রাখেন। তিনি আপনাকে ছাড়া আর সবকিছুকেই যেন তার ঈর্ষার তালিকায় ঠাঁই দিয়েছেন। এখানে দেখে নিন এমন সঙ্গী-সঙ্গিনীর কিছু সাধারণ লক্ষণ। তাদের এসব কাজে বোঝা যায় যে, সঙ্গী বা সঙ্গিনী আপনার ওপর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করতে চাইছেন এবং তিনি বেশ হিংসুটে।

১. যখন আপনি একা বাইরে যান, তখন সঙ্গী-সঙ্গিনী আপনাক ক্রমাগত ফোন দিতে থাকেন। অর্থাৎ, আপনি কখন কোথায় যাচ্ছেন তা বুঝতে চাইছেন তিনি। এটা নিয়ন্ত্রণমূলক আচরণ তো বটেই।

২. আপনার বিপরীত লিঙ্গের বন্ধু বা সহকর্মী থাকলে সে বিষয়টি কোনভাবেই মেনে নেবেন না তিনি। তাদের সঙ্গে আড্ডা দেওয়া বা কোথাও যাওয়ার কথা শুনলেই তার মন হিংসায় ভরে উঠবে। মাঝে মাঝেই আপনি বিপরীত লিঙ্গের বন্ধু ও সহকর্মীদের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের শিকার হবে।

৩. আপনি ছেলে হলে কোনো নারী সেলিব্রিটিদের নিয়ে প্রশংসামূলক কিছু বললে আপনার সঙ্গিনী মোটেও তা মেনে নিতে চাইবে না।

৪. আপনাকে তিনি বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে দিতে চাইবেন না। দূরে ভ্রমণের পরিকল্পনা হলে তিনি কোনভাবেই আপনাকে ছাড়বেন না।

৫. আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্বের মানুষের আশপাশে আপনাকে দেখতে চান না আপনার সঙ্গী-সঙ্গিনী। বিশেষ করে বিপরীত লিঙ্গের দিকে নজর দিলেই তিনি আপনাকে ধরে বসবেন। তাদের সঙ্গে কথা বলা বা চলফেরা মোটেও পছন্দ করেন না তিনি।

৬. আপনার বাড়ির লোকজন বেড়াতে এলেই তার মুখ কালো হয়ে যাবে। তিনি সহজে তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন মেনে নেবেন না।

সহজ কথায় বলা যায়, আপনার সঙ্গী-সঙ্গিকী হিংসুটে কিনা তা বোঝার এইগুলোই সবচেয়ে সাধারণ লক্ষণ। একটু দেখুন এবং মানিয়ে চলুন।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 30 - Rating 4 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)