জেনে নিন, রাশি মেনে আপনার বিয়ের আদর্শ বয়স কোনটা

লাইফ স্টাইল 26th May 17 at 5:45pm 464
Googleplus Pint
জেনে নিন, রাশি মেনে আপনার বিয়ের আদর্শ বয়স কোনটা

কবে বিয়ে হবে বা কবে মনের মানুষের দেখা মিলবে? এমন প্রশ্ন নিয়ে জ্যোতিষবিদের শ্মরণার্থী হন অনেকেই। ছেলে-মেয়ের বিয়ে হতে কিছুটা দেরি হলে আমাদের দেশে এখনও উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন অনেক বাবা-মাই। কিন্তু জানেন কি, আপনার কবে বিয়ে হবে তা নির্ধারিত রয়েছে আপনার জন্মতারিখেই?

জন্মমুহূর্তেই আপনার বিয়ের সময় নির্দিষ্ট হয়ে গিয়েছে। সেই নির্ধারিত সময় না মানলে বিবাহিত জীবন সুখ-শান্তিময় নাও হতে পারে। তাই জেনে নিন রাশি অনুযায়ী কোন বয়স বিয়ের জন্য আদর্শ।

মেষ: মেষ রাশির জাতক-জাতিকাদের ধৈর্য ক্ষমতা একটু কম থাকে। সব কাজই চটজলদি করায় বিশ্বাসী হন এরা। বিয়েও এরা তাড়াতাড়িই করে নিতে চান। মেষ রাশির জাতকরা ২৫-২৬ বছর বয়সের মধ্যেই বিয়ে করে নিলে ভালো।


বৃষ: বৃষ রাশির জাতক-জাতিকারা অত্যন্ত নির্ভরযোগ্য হন। বিশেষ করে প্রেমের ক্ষেত্রে এঁদের ওপর অনায়াসে ভরসা করা যায়। ভালোবাসার পাত্র-পাত্রীর হাত এঁরা সহজে ছাড়েন না। নিজের জীবনে প্রতিষ্ঠা পেয়ে তবেই বিয়ের কথা ভাবতে ভালোবাসেন এঁরা। বৃষ রাশির জাতকদের বিয়ের আদর্শ বয়স ৩০।

মিথুন: মিথুন রাশির জাতক-জাতিকারা বিয়ের ক্ষেত্রে একটু সাবধান। ২০-র কোঠায় প্রেমের ক্ষেত্রে এঁরা বড় ধাক্কা খেতে পারেন। তাড়াতাড়ি বিয়ে করলে সেই বিয়ে ভেঙে যাওয়ার আশঙ্কাও রয়েছে। তাই একটু ধীরেসুস্থে ৩০ বছর বয়সের পর বিয়ে করুন, সুখে থাকবেন।

কর্কট: অল্পবয়সের প্রেম কোনওরকম গণ্ডগোল ছাড়াই যদি বিয়ের বাঁধনে আটকা পড়ে, তাহলে ঠিক আছে। কিন্তু যদি ভালোবাসার সম্পর্কে কোনও রকম গোলমাল দেখা যায়, তাহলে একটু সাবধান থাকবেন। তাড়াতাড়ি বিয়ে করা আপনার পক্ষে ভালো নাও হতে পারে। আর যাঁরা পাত্র-পাত্রী খুঁজছেন, মনে রাখবেন, ৩০-এর আগে বিয়ে নৈব নৈব চ।

সিংহ: এই রাশির জাতক-জাতিকারা যথেষ্ট কুল প্রকৃতির হন। হুটপাট করে কোনও কাজ এঁদের ধাতে নেই। নিজেদের জীবনে প্রেম, বিয়ে - এ সব দেরিতে আসলেও এঁদের অসুবিধে নেই। নিজের জীবনকে উপভোগ করুন। ৪০-এর পর বিয়ের পিঁড়িতে বসুন।

কন্যা: এই রাশির জাতক-জাতিকারা নিজের জীবন সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা রাখেন। এঁরা কী চান এবং তা কী ভাবে পেতে হয় তা ভালোই জানেন। প্রেম-পরিণয়ের ক্ষেত্রেও স্পষ্ট ভাবে এঁরা সিদ্ধান্ত নেন। ২৫-২৬ এঁদের বিয়ের আদর্শ বয়স।

তুলা: তুলা রাশির জাতক-জাতিকারা বেশে সরল সাধাসিধে হন। বয়স ২০-র কোঠায় থাকতে থাকতেই বিয়ে সেরে নিন। ৩০-এর পর বিয়ে না করাই ভালো। তখন আর বিবাহিত জীবন সুখের হবে না বলেই আশঙ্কা।

বৃশ্চিক: বৃশ্চিক রাশির জাতক-জাতিকারা অত্যন্ত পজেসিভ প্রকৃতির হন। অনেক সময়ই এঁরা কিছু না ভেবে চটজলদি সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন। তবে বিয়ের ক্ষেত্রে এরকম না করাই ভালো। বয়স ৩০ বছর না হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। ভেবেচিন্তে সিদ্ধান্ত নিন। ভালো থাকবেন।

ধনু: নিজেদের জীবনে একটু স্পেস দরকার এঁদের। নিজেদের জন্য কিছুটা সময় ব্যয় করতে ভালোবাসেন ধনু রাশির জাতক-জাতিকারা। তাই তাড়াতাড়ি সংসার জীবনে এঁদের জড়িয়ে না পড়াই ভালো। বরং ৪০-এর পর বিয়ে করাই ভালো এঁদের পক্ষে।

মকর: মকর রাশির জাতক-জাতিকারা সব রকম পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে চলতে খুব ভালো পারেন। ২০, ৩০, ৪০ বা ৫০। যে কোনও বয়সেই বিয়ে করতে পারেন এঁরা। তাই মকরের জাতকরা যে সময়টা নিজের জন্য ভালো মনে হয়, তখনই বিয়ে করতে পারেন।

কুম্ভ: কুম্ভ রাশির জাতকরা স্বভাবগত ভাবে অনুসন্ধানী। সব কিছু খতিয়ে দেখতে এঁরা ভালোবাসেন। বিয়ে করা বা না করা কোনও কিছুতেই এঁদের বিশেষ কিছু এসে যায় না। নিজেদের জীবন নিজের সংজ্ঞাতেই বাঁচতে ভালোবাসেন এঁরা। তবু বলব ৩০ থেকে ৪০ বছর বয়সের মধ্যেই এঁদের বিয়ে করা ভালো।

মীন: মীন রাশির জাতক-জাতিকাদের জন্য বিয়ের আদর্শ বয়স ২৬ বছর। এই সময় বিয়ে করলে সারা জীবন সুখে-শান্তিতে কাটাতে পারবেন। -ইন্ডিয়া টাইমস

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 18 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)