বাহুবলি সুপার-ডুপার হিট হওয়ার কারণ

মজার সবকিছু 21st May 17 at 9:12am 1,010
Googleplus Pint
বাহুবলি সুপার-ডুপার হিট হওয়ার কারণ

▶আমাদের ১০৯ বছরের ঐতিহ্য ‘জব্বারের বলিখেলা’র খবর আজ বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে। তারা (দর্শক) হয়তো মনে করেছে—‘বাহুবলি’ সিনেমাটিও কোনো ‘বলি’ খেলা কেন্দ্রিক। বড়পর্দায় বলি খেলা দেখার সুযোগ মিস করতে চায়নি কেউ।

▶দুনিয়ার অর্ধেক মানুষ বলশালী হলেও বাকি অর্ধেক কিন্তু দুর্বলই রয়ে গেছে—যাদের বাহুতে কোনো বলই নেই! নিজেদের বাহুকে বলশালী করতে তারা এই মুভিটি দেখেছে। তাদের আশা ছিল—এখানে নায়ক কী খেয়ে ‘বাহুবলি’ হয়েছে সে কাহিনি দেখানো হবে। এমনকি খাবারের রেসিপিও দেখাতে পারে!

▶সিনেমার শেষ দৃশ্যে পুলিশ এসে ‘আইন নিজের হাতে তুলে নিবেন না’ কথাটি বলবে না, তাও কি হয়! কিন্তু এই এক ত্যানা প্যাঁচানো দৃশ্য যে পাবলিক আর দেখতে চায় না, সেটা বোধহয় ‘বাহুবলি’র পরিচালক মশাই বুঝতে পেরেছিলেন। আপনাদের জ্ঞাতার্থে জানিয়ে রাখি—‘বাহুবলি’ মুভিকে কোনো পুলিশের অস্তিত্ব নেই!

▶সিনেমার একেবারে শেষের দিকে খল নায়ক জলন্ত অগ্নিকুণ্ডে জ্বলতে জ্বলতেও নায়িকাকে আহ্বান করে—একসাথে মরার জন্য! খল-নায়কের এমন আহ্বান— এমন ট্রাজিক দৃশ্য আর কী হতে পারে! এই দুঃখেই পাবলিক বেশি বেশি করে সিনেমাটি দেখেছে।

▶‘বাহুবলি’ জ্বরে সবাই যখন পুড়ছে, তখন কি আর ‘ওয়াচিং বাহুবলি অ্যাট অমুক সিনেমাস’ স্ট্যাটাস না দিলে ফেসবুক ফ্যান-ফলোয়ারদের কাছে মান-ইজ্জত বজায় থাকে? তাছাড়া, যে সবার আগে ‘কাটাপ্পানে বাহুবলিকে কিউ মার দিয়া?’ এই প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবে, সে-ই তো হিট! সে কারণেই কে কার আগে সিনেমাটি দেখবে, তা নিয়ে কাড়াকাড়ি পড়েছে, ব্ল্যাকেও সিনেমার টিকেট কয়েকগুণ দরে বিকিকিনি হয়েছে!

▶বলিউডি সিনেমা পাড়া থেকে গোপনসূত্রে আমরা জানতে পেরেছি, ‘বাহুবলি’র এই সাফল্য নাকি একটা ষড়যন্ত্রের অংশ। দক্ষিণী পরিচালকরা চেয়েছিলেন, তাদের ছবি বলিউডের ছবিকে টপকে যাক। তাই দর্শকদের সঙ্গে নিয়ে তারা ষড়যন্ত্র করে বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে। এই ষড়যন্ত্র বলিউডি পরিচালকেরা কিছুতেই মেনে নিবেন না বলে মনোস্থির করেছেন!

▶বাঙালির মাছ ছাড়া ভাত আর ‘কুটনা বুড়ি’ ব্যতীত বাংলা সিনেমা দুটোই অষ্টম আশ্চর্যজনক কাজ। তেমনিভাবে, তামিল সিনেমার দর্শন হলো—‘জোকার ছাড়া ছবি হয় নাকি’! অথচ ‘বাহুবলি’তে কোনো জোকারের অস্তিত্ব তো নাই-ই, কুটনা বুড়িরও দেখা নেই। তবে হ্যাঁ, এক কুটনা বুড়ো রয়েছে। সে খলনায়কের থেকেও বেশি খল! এ দিকটাই দর্শককে বেশি আকর্ষণ করেছে। সে কারণেই...

▶হিন্দি সিরিয়ালের বদৌলতে এখন প্রতিদিনই ঘরে ঘরে ‘বউ-শাশুড়ির যুদ্ধ’ শীর্ষক নাটক মঞ্চায়িত হয়। সিরিয়াল দেখে দেখে কীভাবে এই যুদ্ধ টিকিয়ে রাখা যায়, জিতা যায় সেই কৌশল রপ্ত করে আপামর বউ-শাশুড়ি সমাজ। ‘বাহুবলি’র সবচেয়ে বড় বিজ্ঞাপন ‘বউ বড়, না স্ত্রী বড়?’ তো, সিরিয়াল খেকো এ গোষ্ঠী কেন বড় পর্দায় বউ-শাশুড়ির যুদ্ধ দেখা মিস করবেন?

▶আমরা সবাই তো এ কথাটা জানি যে, আজকের বউ-ই আগামী দিনের শাশুড়ি! তো আজকের বউটি আগামী দিনে কেমনতর শাশুড়ি হবেন? একমাত্র ‘বাহুবলি’ ছবিটি দেখলে কিঞ্চিত্ হলেও সে ধারণাটি অনুমান করা যাবে! তো, আপনি যদি ধারণা পেতে চান, তাহলে তো আপনাকে ‘বাহুবলি’ দেখতেই হবে!

▶সিনেমা হলে ‘বাহুবলি’ সিনেমাটি রিলিজ দেওয়ার পূর্বে প্রযোজক কর্তৃক সমস্ত সিনেমা হলে ‘ছারপোকা নিধন অভিযান’ চালানো হয়েছিল! ঘরে ছারপোকার জন্য না ঘুমাতে পারা পাবলিক নিনেমা হলে গিয়ে এসির ঠাণ্ডা বাতাসে হালকার উপরে গাঢ় ঘুম দিয়েছে। চামে কর্তৃপক্ষকেও ছবিটির বেশি বেশি শো চালাতে হয়েছে। আর বেশি তো মানেই তো বেশি টাকা!

▶বলিউডের ‘কিং খান’ শাহরুখ খান নাকি এ এখনো পর্যন্ত ‘বাহুবলি’ দেখেননি। কিন্তু তিনিও ‘বাহুবলি’ ‘দারুণ সিনেমা’ বলে সার্টিফিকেট দিয়ে দিয়েছেন। ‘হুজুগ’ জিনিসটাই মানুষের জন্মগত অর্জন। যারা, ‘বাহুবলি-১’ দেখেননি, তারাও হুজুগে ‘বাহুবলি-২’ দেখে ফেলেছেন। তো, এখন আপনারাই বলুন, এত এত মানুষ যদি হুজুগেই সিনেমাটি দেখে ফেলে, সিনেমা না দেখেও এর সম্পর্কে ভালো ভালো কমেন্টস করে তো সেটি ব্যবসাসফল হবে না তো কি আমাদের জলন্ত জলিল ভাইয়ের ছবি মারমার কাটকাট হবে!

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 32 - Rating 4 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)