বিদায় করুন ইঁদুর

টুকিটাকি টিপস 17th May 17 at 9:25am 221
Googleplus Pint
বিদায় করুন ইঁদুর

মেন্থল তেল, লবঙ্গ, লালমরিচ, পচাপেঁয়াজ কিংবা বেইকিং সোডা ব্যবহার করে ঘর রাখা যায় ইঁদুর মুক্ত।

গৃহস্থালীবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটের প্রতিবেদনে জানানো হয়, যতই পরিষ্কার রাখা হোক না কেনো ইঁদুর ঘরে ঢোকার একটা না একটা পথ বের করেই ফেলে। খাবার, জামা-কাপড় নষ্ট করার পাশাপাশি বিভিন্ন রোগের জীবাণুও বহন করে এই প্রাণী।

বাসায় শিশু ও পোষা প্রাণী থাকলে ইঁদুর ধরার ফাঁদ কিংবা বাজারে সহজলভ্য ইঁদুর মারার বিষ ব্যবহার করা উচিত নয়। তাই ইঁদুর দমনে বেছে নিতে পারেন প্রাকৃতিক উপাদান।

মেন্থল তেল: গন্ধের প্রতি অত্যন্ত সংবেদনশীল ইঁদুর। তাই মেন্থল তেল এই প্রাণীর জন্য অত্যন্ত অস্বস্তিকর। মেন্থল এসেন্সিয়াল তেলে তুলার বল ডুবিয়ে ঘরের বিভিন্ন স্থানে বলগুলো ফেলে রাখতে পারেন। কয়েকদিন পর তেলের গন্ধের তীব্রতা কমে গেলে তুলার বল পরিবর্তন করতে হবে।

লবঙ্গ: ঝালজাতীয় স্বাদের কারণে এই মসলা প্রাকৃতিক ইঁদুর নিরোধক হিসেবে বিবেচনা করা হয়। মসলাটি কাজে লাগাতে আস্ত লবঙ্গ কাপড়ে মুড়িয়ে ঘরের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে রাখতে পারেন। এছাড়াও লবঙ্গ এসেন্সিয়াল তেলে তুলার বল ডুবিয়েও ঘরে ছড়িয়ে রাখলে উপকার পাওয়া যাবে।

লালমরিচ: এই মসলারও গন্ধ কড়া। তাই শুধু ইঁদুর নয় পিঁপড়া তেলাপোকাসহ অন্যান্য পোকামাকড় দূর করতেও উপকারী।

যেসব স্থানে ইঁদুর চোখে পড়ে সেসব স্থানে বেশি পরিমাণে লালমরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে রাখতে পারেন। শিশু ও পোষা প্রাণীর নাগালের বাইরে রাখতে পুরানো কাপড়ে লালমরিচের গুঁড়া নিয়ে পোটলা বানিয়ে ঘরের বিভিন্ন স্থানে ফেলে রাখতে পারেন।

পচাপেঁয়াজ: ইঁদুর তাড়াতে পচাপেঁয়াজের দুর্গন্ধ বেশ কার্যকর। তবে পোষা প্রাণির জন্য এটি বিষাক্ত, তাই ঘরে পোষা প্রাণি থাকলে পচাপেঁয়াজ ব্যবহার করা যাবে না। সেক্ষেত্রে তাজা পেঁয়াজ কেটে ঘরের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে রাখতে পারেন। নিয়মিত পেঁয়াজ পরিবর্তন করে দিতে হবে।

বেইকিং সোডা: ইঁদুর ও অন্যান্য পোকামাকড় দূর করতে বেইকিং সোডা বেশ উপকারী। পাশাপাশি শিশু ও পোষা প্রাণীদের জন্যও এটি নিরাপদ। যেসব স্থানে ইঁদুর চোখে পড়ে, সেসব স্থানে বেশি করে বেইকিং সোডা সারারাত ছিটিয়ে রাখতে পারেন। তবে সকালে তা মুছে ফেলতে হবে। কয়েকদিন ধরে এই পদ্ধতি পুনরাবৃত্তি করতে হবে।

ছবি: রয়টার্স।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 21 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)