কপালের তামাটে ভাব দূর করুন প্রাকৃতিক ৫ টি উপায়ে

রূপচর্চা/বিউটি-টিপস 14th May 17 at 10:26am 157
Googleplus Pint
কপালের তামাটে ভাব দূর করুন প্রাকৃতিক ৫ টি উপায়ে

গরমের সময় বেশিরভাগ নারীরই কপাল তামাটে হয়ে যাওয়ার সমস্যাটি হতে দেখা যায়। ফলে তাদের চেহারার অন্য অংশের চেয়ে কপালের ত্বককে পৃথক মনে হয়। হ্যাঁ, তাদের জন্যই আমাদের আজকের ফিচারটি। এখানে আমারা এমন কয়েকটি প্রাকৃতিক উপাদানের বিষয়ে জানবো যার দ্বারা কপালের তামাটে ভাব দূর করা যায়। এই প্রাকৃতিক উপাদানগুলো শুধু অ্যান্টিঅক্সিডেন্টেই সমৃদ্ধ নয় বরং ত্বক পুনরুজ্জীবিত করার উপাদানেও ভরপুর থাকে। গ্রীষ্মে ত্বকের যত্নে এই উপাদানগুলো আপনার প্রাত্যহিক রূপচর্চার তালিকায় যুক্ত করুন।

১। হলুদের গুঁড়োর সাথে বেসনের মিশ্রন
১ চা চামচ বেসনের সাথে ১ চিমটি হলুদ গুঁড়ো এবং ২ চা চামচ গোলাপ পানি যোগ করুন। উপাদানগুলো ভালো করে মিশিয়ে নিন। তারপর মিশ্রণটি আপনার কপালের তামাটে দাগের উপর লাগান। ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে অন্তত দুই দিন ব্যবহার করুন এই মিশ্রণটি।

২। থেঁতো করা আলু
সিদ্ধ আলু ভালো করে থেঁতলে নিয়ে আপনার সম্পূর্ণ কপালে লাগান। ১৫ মিনিট রাখার পর উষ্ণ পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ম্যাজিকের মত কাজ করবে এটি। কপালের তামাটে ভাব দূর করতে সপ্তাহে ২-৩ বার ব্যবহার করুন এটি।

৩। চন্দনের গুঁড়োর সাথে ডাবের পানি
কপালের তামাটে দাগ দূর করার আরেকটি কার্যকরী উপায় হচ্ছে এটি। ১ চামচ করে চন্দনের গুঁড়ো ও ডাবের পানি মিশিয়ে নিন। কপালে এই মিশ্রণটি লাগিয়ে কিছুক্ষণ রাখুন। তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দ্রুত ফলাফল পাওয়ার জন্য সপ্তাহে ৩-৪ বার ব্যবহার করুন এটি।

৪। টমেটোর পেস্ট
তাজা টমেটোর নির্যাস নিয়ে কপালে লাগিয়ে রাখুন। এই যাদুকরি ক্ষমতার প্রাকৃতিক উপাদানটি সহজেই কপালের তামাটে দাগ দূর করবে। কপালের তামাটে ভাব দূর করার জন্য সপ্তাহে ৪-৫ বার ব্যবহার করতে পারেন সবচেয়ে সহজ এই প্রতিকারটি ।

৫। আনারসের রসের সাথে মধু
১ চা চামচ মধুর সাথে সমপরিমাণ আনারসের রস মিশিয়ে কপালের ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। ১৫ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহিক পুনরাবৃত্তি আপনার কপালের ত্বকের জন্য উপকারী হতে পারে।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 23 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)