সহকর্মী হোক বন্ধু

লাইফ স্টাইল 7th May 17 at 11:22pm 156
Googleplus Pint
সহকর্মী হোক বন্ধু

ব্যস্ত এই জীবনে জীবিকার প্রয়োজনে কাজ করতে হয় সবাইকেই। ছোট্ট চড়ুই পাখিটিও এদিক সেদিক ঘুরে খাবার খুঁজে বেড়ায়। সুন্দরভাবে বাঁচার জন্য, নিজেকে একটু ভালো রাখার জন্য কাজ করতে হয় সবাইকেই। আর সেজন্য ছুটতে হয় যার যার কর্মক্ষেত্রে। সারা মাসের পরিশ্রমের বিনিময়ে মেলে বেঁচে থাকার পাথেয়। বাসার পরে দিনের সবচেয়ে বেশি সময় যেখানে কাটে, সেটি অফিস। একই অফিসে যারা কাজ করেন তারা সবাই সহকর্মী। পরিবারের বাইরে এ যেন আরেক পরিবার। দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে আসা বিভিন্ন বয়সের মানুষেরাই তখন একে অপরের আপনজন হয়ে যান। কখনো যে মনোমালিন্য ঘটে না, এমন নয়। মনোমালিন্য কোথায় না হয়! তবু হাসি আনন্দ দুঃখ বেদনায় বন্ধু-পরিজনের পাশাপাশি যারা আপনার পাশে থাকে, তারাই সহকর্মী। অফিসের কাজের পাশাপাশি আরো কিছু কাজ করতে হবে আপনাকে। আর তাহলেই সুন্দর থাকবে সহকর্মীর সঙ্গে আপনার সম্পর্ক। কাজগুলো কঠিন কিছু নয়। মিলিয়ে দেখুন, এগুলো হয়তো এমনিতেই আপনি প্রতিদিন করে থাকেন. . .

কুশল বিনিময়
অফিসে এসে প্রতিদিন সহকর্মীদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করুন। হাসিমুখে কথা বলার মধ্য দিয়ে শুরু করুন আপনার কর্মব্যস্ত দিনের সকালটি। দেখবেন কাজের মাঝে আনন্দ খুঁজে পাচ্ছেন। চারপাশের সবাইকে আপন ভাবার মধ্যে যে মানসিক শান্তি মিলবে, তা আপনি আর কোথাও পাবেন না।

খোঁজ রাখা
সহকর্মীর খোঁজ-খবর রাখুন। সে কেমন আছে, দিনকাল কেমন যাচ্ছে। কোথাও কোনো সমস্যা হচ্ছে কি না, সেসব বিষয়ে তার সঙ্গে কথা বলুন। কাজের ক্ষেত্রে বা অন্য কোথাও সমস্যা হলে তাকে পরামর্শ কিংবা সাহস দিয়ে পাশে থাকুন।

ব্যক্তিগত বিষয়ে আগ্রহ না দেখানো
সবারই কিছু ব্যক্তিগত বিষয় থাকে যা হয়তো সে অন্য কারো সাথে শেয়ার করতে চায় না। সহকর্মীর ব্যক্তিগত বিষয়ে তাই আগ্রহ দেখানো থেকে বিরত থাকুন। যদি তার সম্পর্কে কিছু জানার থাকে, সরাসরি তার কাছেই জানতে চান। পেছনে অন্য সহকর্মীদের সঙ্গে গসিপে মেতে উঠবেন না। তাতে করে সম্পর্ক নষ্ট হয়ে যাওয়ার ভয় থাকে।

কাজের পরিবেশ
অফিসে আসার উদ্দেশ্যই হচ্ছে কাজ। তাই কাজের পরিবেশ যাতে সুষ্ঠু থাকে সেদিকে নজর দিন। কাজের ফাঁকে ফাঁকে গল্প কিংবা আড্ডা দিতে পারেন, আড্ডা কিংবা গল্পের ফাঁকে কাজ নয়। খেয়াল রাখবেন, আপনাদের গল্প করার কারণে যেন অন্য কোনো সহকর্মীর কাজে ব্যাঘাত না ঘটে।

ভুল বোঝাবুঝি হলে
কাজ করতে গিয়ে ভুল বোঝাবুঝি হতেই পারে। সেক্ষেত্রে দ্রুত ভুল বোঝাবুঝি মিটিয়ে ফেলুন। কারণ একত্রে কাজ করতে গেলে সম্পর্ক যদি ভালো না থাকে তখন কাজের মাঝে আনন্দ পাওয়া যায় না। এছাড়া রাগ, ক্ষোভ ইত্যাদি আমাদের মানসিক শান্তি নষ্টের জন্য যথেষ্ট। তাই মনের ভেতর রাগ পুষে না রেখে ভুল বোঝাবুঝি মিটিয়ে ফেলুন। বন্ধুভাবাপন্ন একটি পরিবেশে কাজ করলে কাজ করার কষ্ট অনেকটাই দূর হয়ে যাবে।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 18 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)