সাধারণত যে ৭ কারণে চুল পড়ে

রূপচর্চা/বিউটি-টিপস 2nd May 17 at 10:14am 236
Googleplus Pint
সাধারণত যে ৭ কারণে চুল পড়ে

নারী বা পুরুষ উভয়ের সৌন্দর্যের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হলো চুল। চুল আপনার সৌন্দর্য বাড়িয়ে দেয় অনেকখানি। এই চুল যখন পড়া শুরু করে তখন চিন্তার শেষ থাকে না। নারী-পুরুষ উভয়েই চুল পড়া সমস্যায় ভুগে থাকেন। শত চেষ্টা করে, নানান রকম তেল-শ্যাম্পু প্যাক ব্যবহার করেও চুল পড়া বন্ধ করা সম্ভব হয় না। এই চুল পড়ার কারণ কী আপনি জানেন? বিভিন্ন কারণে চুল পড়তে পারে। তবে এর মাঝে কিছু কারণের জন্য হয়তো আপনি নিজেই দায়ী! চুল পড়ার কিছু কারণ নিয়ে আজকের ফিচার। কারণগুলো জেনে নেওয়া যাক।

১। পর্যাপ্ত পরিমাণে আয়রন গ্রহণ না করা
নিরামিষভোজীরা একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ মাছ, মাংস খেয়ে থাকেন। যার কারণে তাদের আয়রনের ঘাটতি দেখা দেয়। ১৯ থেকে ৫০ বয়সী নারীদের ১৮ মিলিগ্রাম এবং ৫১ থেকে আরো বেশি বয়সী নারীরা ৮ মিলিগ্রাম আয়রন প্রতিদিন গ্রহণ করা উচিত। তাই প্রতিদিনকার খাবারের আয়রনযুক্ত সবজি রাখুন। তবে আয়রন ট্যাবলেট গ্রহণ করার আগে চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করা উচিত।

২। সঠিক পরিমাণে প্রোটিন না খাওয়া
প্রোটিনের অভাব চুল পড়ার আরেকটি কারণ। প্রোটিনের ঘাটতি হলে চুল পড়ে যায়, চুলের রং বদলে যায়। নারীদের প্রতিদিন অন্তত ৪৬ গ্রাম প্রোটিন খাওয়া প্রয়োজন। প্রোটিন মানে যে মাংস খেতে হবে এমন কিছু না। ডিম, বাদাম, ওটস, দুধ ও ব্রকোলিতে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন রয়েছে।

৩। হিট স্ট্রেইটনার ব্যবহার
স্ট্রেইটনার মূলত চুলকে হিট দিয়ে সোজা করতে বা কোঁকড়ানো করতে সহায়তা করে। কিন্তু চুল হিট করার যেকোনো উপকরণই চুলের জন্য ক্ষতিকর। এতে মাথার ত্বকের প্রোটিনের হেরফের হয়, যার ফলে চুলের গোড়া নরম হয়ে চুল পড়ে যায়।

৪। অতিরক্ত দুশ্চিন্তা
স্ট্রেস স্বাস্থ্যের জন্য যেমন ঝুঁকিপূর্ণ তেমনি চুলের জন্যও ক্ষতিকর। কাজের চাপ কিংবা পরিবারিক চাপের কারণে মানুষ মাত্রাতিরিক্ত দুশ্চিন্তা করে থাকে। এই দুশ্চিন্তার কারণে চুল পড়ে যায়। তবে এই সমস্যা সাময়িক। দুশ্চিন্তা কমে গেলে চুল পড়া বন্ধ হয়ে যাবে।

৫। ঔষধ গ্রহণে
কিছু কিছু ওষুধ খাওয়ার ফলে চুল পড়ার সমস্যা তৈরি হয়। যেমন স্টায়াটিন, অ্যান্টি-ডিপ্রেজেন্টস, অ্যান্টি-অ্যানাক্সাইটি এজেন্টস, অ্যান্টি-হাইপারটেনসিভ জাতীয় ঔষধ সেবনে হরমোনের ভারসাম্যের পরিবর্তন হয়ে থাকে। যার ফলে চুল পড়ার সমস্যা তৈরি হয়ে থাকে।

৬। চুলে বিভিন্ন পণ্য ব্যবহার
চুলকে ঝলমলে আর প্রাণবন্ত করতে আমরা বিভিন্ন সময়ে স্ট্যাইনার, ব্লো ড্রাই, কালার ব্যবহার করে থাকি। আর এই সামগ্রী ব্যবহারের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয় চুল। সাময়িকভাবে চুল সুন্দর লাগলেও, চুলের উপর দীর্ঘমেয়াদী প্রভাব ফেলে থাকে। কেননা এগুলো সম্পূর্ণভাবে বিভিন্ন রাসায়নিক পদার্থ দিয়ে তৈরি যা চুলের গোড়া নরম করতে সহায়তা করে। আর এর ফলে চুল পড়া সমস্যা তৈরি হয়।

৭। থাইরয়েডের সমস্যা
থাইরয়েডের সমস্যার কারণে শুধু শারীরিক সমস্যাই হয় না, এর কারণে আপনার চুলও ক্ষতিগ্রস্ত হয়। কম বয়সে দ্রুত চুল পড়ে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয়। তাই দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 16 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)