হার্ট ভালো রাখতে যা খাবেন

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস 30th Apr 17 at 4:16pm 235
Googleplus Pint
হার্ট ভালো রাখতে যা খাবেন

আমাদের জীবন জাঙ্ক খাবারের ওপর নির্ভরশীল হয়ে পড়ায় শরীরের পি এইচ লেভেলের পরিবর্তন ঘটছে। এর ফলে আমাদের ইমিউন সিস্টেম ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। আর এর থেকে দেখা দিচ্ছে বিভিন্ন হেলথ ডিসওর্ডার‚ যেমন ওবেসিটি‚ বিভিন্ন হার্ট সংক্রান্ত ডিজিজ এবং ক্যান্সার। তবে কয়েকটি খাবার খেলে এই ঝুকি কমিয়ে শরীরকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করবে।

১. ফুটি এবং তরমুজ : এই দুটো ফলই আমাদের শরীর হাইড্রেটেড রাখে। এছাড়াও আমাদের শরীরে ক্ষতিকারক টক্সিনকে বের করে দিতেও সাহায্য করে। এই ফলগুলোর পি এইচ ভ্যালু ৮.৫ এর আশেপাশে থাকে। ফলে শরীরের পিএইচ ব্যালেন্স ঠিক রাখতে সাহায্য করে।

২. অলিভ অয়েল : দ্রু অলিভ অয়েলের ব্যবহার শুরু করুন। এতে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট আছে সঙ্গে আছে মনো স্যাচুরেটেড ফ্যাটি অ্যাসিড এবং ভিটমিন ই। এই তেলের ব্যবহারে আপনার হার্ট ঠিক থাকবে। এছাড়াও শরীরে চিনির মাত্রাও কমবে।

৩. ফ্ল্যাক্স সিড : এতে প্রচুর অ্যান্টি অক্সিডেন্ট আর ভিটামিন ই তো আছেই‚ এছাড়াও এতে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার আছে। রোজ ফ্ল্যাক্স সিড খেলে হার্ট ভালো থাকবে‚ শরীরে ব্যথা বেদনা কমবে‚ যে নারীদের মেনোপোজ হয়েছে তাদের মাঝে মাঝেই হট ফ্ল্যাশ হয় সেটাও কমবে। একমুঠো ফ্ল্যাক্স সিড এমনি খেতে পারেন বা সকালে ওটসের সঙ্গে মিশিয়েও খেতে পারেন।

৪. কলা : ফাইবার ছাড়াও কলাতে আছে বিভিন্ন এসেনশিয়াল নিউট্রিয়েন্টস যেমন ভিটামিন বি‚ ম্যাঙ্গানিজ‚ পটাসিয়াম। ব্লাড সুগার লেভেল পরিমিত রাখে। এছাড়াও হজম ক্ষমতার উন্নতি ঘটায় এবং আমাদের হার্ট ভালো রাখে। অনেকেই ভাবে কলা খেলে ওজন বেড়ে যায়‚ এটা কিন্তু সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। উল্টে ওজন কমাতে চাইলে রোজ নিজের ডায়েটে কলা রাখুন।

৫. অ্যাভোকার্ডো : বিভিন্ন নিউট্রিয়েন্টস‚ মনো স্যাচুরেটেড ফ্যাটি অ্যাসিড আর ফাইবার থাকার ফলে আপনার হার্ট সুরক্ষিত থাকে এবং একি সঙ্গে কোলেস্টেরলের মাত্রাও কমে। এছাড়া অন্য ফল ও সব্জি থেকে নিউট্রিয়েন্টস অ্যাবসর্ব করতেও সাহায্য করে অ্যাভোকার্ডো।

৬. গাজর : এতে উচ্চ পরিমাণে বিটা ক্যারোটিন থাকে যার ফলে চোখের দৃষ্টি ভালো থাকে। এছাড়াও এতে ফাইবার থাকে‚ ভিটামিন এ‚ ভিটামিন বি৮‚ ভিটামিন সি‚ ভিটামিন কে‚ পটাসিয়াম আর আয়রনও আছে। এছাড়াও আপনার স্মৃতি শক্তি বাড়াতেও সাহায্য করে গাজর।

৭. স্ট্রবেরী : এতে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট আর ফাইবার থাকে। স্মৃতিশক্তি বাড়ায়‚ হজম ক্ষমতা বাড়ায়‚ ক্যানসারের হাত থেকে রক্ষা করে এবং বিভিন্ন ক্রনিক অসুখের হাত থেকেও বাঁচায়। এছাড়াও ত্বক ভালো রাখে এবং ত্বকের বয়স বাড়তে দেয় না।

৮. আঙুর : এতে এক ধরণের polyphenols নামের অ্যান্টি অক্সিডেন্ট পাওয়া যায় যা মাউথ‚ লাং‚ প্যানক্রিয়্যাটিক‚ ইসোফিগ্যাল‚ এন্ডোমেট্রিয়াল‚ কোলন আর প্রস্টেট ক্যান্সারের হাত থেকে বাঁচায়। এছাড়াও হাইপারটেনশন এবং অ্যাংজাইটি কমাতেও সাহায্য করে।

৯. ব্রকোলি : এই সব্জিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি৬‚ ভিটামিন সি‚ ভিটামিন ই আর ভিটামিন কে আছে। এছাড়াও ফাইবার‚ পটাসিয়াম আর কপারও আছে। এর ফলে কোলেস্টেরল কমে‚ অ্যান্টি অক্সিডেন্টের কাজ করে‚ হাড় শক্ত রাখে এবং একি সঙ্গে হার্ট ভালো রাখে। এছাড়াও আয়রন থাকায় ব্লাড সার্কুলেশন ভালো করে।

১০. লেবু : এতে নিউট্রিয়েন্টস ভর্তি‚ যেমন ভিটামিন সি‚ ভিটামিন বি৬‚ ভিটামিন ই‚ রাইবোফ্ল্যাভিন‚ কপার‚ ক্যালসিয়াম‚ পটাসিয়াম এবং জিঙ্ক। নিয়মিত লেবু খেলে কিডনি স্টোন হওয়ার সম্ভবণা কমে এছাড়াও স্ট্রোক হওয়ার সম্ভাবনাও কমায়। এছাড়াও কস্টিপেশন হতে দেয় না‚ রক্ত চাপ কমায় এবং ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করতে সাহায্য করে।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 10 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)