শারীরিক বিভিন্ন সমস্যার কারণ ও প্রতিরোধক খাবার

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস 29th Apr 17 at 12:52pm 165
Googleplus Pint
শারীরিক বিভিন্ন সমস্যার কারণ ও প্রতিরোধক খাবার

আমাদের মধ্যে অনেকেই নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধ, ঠোঁট ফাটা, মাথাব্যথা, দৈহিক মিলনে অনীহা, মাথার চুল পাতলা হয়ে যাওয়া, নখে সাদা ফোটা দাগ, নখ ভেঙে যাওয়া, খুশকি, অল্পতেই অবসাদ গ্রস্থ হয়ে পড়া, ব্রণ কিংবা ত্বক রুক্ষ হয়ে যাওয়ার সমস্যায় ভোগেন।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায়, যারা এই সমস্যাগুলোয় ভোগেন তারা এগুলোকে তেমন একটা গুরুত্ব দেন না। তবে আপাতদৃষ্টিতে নিরীহ দেখতে এই সমস্যাগুলো যে গুরুত্বহীনতার কারণে এক সময় আপনার জীবনে অভিশাপ হয়ে দেখা দিবে তেমনটাই বলেছেন লন্ডনের একদল গবেষক।

পুষ্টিবিদ রব হবসনের নেতৃত্বে এক দল গবেষক দুই হাজার মানুষের ওপর পরিচালিত এক গবেষণায় দেখতে পেয়েছেন, প্রাপ্তবয়স্ক দশ জন মানুষের মধ্যে কমপক্ষে ছয় জন এই সমস্যাগুলোর কোনো না কোনোটিতে ভুগছেন এবং ভুক্তভোগী প্রত্যেকেই তীব্র ভিটামিন ঘাটতির স্বীকার।

গবেষক দল তাদের গবেষণায় প্রত্যেকটি সমস্যার কারণ এবং তার প্রতিকার স্বরুপ একটি খাদ্য তালিকা উপস্থাপন করেছেন।

মুখে দুর্গন্ধ

মুখের দূর্গন্ধ একটি বিব্রতকর সমস্যা। কিছু মানুষ আছে যাদের ভালো করে ব্রাশ করার পরও মুখে দূর্গন্ধ থেকে যায়। যাদের এ ধরনের সমস্যা আছে তারা সাধারণত আয়রন ঘাটতিতে ভুগছেন। কিশমিশ, মটরশুটি, শিমের বিচি এই সমস্যা সমাধানে সাহায্য করে।

ঠোঁট ফাটা

আয়রন ও ভিটামিন সি ঘাটতির কারণে এই সমস্যা দেখা দিতে পারে। লাল মাংস, লাল মরিচ, বাঁধাকপি, টফু এই সমস্যা প্রতিরোধে কার্যকরি।

খুশকি

বায়োটিন (ভিটামিন এইচ), ভিটামিন বি-সেভেন, প্রয়োজনীয় ফ্যাটি অ্যাসিড ঘাটতির কারণে মাথায় খুশকির সমস্যা হতে পারে। স্যামন মাছ, বাদাম, বাদামের মাখন, সূর্যমুখী বীজ খুশকি প্রতিরোধে সাহায্য করে।

চুল পাতলা হয়ে যাওয়া

আয়রন ও ভিটামিন সি ঘাটতির কারণে এই সমস্যার সৃষ্টি হতে পারে। লেবু, আমলকি, স্ট্রবেরি, লাল সিমের বিচি মাথার চুল পাতলা হয়ে যাওয়া প্রতিরোধে সাহায্য করে।

ত্বক রুক্ষ হয়ে যাওয়া

ওমেগা-৬ ফ্যাটি অ্যাসিড ঘাটতির কারণে ত্বক রুক্ষ হয়ে যেতে পারে। সূর্যমুখী বীজ, পাইন বাদম, তিলের বীজ- এসব খাবার ত্বক রক্ষ হয়ে যাওয়া প্রতিরোধে সহায়ক।

ব্রণ

শরীরে জিংকের ঘাটতির কারণে ব্রণ দেখা দিতে পারে। পালংশাক, কাজু বাদাম এবং কোকো পাউডার খাদ্যতালিকায় রাখলে উপকারিতা মিলবে।

নখে সাদা স্পট

জিংক ও আয়রন ঘাটতির কারণে নখের ওপর সাদা ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র দাগ দেখা দিতে পারে। মাশরুম, ছোলা, শুকনো অ্যাপ্রিকট ফল নিয়মিত খেলে এ সমস্যা দূর হবে।

নখের ভঙ্গুরতা

আয়রন ঘটাতির কারণে এই সমস্যা দেখা দেয়। তিসি বীজ, মুরগির কলিজা, পেস্তা বাদাম, মসুর ডাল এ সমস্যা নিরসনে সহায়ক।

নাকের চারপাশে পিচ্ছিলতা

অনেকের নাকের চারপাশের ত্বকে পিচ্ছিল ভাব দেখা দেয়। ভিটামিন বি-২ অথবা জিংক ঘাটতির কারণে এই সমস্যা দেখা দিতে পারে। পনির, কাজুবাদাম, ম্যাকরেল মাছ, অ্যাসপারাগাস খাদ্যতালিকায় রাখলে এ সমস্য থেকে মুক্তি মিলতে পারে।

আলসার/ জিহবায় ঘা

শরীরে ভিটামিন বি১২, বি৩, আয়রন অথবা ফলিক অ্যাসিডের অভাবে এই সমস্যা হতে পারে। ব্ল্যাক বীনস, চীনা বাঁধাকপি, অ্যাভোকাডো, ট্রাউট মাছ নিয়মিত খেলে এই রোগ প্রতিরোধে সহায়ক হতে পারে।

মাথাব্যথা

শরীরে ম্যাগনেসিয়াম, ভিটামিন বি১২ অথবা বি৬ এর অভাবে মাথাব্যথা দেখা দিতে পারে। এ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে খাদ্যতালিকায় কুমড়া বীজ, আলুবোখারা, কলা, দুধ রাখলে উপকার মিলতে পারে।

স্বাদহীন ভাব

শরীরে জিংকের ঘাটতির কারণে এমনটা হতে পারে। স্বাদহীন ভাব দূর করতে ডিম, লাল মাংস, দই, লাল মটরশুঁটি সহায়তা করতে পারে।

বিষণ্নতা

ভিটামিন বি, ডি অথবা ম্যাগনেসিয়ামের ঘাটতির কারণে এই সমস্যা হতে পারে। এ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে সাহায্যকারী খাবার হতে পারে কাজুবাদাম, মাশরুম, বার্লি।

অনিদ্রা

শরীরে ম্যাগনেসিয়ামের ঘাটতির কারণে এ সমস্যা হতে পারে। এ সমস্যা প্রতিরোধে সবুজ শাক, বাদাম, ছোলা সহ আরো কিছু খাবার খাদ্যতালিকায় রাখলে উপকার মিলতে পারে।

দৈহিক মিলনে অনীহা

শরীরে ভিটামিন ডি এর ঘাটতির কারণে এ সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে। মাশরুম, ম্যাকরেল মাছ, ডিম নিয়মিত খেলে এই সমস্যা থেকে মুক্তি মিলতে পারে।

স্ট্রেস

ম্যাগনেসিয়াম, জিংক অথবা প্রয়োজনীয় ফ্যাটি অ্যাসিড শরীরে ঘাটতির কারণে হতে পারে। এক্ষেত্রে সাহায্যকারী খাবার হতে পারে টুনা মাছ, কোকো পাউডার, চিংড়ি, সূর্যমুখী বীজ।

উদ্বেগ

অনেকেই সামান্যতেই উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন। শরীরে ভিটামিন বি, ডি, ম্যাগনেসিয়াম অথবা ক্যালসিয়ামের ঘাটতির কারণে এ সমস্য হতে পারে। এ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে সাহায্যকারী খাবার হতে পারে টফু, দুধ, কলা এবং খেজুর।

জয়েন্টে ব্যথা

ম্যাগনেসিয়াম, পটাশিয়াম, সোডিয়াম, ক্যালসিয়াম, ভিটাবিন বি১ অথবা ডি'র ঘাটতির কারণে হতে পারে। এ সমস্যা প্রতিরোধে সহায়তা করতে পারে ট্রাউট মাছ, চিয়া বীজ, ম্যাকডামিয়া বাদাম।

তথ্যসূত্র : ডেইলি মেইল

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 20 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)