পেট খারাপে কোনো শুকনো খাবার খাওয়ার দরকার আছে কি?

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস 16th Apr 17 at 6:27pm 289
Googleplus Pint
পেট খারাপে কোনো শুকনো খাবার খাওয়ার দরকার আছে কি?

ডায়রিয়া বা পাতলা পায়খানা হলে অনেকেই খাবারদাবার একেবারে বন্ধ করে দেন। আবার কেউ কেউ তখন শুকনো খাবার খাওয়া উচিত বলে মনে করেন। আর তরল নরম খাবার পুরোপুরি এড়িয়ে চলেন এই ভেবে যে তাতে নাকি ডায়রিয়ার তীব্রতা আরো বাড়বে। আসলে এ ধারণার পুরোটাই ঠিক নয়, বরং উল্টোটাই সত্যি।

ডায়রিয়া বা পাতলা পায়খানার জন্য দায়ী কিছু জীবাণু রয়েছে। মূলত দূষিত পানি ও খাবারের সঙ্গে এসব জীবাণু পরিপাকতন্ত্রে প্রবেশ করে এসব স্বাভাবিক নিয়মে গোলযোগ ঘটায়। এতে ঘন ঘন পায়খানা হয়। শরীর থেকে বেরিয়ে যায় প্রচুর পানি ও ইলেকট্রলাইট। এতে শরীর দুর্বল হয়ে পড়ে। শরীরের গুরুত্বপূর্ণ কিছু স্বাভাবিক কার্যক্রম ব্যাহত হয়।

তাই ডায়রিয়া হলে প্রথমেই একটি বিষয় খেয়াল রাখতে হবে। সেটি হচ্ছে শরীর যেন প্রয়োজনীয় পানি ও ইলেকট্রলাইট পায়। এ জন্য ডায়রিয়া রোগীকে শুকনো খাবারের বদলে জলীয় খাবার, শুধু পানি, ডাবের পানি, শরবত, বিশেষ করে ওরালস্যালাইন পানের ব্যাপারে যত্নবান হতে হবে।

শুকনো খাবারে ডায়রিয়ার তীব্রতা কমে—এ ধারণা ভুল; বরং ডায়রিয়া ও পাতলা পায়খানার রোগীকে ওরালস্যালাইনের পাশাপাশি ভাত, ফিরনি, চালের গুঁড়ার জাউ, ছোট্ট শিশুকে বুকের দুধ, একটু বড় শিশুদের জন্য অন্যান্য খাবার খেতে দিলে রোগী দ্রুত সেরে উঠবে। কাজেই ডায়রিয়া হলে মুড়ি, চিড়া, বিস্কুট খেয়ে অবস্থার উন্নতি হবে না।

অবস্থার উন্নতির জন্য বেরিয়ে যাওয়া লবণ-পানির ঘাটতি পূরণে খেতে হবে ওরাল রিহাইড্রেশন সল্ট বা ওরালস্যালাইন। শরীরের স্বাভাবিক পুষ্টি ও শক্তির জোগান দেওয়ার জন্য খেতে হবে স্বাভাবিক খাবার। আর দায়ী রোগ-জীবাণুকে ধ্বংস করার জন্য প্রযোজনীয় ওষুধও খেতে হবে।

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 18 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)