উঁকুন দূর করার সহজ উপায়

রূপচর্চা/বিউটি-টিপস 13th Apr 17 at 9:37pm 334
Googleplus Pint
উঁকুন দূর করার সহজ উপায়

উঁকুনের সমস্যায় ভুগে থাকেন অনেকেই। উঁকুনের এই সমস্যা আপনার মাথায় যেমন চুলকানির সৃষ্টি করে তেমনি সৃষ্টি করে ঘাঁ। এর পাশাপাশি আপনার পারসোনালিটির বারোটা তো বাজিয়ে দেয়ই। তাই সবাই চায় যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এর থেকে মুক্তি। কিছু ঘরোয়া উপায় আপনাকে দিতে পারে এর থেকে খুব সহজেই মুক্তি। চলুন জেনে নেই-

মেয়নিজ পুরো চুল ও মাথার ত্বকে লাগান। মাথা ভালো করে মাসাজ করুন। ২ ঘণ্টা পর চিকন দাঁতের চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ে ফেলুন। উঁকুন ও উঁকুনের ডিম মরে যাবে।

শিশুর চুলের উঁকুন শিশুর জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। এটি মাথার চামড়ার সাথে লেগে থেকে রক্ত খেতে থাকে। যাতে মাথায় চুলকানি, ঘাঁ, এবং নানা রোগের সৃষ্টি হতে পারে। শিশুদের চুলে উকুন হলে অ্যান্টি-লাইস শ্যাম্পু ব্যবহার করাই ভালো।এ ক্ষেত্রে শ্যাম্পুর সাথে ১০-১৫ ফোঁটা টি-ট্রি অয়েল মিশিয়ে নিয়ে ব্যবহার করুন। ভিনেগার দিয়েও চুল ধুতে পারেন। এতে ২-৩ দিনের মধ্যেই চুল থেকে উকুনের ডিমগুলো ঝরে পড়ে যাবে।

আমাদের সবার বাড়িতেই কমবেশি লেবু থাকে। সেই লেবুর রস ও মাখন ভালো করে মিশিয়ে মাথায় লাগিয়ে উঁকুনের সমস্যা দূর কর যায়।। এর পর ঘড়ি ধরে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। নির্দিষ্ট সময়ের পর চুল শ্যাম্পু করে ধুয়ে ফেলুন।

নিম শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার দিয়ে চুল ধুয়ে ১৫ মিনিট ধরে চুল ব্লো ড্রাই করুন বেশ উঁচু তাপমাত্রায়। ২ দিন ও ৭ দিন পর আবার এরকম ভাবে চুল পরিষ্কার করুন। শ্যাম্পুর পর চুলে অন্তত মিনিট পাঁচেক কন্ডিশনার লাগিয়ে রাখবেন। বাতাস চলাচল না করতে পারলে উকুন মরে যাবে। একই উপকার পাবেন সারাদিন মাথায় তেল মেখে থাকলে। অলিভ অয়েল এ ক্ষেত্রে ভালো কাজ করে।

অ্যাপেল সিডার ভিনেগার, অলিভ অয়েল ও রসুন বাটা মিশিয়ে মাথায় লাগিয়ে ২ ঘণ্টা। তারপর চুল ধুয়ে, শুকিয়ে সাদা ভিনেগার স্প্রে করুন চুলে। এরপর চিকন দাঁতের চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ান।

স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুলের জন্যও চাই উঁকুন বিহীন চুল। তাই যতটা সম্ভব চুলকে যত্নে রাখুব। অনেকক্ষণ ভেজা চুল বেঁধে রাখলে তাতে উঁকুনের জন্ম হয়। তাছাড়া মাথায় ময়লা জমে থাকলে তাতে জন্ম নেয় উকুঁন। তাই চুল যত তাড়াতাড়ি সম্ভব শুঁকিয়ে নিন আর চুলকে উঁকুনমুক্ত রাখুন।

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 20 - Rating 4 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)