হৃদপিণ্ড ভালো রাখার ঘরোয়া দাওয়াই

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস 3rd Apr 17 at 9:47pm 236
Googleplus Pint
হৃদপিণ্ড ভালো রাখার ঘরোয়া দাওয়াই

শরীর থাকলে রোগ হবেই। তাই বলে সাবধান হব না, এ কেমন কথা! তাই তো শরীরের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ, হৃদপিণ্ডকে ভাল রাখতে আমাদের চেষ্টায় কোনও খামতি রাখা উচিত নয়। কারণ ভুলে গেলে চলবে না, এই যন্ত্রটি বিকল হওয়া মানে যমরাজের অতিথি হতে কেউ আটকাতে পারবে না। তাই এক সেকেন্ডের জন্যও যাতে হার্টের স্বাস্থ্যের কোনও অবনতি না ঘটে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে? কীভাবে করবেন এই কাজটা। খুব সহজ! এই লেখাটি একবার পড়ে নিন, তাহলেই হৃদপিণ্ডকে নিয়ে আর আপনাকে দুঃশ্চিন্তায় থাকতে হবে না।

একাধিক পরিসংখ্যান ঘেঁটে যে তথ্য সামনে এসেছে, তা বাস্তবিকই বেশ ভয়ঙ্কর। কারণ সব নথি অনুযায়ী গত কয়েক দশকে আমাদের দেশের পাশপাশি সারা বিশ্বে হার্টের রোগে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমাগত বেড়েছে। বিশেষত কম বয়সীদের মধ্যে হার্ট অ্যাটাকের ঘটনা চোখে পড়ার মতো বেড়েছে। এই পরিস্থিতিতে যদি নিজের হার্টের খেয়াল না রাখেন তাহলে কিন্তু বিপদ!

বেশি দিন হার্টকে সুস্থ রাখতে এই লেখায় আলোচিত ঘরোয় ওষুধটি প্রতিদিন খেতে হবে। তাতে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা যেমন বাড়বে, তেমনি কমবে হার্টের রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও। কারণ কী জানেন? এই ওষুধটি বানাতে যে প্রকৃতিক উপাদানগুলি ব্যবহার করা হবে, সেগুলি শরীরের গঠনে দারুন উপকারে লাগে। তাহলে আর অপেক্ষা কিসের, জেনে নিন কীভাবে বানাতে হবে সর্বগুণ সম্পন্ন এই ঘরোয় ওষুধটি।

উপকরণ

১. বাঁধাকপির জুস- হাফ কাপ

২. আদার রস- ২ চামচ

হার্টের রোগকে দূরে রাখতে এই ঘরোয় ওষুধটি দারুন কাজে আসে। তবে প্রতিদিন খেতে হবে এটি, না হলে কিন্তু কোনো উপকারই পাবেন না। প্রসঙ্গত, এই ওষুধটি খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে জাঙ্ক ফুড খাওয়া একবারে ছেড়ে দিতে হবে এবং নিয়মিত শরীরচর্চার দিকে খেয়াল রাখতে হবে। এই নিয়মগুলি মেনে চললে দেখবেন কোনও দিন আপনার হার্ট দুর্বল হবে না।

বাঁধাকপিতে রয়েছে প্রচুর মাত্রায় আঁশ, যা শরীর থেকে খারাপ কোলেস্টেরল বের করে দেওয়ার পাশপাশি আর্টারিতে জমে থাকা টক্সিন ধুয়ে ফেলতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। আর আর্টারিতে ময়লা জমার সুযোগ না পেলে হার্টে রক্তচলাচল স্বাভাবিক থাকে। ফলে হার্ট অ্যাটাক হওয়ার আশঙ্কা একেবারে কমে যায়।

অপরদিকে আদায় রয়েছে অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট প্রপার্টিজ, যা হার্টের পেশিকে আরও শক্তিশালী করে তোলে। ফলে দীর্ঘদিন হার্টের কর্মক্ষমতা কমার কোনও নামই নেয় না।

ওষুধটি বানানোর পদ্ধতি

১. একটা গ্লাসে পরিমাণ মতো উপকরণগুলি নিন।

২. ভাল করে মেশান আদা এবং বাঁধাকপির রসকে।

৩. প্রতিদিন ব্রেকফাস্টের আগে খালি পেটে এই ওষুধটি খাওয়া শুরু করুন।

৪. কম করে ২ মাস ওষুধটি খেতে হবে।

৫. প্রয়োজন মনে করলে যত দিন ইচ্ছা এই আয়ুর্বেদিক ওষুধটি খেয়ে যেতে পারেন। তাতে শরীরের কোনও ক্ষতি তো হবেই না, বরং উপকারে লাগবে।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 10 - Rating 4 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)