ঝিলমিল ঝিলমিল ঠোঁটের সাজে!

সাজগোজ টিপস 28th Mar 17 at 8:15am 381
Googleplus Pint
ঝিলমিল ঝিলমিল ঠোঁটের সাজে!

সাজ নিয়ে নিরীক্ষা অনেকেরই পছন্দ। শুধু বন্ধু বা স্বজনদের পার্টি তো নয়, আজকাল সাজের নতুন নতুন ধারা নিয়েও আগ্রহের কমতি নেই ফ্যাশনসচেতনদের। নিজের নতুন রূপ আবিষ্কার, ছবি তোলা, কনসার্ট, ফ্যাশন শো কিংবা শুধুই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ঝকঝকে একটা প্রোফাইল তৈরির জন্যও সাজেন অনেকে। তাঁদের জন্য দারুণ একটি বাছাই হতে পারে গ্লিটার লিপস্টিক।

একটা মজার ঘটনা বলি। কিছুদিন আগেই মার্কিন সংগীততারকা টেইলর সুইফট তাঁর একটি মিউজিক ভিডিওতে ব্যবহার করেছিলেন গ্লিটার লিপস্টিক। মেকআপের সময়ই তিনি সামাজিক মাধ্যমে দাবি করে বসলেন, তাঁর আগে আর কেউ এমন লিপস্টিক পরেননি। এর পরপরই সামাজিক মাধ্যমে আসতে শুরু করল আরিয়ানা গ্রান্ডে, কেশা, মাইলি সাইরাসের ছবি—যাঁরা অনেক আগেই গ্লিটার লিপস্টিক নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে ফেলেছেন। আর সর্বশেষ একটি আন্তর্জাতিক ফ্যাশন সপ্তাহে দেখা গেছে, লিপস্টিকে জরির ঝিলমিল ঝিলমিল উপস্থিতি।

কিউবেলার প্রধান রূপবিশেষজ্ঞ ফারজানা মুন্নি জানালেন, গ্লিটার লিপস্টিক ফুটিয়ে তুলতে চাইলে মেকআপের বেজ হবে স্বাভাবিক রঙের চাইতে দুই শেড উজ্জ্বল। যত ভালোভাবে বেজ তৈরি করতে পারবেন, লিপস্টিক তত ভালো দেখাবে।

মেকআপের বেজই হবে ঠোঁটের বেজ। সবশেষে ফেস পাউডারে ঠোঁটে একটু শুকনাভাব নিয়ে আসতে পারেন।

যেভাবে দেবেন গ্লিটার

গ্লিটার লিপস্টিক লাগাতে প্রথমেই লাইনারে ঠোঁটের আকৃতি এঁকে নিতে হবে। এবার লাইনার বা লিপস্টিকে ঠোঁট রাঙিয়ে নিন। মানানসই গ্লস পাতলা করে মেখে, তার ওপর নরম তুলি দিয়ে গ্লিটার বসান। গ্লিটার মিশিয়ে দিতে পারেন। জরি বা গ্লিটার বেশি ভারী কিংবা বড় হয়ে গেলে লিপস্টিক গলে যেতে পারে। তাই গ্লসের বদলে প্রাইমার ব্যবহার করাই উত্তম।

কেমন রং মানাবে?

আপনার পোশাকের সঙ্গে মেলানো যেকোনো রঙের গ্লিটার মানাবে। কমলা লাইনারের মধ্যে গোলাপি বা লাল গ্লিটার, হালকা কোনো বেজে একাধিক রঙের শেড, গ্লিটার লিপস্টিকে যত খুশি তত রং ব্যবহারের স্বাধীনতা থাকে। বেগুনির সঙ্গে সবুজ, কিংবা হলদেটে গাঢ় ক্রিম রঙের সঙ্গে উজ্জ্বল নীল মেলে। পশ্চিমা পোশাকের সঙ্গে গাঢ় শেডগুলো ভালো দেখাবে।

আর ফুলেল ছাপের কোনো সালোয়ার-কামিজ যদি পরেন, কমলা, সবুজ, মেরুন, লাল, ম্যাজেন্টা পরতে পারেন অনায়াসে।

কোনো সামাজিক অনুষ্ঠানে পিচ, গোলাপি, রোজি পিংক বা বেবি পিংক রঙের গ্লিটার আলাদা মাত্রা যোগ করবে। তবে ভুলে গেলে চলবে না, গ্লিটার লিপস্টিক রাতের অনুষ্ঠানে সবচেয়ে বেশি ভালো লাগে। পয়লা বৈশাখের কথা অবশ্যই আলাদা। ওইদিন সবই মানায়।

চোখ ও ভ্রুর সাজও জরুরি

আরেকটি জরুরি বিষয় চোখ ও ভ্রুর সাজ। যেহেতু ঠোঁটের রংগুলোই প্রধান, চোখের সাজ যতটা সম্ভব সংক্ষিপ্ত করা জরুরি। মাশকারা, আলাদা ল্যাশ আর কাজলে উচ্ছলতা আসে চোখে। শ্যাডো হিসেবে বেজ রঙের নানান শেড আসতে পারে।

ভ্রুজোড়া সুন্দর করে এঁকে নিন, চুল সাজান যেভাবে আপনাকে সবচেয়ে ভালো দেখায়। এই তো।

পশ্চিমা পোশাকের সঙ্গে ঠোঁটে গাঢ় শেড ভালো মানাবে, সামাজিক অনুষ্ঠানে গেলে ঠোঁটে এ রকম হালকা রং ভালো দেখাবে। পোশাক: স্মার্টেক্স

কোথায় কেমন দামে...

ঢাকায় এখন অনেক ব্র্যান্ডের ভালো মানের গ্লিটার লিপস্টিক পাওয়া যায়। গুলশান, বনানী, বসুন্ধরা, রাপা প্লাজা থেকে শুরু করে গাউছিয়া, চাঁদনী চকের সাজের দোকানগুলো, একটু খোঁজ করলেই পেয়ে যাবেন হরেক রঙের গ্লিটার, লিপস্টিক, শেড আর প্রাইমার। অনলাইনের দোকানগুলোর সমাহারও কম নয়। ২৮০ থেকে শুরু করে ২ হাজার টাকার লিপস্টিক তো আছেই। বিশেষায়িত লিপকিটের দাম শুরু হয় চার হাজার টাকা থেকে। প্রাইমারের দামও ১৫০ থেকে ৫০০ টাকার মধ্যে ঘোরাফেরা করবে। আর গ্লিটার? এত কম দাম যে, দোকানে পরখ করতে গেলে নিজেই চমকে যাবেন!

তাহলে আপনার লিপস্টিকের বাহারে এই নতুন ধারা যোগ হচ্ছে কবে?

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 36 - Rating 4 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)