টাক সমস্যা সমাধানে জবাফুল

রূপচর্চা/বিউটি-টিপস 16th Mar 17 at 9:54pm 486
Googleplus Pint
টাক সমস্যা সমাধানে জবাফুল

সাধারণত দেখা যায় যে, চুলের যত্নের ব্যাপারে ছেলেরা উদাসীন হয়ে থাকে। অনেক সময় একটি সপ্তাহে কেটে গেলেও একটি দিনও তেল দেয়া কিংবা শ্যাম্পু করা হয়ে ওঠে না। আর এতে মাথার ত্বক এবং চুলের অনেক ক্ষতি হয়ে থাকে। যার ফলে চুল পড়া শুরু হয় যা শেষ পর্যায়ে টাকে গড়ায়। তাই ছেলেদের কিছু যত্ন নেয়া উচিত। যাতে টাক সমস্যায় ভুগতে না হয়।

এটা দেখা যায় যে, ছোট বেলায় মেয়ের মাথা কেশঘন করতে মায়েরা জবা তেল মালিশ করেন। আসলে জবার তেলে আছে চুল ঘন করার সব গুণ। রিসার্চে দেখা গেছে, জবার মালিশে খুব অল্পদিনেই লম্বা হয় চুল। মাথায় নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে। জবা ফুলে ও পাতা অ্যামিনো অ্যাসিড, ভিটামিন এ, ভিটামিন সি, অ্যালফা হাইড্রক্সি অ্যাসিড ও অন্যান্য নিউট্রিয়েন্টে ভরপুর। যা চুলে পক্ষে ভালো। এবার জেনে নিন- যেভাবে মাথায় ব্যবহার করতে পারেন জবা. . .

* পাতা - জবার পাতা গুঁড়ো করে, সেই গুঁড়োর পেস্ট বানিয়ে মাথার তালুতে লাগালে উপকার।

* তেল - একটি কাঁচের কৌটায় নারকেল তেল নিন। তাতে ১০-১৫টি জবা ফুলের পাতা ফেলে দিন। এবার সেই কৌটার মুখ বন্ধ করে ঘরের ঠান্ডা জায়গায় রেখে দিন ৩-৬ সপ্তাহ। তারপর তেল থেকে পাতাগুলি বের করে নিন। জবার তেল তৈরি। এই তেল দিয়ে নিয়মিত মাথার তালু ও চুল ম্যাসাজ করুন। তাড়াতাড়ি লম্বা হবে। গোড়া শক্ত হবে। চুল সাদা হবে না। ঝরা কমবে। ফিরে আসবে নতুন চুলও। আর কী চাই!

এক গ্লাস পানি একটি পাত্রে নিয়ে ফুটিয়ে এতে ২ টি জবাফুল দিয়ে ৩/৪ মিনিট আরো ফুটিয়ে নিন। এরপর পানি ঠাণ্ডা হতে দিন। পানি ঠাণ্ডা হয়ে এলে ছেঁকে নিয়ে এতে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস দিয়ে মিশিয়ে নিন। চুল শ্যাম্পু করে ধোয়ার পর এই মিশ্রণটি যেখানে টাক পড়া শুরু করেছে সেখানে লাগিয়ে রাখুন। জবা ফুলের রস নতুন চুল গজাতে সাহায্য করবে। চুল ঝরা থেকেও বাঁচাবে।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 33 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)