মাড়ির সুস্থতায় করণীয়

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস 22nd Feb 17 at 12:36pm 291
Googleplus Pint
মাড়ির সুস্থতায় করণীয়

একটু খানি অচেতনতা কিংবা অবহেলার কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে আমাদের দাঁতের মাড়ি। একবার ইনফেকশন দেখা দিলে তা সারতে যেমন সময় নেয়, তেমনই ভোগান্তিরও কারণ। সুস্থ ও সুন্দর দাঁত যেমন জরুরি তেমনই সুস্থ মাড়িও জুরুরি। তাই চলুন জেনে নেই কীভাবে প্রতিদিনের কাজের মাধ্যমে দাঁতের মাড়ি সুস্থ রাখবেন।

সুস্থ মাড়ি পেতে প্রচুর পরিমাণ তাজা শাকসবজি এবং ফল খেতে হবে কারণ এতে আপনার শরীরের ভিটামিনের অভাব দূর হবে। কাঁচা সবজি এবং ফল চিবিয়ে খেলে মাড়ির রক্ত চলাচল বেড়ে যায় ফলে এটি রক্তক্ষরণ কমিয়ে দেয়।

লবঙ্গ মাড়ির প্রদাহ কমিয়ে রক্ত পড়া বন্ধ করতে সহায়তা করে। অল্প পরিমাণ লবঙ্গের তেল অথবা পাউডার নিয়ে মাড়িতে হালকা ভাবে ম্যাসাজ করুন অথবা ১-২ টি লবঙ্গ চিবিয়ে খেয়ে নিন। এতে হালকা জ্বালা ভাব অনুভব হলেও এটি আপনার মাড়ির প্রদাহ কমিয়ে ফেলবে।

দুধে প্রচুর পরিমাণ ক্যালসিয়াম থাকে যা আপনার মাড়িকে শক্ত করে থাকে। তবে এতে চর্বিও থাকে। আপনি যখন দুধ পান করেন তখন এর চর্বি আপনার মাড়িতে লেগে থাকতে পারে এবং এটি মাড়ির জন্য মোটেই ভালো না । তাই দুধ পান করার পর অবশ্যই ব্রাশ করে নিন।

অল্প পরিমাণ অ্যালোভেরা পাল্প নিয়ে মাড়িতে ম্যাসাজ করুন এতে রক্ত পড়া কমে যাবে।

সবচেয়ে সহজ উপায় হল লবণ পানি দিয়ে কুলকুচি করা। এক গ্লাস কুসুম গরম পানিতে এক চিমটি লবণ নিয়ে দিনে ৩ বার কুলকুচি করুন।

আপনার টুথব্রাশটি বেকিং সোডার পাউডারে একবার মেখে নিন এবং ব্রাশ করুন। আপনি চাইলে পেস্টের সাথে মিশিয়ে নিতে পারেন।

ভিটামিন সি-এর অভাবে মুখে ঘা হয় তাই প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি যুক্ত খাবার খেতে হবে যেমন কমলা, লেবু, আমলকী, ইত্যাদি।

মধু খুব শক্তিশালী অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল টনিক। একটি রসুনের কোয়া নিয়ে এর অর্ধেক পরিমাণ নিন এবং এক টেবিল চামচ মধু একসঙ্গে মিশিয়ে মাড়িতে ম্যাসাজ করুন।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 21 - Rating 4 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)