রাতের খাবার দেরিতে খেলে কী হয়?

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস 21st Feb 17 at 12:02pm 629
Googleplus Pint
রাতের খাবার দেরিতে খেলে কী হয়?

পুষ্টিকর খাবার শরীরকে সুস্থ রাখে, শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়; শরীরের বৃদ্ধি ও বিকাশ ঘটায়। তবে অস্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া এবং খাবার খেতে অনিয়ম করলে স্বাস্থ্যঝুঁকি বাড়ে। বিশেষ করে রাতের খাবার দেরি করে খেলে বিভিন্ন স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি হয়। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, যাঁরা রাতে খেয়েই শুয়ে পড়েন, তাঁদের হার্টের রোগ ও স্ট্রোকের ঝুঁকি অনেকাংশে বেড়ে যায়। তাই খাবার রাত ৮টার মধ্যে খেয়ে ফেলা ভালো।

• রাতে দেরি করে খেলে যা হয়...

১. রাতে দেরিতে খেলে মানসিক চাপের হরমোন বাড়ে। এতে রক্তচাপ স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক গুণ বেড়ে যায়। এটি হৃৎপিণ্ডের কর্মদক্ষতা কমিয়ে দেয় এবং হৃৎপিণ্ডের বিভিন্ন রোগ তৈরি করে। পাশাপাশি স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ায়।

২. গবেষণায় দেখা গেছে, যাঁরা রাতে দেরি করে খান, তাঁদের শরীরে ইনসুলিন ও লেপটিনের কার্যক্ষমতা কমে গিয়ে ক্ষতিকর চর্বি বাড়ে। এতে বিভিন্ন স্বাস্থ্যঝুঁকি তৈরি হয়।

৩. রাতে দেরি করে খেলে বৃদ্ধিজনিত হরমোনের উৎপাদন ব্যাহত হয়। এতে বিপাকের বিঘ্ন ঘটে শরীরের লাবণ্য নষ্ট হয়।

৪. রাতে দেরি করে খেলে দেহে ফ্রি রেডিক্যাল বেড়ে গিয়ে কোষের স্বাভাবিক কার্যক্ষমতা নষ্ট হয়। এ ছাড়া এতে রোগ প্রতিরোগ ক্ষমতা কমে যায়, ক্যানসারের ঝুঁকি বৃদ্ধি পায়।

৫. রাতে দেরি করে খেলে ঘুমের সমস্যা হয়।

৬. রাতে দেরি করে খেলে হজমে সমস্যা হয়।

৭. এটি এসিডিটি, বুক জ্বালার সমস্যা অনেকগুণ বাড়িয়ে দেয়।

৮. রাতে দেরি করে খেলে শরীরের ওজন বাড়ে।

৯. রাতে দেরি করে খেলে শরীরের মাইট্রোকন্ডিয়ার এটিপি (ATP) তৈরির ক্ষমতা কমে যায়। এতে শরীরে সব সময় ক্লান্ত অনুভব হয়।

১০. রাতে দেরি করে খেলে শরীরের রক্তে সুগারের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ রাখা অনেক কঠিন হয়ে পড়ে। এতে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বাড়ে।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 27 - Rating 4 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)