সেলফি তোলা কী ইসলামে জায়েজ?

ইসলামিক শিক্ষা 20th Feb 17 at 7:54am 1,666
Googleplus Pint
সেলফি তোলা কী ইসলামে জায়েজ?

ইসলামের দৃষ্টিতে সেলফি তোলা জায়েজ কি না তা নিয়ে সৌদি আরবের স্কলাররা পরস্পরবিরোধী ফতোয়া দিয়েছেন। এই ফতোয়া বিশ্বজুড়ে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। পশ্চিমা বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেল ও সংবাদপত্রে সৌদি স্কলারদের এই ফতোয়ার বিষয়ে সংবাদ পরিবেশন করা হচ্ছে।

সৌদি আরবের স্থানীয় আরবি ভাষার একটি জাতীয় দৈনিকে সেলফি তোলা ইসলামে জায়েজ কিনা সেবিষয়ে স্কলারদের বিপরীতধর্মী ফতোয়া দেয়ার পর আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে এ বিষয়ে সমালোচনা শুরু হয়েছে।

পশ্চিমা টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচারিত এক সাক্ষাৎকারে দেখা যায়, এক ব্যক্তি সৌদি এক স্কলারের কাছে জানতে চান, বিড়ালের সঙ্গে সেলফি তোলার অনুমতি আছে কিনা?

গত বছরের মে মাসে সৌদি আরবে সেলফির প্রচণ্ড ঝড় দেখা যায়। সেই সময় এই প্রশ্নের জবাবে সৌদি স্কলার বলেন, ‘প্রয়োজন ছাড়া ছবি তোলা জায়েজ নয়। বিড়াল, কুকুর, নেকড়ে বাঘ ইত্যাদির সঙ্গেও কোনো ছবি তোলা উচিত নয়।’

সৌদি স্কলারের সাক্ষাৎকারের এই অংশটুকু সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়। পরে পশ্চিমা বিভিন্ন সংবাদপত্র ও টেলিভিশন চ্যানেলে ব্যাপক কাভারেজ পায় ওই স্কলারের সেলফি ফতোয়া। যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট, ব্রিটেনের নিউজ উইক, ডেইলি মেইল, ইন্ডিপেনডেন্টও এ বিষয়ে সংবাদ পরিবেশন করে।

শনিবার সৌদি আরবের জাতীয় দৈনিক সৌদি গ্যাজেটে খালিদ তাশখান্দি নামে এক কলামিস্ট ‘ইসলামে কী সেলফি জায়েজ?’

শিরোনামে একটি উপসম্পাদকীয় লিখেছেন। সেখানে তিনি বলেছেন, ফতোয়া দেয়ার ক্ষেত্রে স্কলারদেরকে সমাজের চলমান পরিস্থিতি বিবেচনা করা উচিত।

খালিদ বলেছেন, আমি ছবি তোলার বিষয়ে কথা বলছি। যেখানে অনেক স্কলার বলেছেন, ছবি তোলা জায়েজ। অপর দিকে অন্য স্কলাররা বলছেন জায়েজ নয়। ছবির মতো আরো অনেক বিষয় আছে যেগুলো নিয়ে বিতর্ক চলছে।

সৌদি এই কলামিস্ট লিখেছেন, এছাড়া অনেক স্কলার আছেন; যারা সেলফি তুলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করছেন। এই দ্বন্দ্ব মানুষের মাঝে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। যদিও সেলফি মানুষের জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশে পরিণত হয়েছে।

-জাগো নিউজ

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 40 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)