ঠোঁটের সাজে লিপস্টিক!

সাজগোজ টিপস 4th Feb 17 at 12:13pm 343
Googleplus Pint
ঠোঁটের সাজে লিপস্টিক!

সাজে পূর্ণতা আনতে যে প্রসাধনীটি না হলেই নয়, সেটি হচ্ছে লিপস্টিক। শুধু লিপস্টিক পরলেই সাজের অনেকটা সম্পূর্ণ হয়ে যায়। এই লিপস্টিকের রয়েছে হাজারটা রঙ, হরেক ধরন।

নারীরা সাজের জন্য সবার আগে লিপস্টিককেই বেছে নেন। কিন্তু লিপস্টিকের সঠিক ব্যবহার না জানায় পড়তে হয় নানা বিড়ম্বনায়।

ঠোঁটে লিপস্টিক লাগানোর কিছু নিয়ম রয়েছে। যেমন লিপস্টিক লাগানোর আগে প্রথমে লিপব্রাশ দিয়ে ঠোঁটের মরা কোষ তুলে ফেলতে হয়।

যাদের ঠোঁট তৈলাক্ত তারা লিপস্টিক লাগানোর ক্ষেত্রে একটু সতর্কতা অবলম্বন করলে ঠোঁটকে অনেক বেশি নান্দনিক করে তোলা যায়। তৈলাক্ত ঠোঁটে একবার লিপস্টিক লাগানোর পর পাউডার লাগিয়ে তারপর আরেকবার তা লাগাতে হয়। এতে লিপস্টিকের স্থায়ীত্বও বাড়বে।

শুষ্ক বা সাধারণ ঠোঁটের ক্ষেত্রে প্রথমে ভ্যাসলিন লাগিয়ে কিছু সময় রেখে টিস্যু দিয়ে মুছে ফেলতে হবে। এরপর লিপস্টিক লাগালে ঠোঁটের সৌন্দর্য ফুটে উঠবে। মনে রাখতে হবে, যে লিপস্টিকই লাগান না কেন সরাসরি ঠোঁটের ওপর না লাগিয়ে, লিপব্রাশ দিয়ে আলতোভাবে লাগানো উচিৎ।

যাদের ঠোঁট মোটা তারা লিপলাইনার দিয়ে ঠোঁটের বাইরের কিছুটা অংশ এঁকে তারপর লিপস্টিক লাগান। আর যাদের ঠোঁট পাতলা তারা বর্ডার ধরে লিপিস্টিক লাগান। মনে রাখতে হবে, ঠোঁট থেকে লিপস্টিক ওঠানোর সময় ভেজা নরম সুতি কাপড় অথবা টিস্যু দিয়ে মুছে ফেলতে হবে।

রঙ নির্বাচনের ক্ষেত্রে বয়স ও স্থানকে প্রাধান্য দেয়া উচিৎ। কর্মক্ষেত্রে হালকা রঙের লিপস্টিক দেয়া ভালো। পার্টিতে গাঢ় রঙের লিপস্টিক সাজের জমকালো ভাব এনে দেয়। পোশাকের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে লিপস্টিকের রঙ নির্বাচন করাই ভালো। যাদের গায়ের রঙ কালো তারা গাঢ় রঙের লিপস্টিক নির্বাচন করতে পারেন।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 48 - Rating 4 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)