উদ্বেগকে দূর করে জীবনকে করে তুলুন আনন্দময়

লাইফ স্টাইল 27th Jan 17 at 11:43pm 171
Googleplus Pint
উদ্বেগকে দূর করে জীবনকে করে তুলুন আনন্দময়

সুইডিশ প্রবাদ আছে “উদ্বেগ হলো বড় ছায়ার মধ্যে ছোট একটি বাসা”। কথাটি অনেকাংশে সত্য, উদ্বেগ শব্দটি ছোট হতে পারে কিন্তু এর প্রভাব ব্যাপক। উদ্বেগ বা চিন্তা শুধু গতকালের কষ্টকে নষ্ট করে না, এটি আজকের শক্তিকেও ধবংস করে দেয়। দুশ্চিন্তা বা উদ্বেগ আপনার ভেতরে থাকা সব ইতিবাচক চিন্তা, কার্যক্ষমতা নষ্ট করে দেয়। এই ক্ষতিকর উদ্বেগকে না বলে দিনটি নতুন করে শুরু করুন। দেখবেন জীবনের সমস্যাগুলো সহজে সমাধান হয়ে যাচ্ছে।

১। উদ্বেগের পরিবর্তে সম্ভাবনা খুঁজে বের করুন
জীবন খুব ছোট। এই ছোট জীবনে দুশ্চিন্তা করে সময় নষ্ট করা ছাড়া কিছু হবে না। কোনো বিষয় নিয়ে দুশ্চিন্তা না করে তার থেকে সম্ভাবনা খুঁজে বের করুন। মনে রাখবেন দুশ্চিন্তা করে কোনো সমস্যা সমাধান হয়নি। তাই অহেতুক চিন্তা না করে সমস্যা থেকে সম্ভাবনা খুঁজে বের করার চেষ্টা করুন।

২। উদ্বেগের কারণগুলোকে হ্রাস করুন
উদ্বেগ বা চিন্তার বিষয়কে জীবন থেকে দ্রুত দূর করে ফেলুন। যে সমস্যাটা আপনি সমাধান করতে পারবেন না, সেটি নিয়ে চিন্তা করে কী হবে? নিজের চিন্তা, দুঃখকে ভুলে থাকার সহজ উপায় হল, কিছু দান করুন। অব্যবহৃত, অপ্রয়োজনীয় জিনিস অন্যকে দিয়ে দিন। এই ছোট বিষয়টি আপনাকে অনেক আনন্দ দেবে।

৩। আপনি নিজে না চাইলে কেউ আপনাকে সুখী করতে পারবে না
আপনি নিজে যদি সুখী হতে না চান, তবে পৃথিবীর কোন কিছু আপনাকে সুখী করতে পারবে না। সুখ আপনার নিজের কাছে। অন্যের সাথে নিজেকে তুলনা করে, অন্যের সুখ যদি নিজের মাঝে আনতে চান, তবে আপনি কখনও সুখী হতে পারবেন না। আপনি পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী মানুষ, ছোট এই একটি বিশ্বাস আপনাকে সুখী করে তুলবে।

৪। ইতিবাচক চিন্তা করুন
নিজেকে নিয়ে সুখী থাকুন। আপনি যেমন তেমনিভাবে নিজেকে গ্রহণ করুন। আমি দেখতে সুন্দর না, এটা পাইনি ওইটা পাইনি, জীবনকে নিয়ে অভিযোগ করা বন্ধ করুন। না পাওয়ার তালিকা তৈরি না করে কী কী পেলেন তার হিসাবটা করুন। নিজেকে নিয়ে গর্ববোধ করুন। মনে রাখবেন, আপনার চেয়েও কেউ কষ্টের জীবনযাপন করছে, আপনি অনেকের থেকে ভালো আছেন।

৫। ঘৃণা করা বন্ধ করুন
আপনি যখন আপনার শত্রুকে ঘৃণা করা শুরু করবেন, আপনার ভেতরে ইতিবাচক সব ক্ষমতা, ভাল দিক নষ্ট হয়ে যাবে। তখন আপনি শুধু তাকে নিয়ে, তার সুখ নিয়ে চিন্তা করেবেন, তার ক্ষতি করার চেষ্টায় থাকবেন। আর এটি আপনার সুখকে নষ্ট করে দেওয়ার জন্য যথেষ্ট। অন্যকে ঘৃণা করা বন্ধ করুন।

৬। কোনো কিছুর জন্য জোর না দেওয়া
আমরা যখন কোনো কিছু চাই, তখন সেটিকে পাওয়ার জন্য উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে। সারাক্ষণ সেটিকে নিয়ে চিন্তা করি। এমনকি সেটি পাবার জন্য এমন কিছু কাজ করি যা করা উচিত নয়। ধৈর্য ধরুন, বিষয়টি প্রকৃতির উপর ছেড়ে দিন। সেটি যদি আপনার ভাগ্যে থাকে তবে অব্যশই পাবেন। অহেতুক দুশ্চিন্তা করা থেকে বিরত থাকুন।

৭। বড় চিন্তা করুন
সবসময় নিজেকে নিয়ে চিন্তা না করে বড় কিছু চিন্তা করুন। অন্যের জন্য কিছু করার চেষ্টা করুন। এটি আপনাকে মানসিক শান্তি দেওয়ার পাশাপাশি উদ্বেগ অনেকটা কমিয়ে দেবে।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 16 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)