শীতকালের শত্রু খুশকির মোকাবিলা করুন সহজ পদ্ধতিতেই

রূপচর্চা/বিউটি-টিপস 12th Jan 17 at 8:45am 345
Googleplus Pint
শীতকালের শত্রু খুশকির মোকাবিলা করুন সহজ পদ্ধতিতেই

১। দইয়ের মতো প্রোবায়োটিক এজেন্ট আমাদের দেহে উপকারী ব্যাকটেরিয়া তৈরিতে সাহায্য করে। খুশকির প্রতিরোধে দইয়ের জুড়ি হয় না। অ্যান্টি ড্যানড্রাফ প্যাকের মূল উপকরণ হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন দইকে। সপ্তাহে দু’-তিন দিন করলেই ফল পাবেন।

২। অ্যাপ্‌ল সিডার ভিনিগারও খুশকির মহৌষধ। আট-দশ টেবিলচামচ ভিনিগারের সঙ্গে অল্প জল মিশিয়ে স্ক্যাল্পে লাগিয়ে রাখুন মিনিট পনেরো। তারপর ধুয়ে ফেলুন। স্ক্যাল্পের পিএইচ ব্যালান্স বজায় রাখতে সাহায্য করে অ্যাপ্‌ল সিডার ভিনিগার।

৩। ডিম হল বায়োটিনের অন্যতম উত্স, যা খুশকি প্রতিরোধের মোক্ষম দাওয়াই। এছাড়া ডিমের প্রোটিন চুলের পুষ্টি জোগানোর পক্ষেও দারুণ কার্যকরী। ডিম ফাটিয়ে ছাঁকনির সাহায্যে শুধু এগ হোয়াইটটা আলাদা করে নেবেন। এবার বিভিন্ন হেয়ার প্যাকে সেটা ভাল করে মেশান।

৪। খুশকি দূর করার সবচেয়ে সহজ উপায় হল স্ক্যাল্পে লেবুর রস ম্যাসাজ করা। স্নানের আধঘণ্টা আগে কয়েক ফোঁটা পাতিলেবুর রস স্ক্যাল্পে মেখে রাখুন। তারপর কোনও মাইল্ড হার্বাল শ্যাম্পু দিয়ে চুল ভাল করে ধুয়ে ফেলুন। লেবুর সিট্রিক অ্যাসিডও পিএইচ ব্যালান্স ঠিক রাখতে সাহায্য করে। এক চিমটে বেকিং সোডাও এক্ষেত্রে ভাল কাজ করবে।

৫। বাড়িতে অ্যালোভেরা গাছ থাকলে তার পাতা চিরে ভিতরের জেলটা বার করে হেয়ার প্যাকে মেশাতে পারেন। অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল আর অ্যান্টি ফাংগাল এজেন্ট রয়েছে এতে। ত্বকের মৃত কোষ দূর করতে অ্যালোভেরা জেলের তুলনা নেই। খুশকি তাড়াতেও দারুণ কার্যকরী।

৬। রাতে শোওয়ার আগে হট অয়েল ম্যাসাজের সময় ব্যবহার করুন অলিভ অয়েল। তাতে কয়েক ফোঁটা টি-ট্রি অয়েল মিশিয়ে নিতে পারলে খুবই ভাল। শাওয়ার ক্যাপ পরে থাকুন। স্নানের আগেও করতে পারেন এটা। স্ক্যাল্প তৈলাক্ত হলে অবশ্য এই পদ্ধতি খাটবে না।

৭। স্ক্যাল্প যদি তেলতেলে না হয়, তবে অ্যান্টি ড্যানড্রাফ হেয়ার প্যাকে ব্যবহার করতে পারেন মধুও। খুশকি প্রতিরোধের আরেকটা উপকারী উপাদান হল পেঁয়াজ আর রসুনের রস। মধুর সঙ্গে মিশিয়ে লাগাতে পারেন। এছাড়া একদিন বা দু’দিন অন্তর শ্যাম্পু করে চুল পরিষ্কার রাখা খুশকি প্রতিরোধের অন্যতম শর্ত।

সূত্রঃ এবেলা

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 16 - Rating 4 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)