যে দক্ষতাগুলো অর্জন কঠিন কিন্তু আজীবন কাজে লাগবে

লাইফ স্টাইল 8th Jan 17 at 1:56pm 571
Googleplus Pint
যে দক্ষতাগুলো অর্জন কঠিন কিন্তু আজীবন কাজে লাগবে

অর্থ ব্যয় ছাড়াই কোনো কিছু অর্জন করা সম্ভব তার মানে এই নয় যে, সেগুলো অর্জনে কোনো সময়, পরিশ্রম এবং অধ্যাবসায় দরকার হয় না। বিশেষকরে গুরুত্বপূর্ণ জীবন দক্ষতাগুলো সম্পর্কে এ কথাটি সত্য।

এখানে এমন কিছু গুরুত্বপূর্ণ জীবন দক্ষতা সম্পর্কে আলোচনা করা হলো যেগুলো অর্জন কঠিন কিন্তু একবার অর্জন করতের পারলে আজীবন কাজে লাগে:

১. সহানুভূতি

আপনি হয়তো সুশৃঙ্খল, মেধাবী এবং এমনকি বিশ্বের শীর্ষ ধনীও হতে পারেন। কিন্তু আপনি যদি অন্যদের প্রতি সহানুভূতিশীল না হন তাহলে আপনি একজন নিকৃষ্ট অসামাজিক লোক ছাড়া আর কিছুই নন।

২. সময় ব্যবস্থাপনা

কার্যকরভাবে সময় ব্যবস্থাপনার দক্ষতাকে নিয়োগকর্তারা সবচেয়ে বেশি মূল্যায়ন করে থাকেন।

৩. ঘুম নিয়ন্ত্রণ

প্রতিদিন নির্দিষ্ট সময়ে ঘুমাতে গেলে আপনার ঘুমের গুনগত মান বাড়বে এবং ঘুমের ওপর আপনি নিজের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করতে পারবেন।

৪. সহযোগিতা প্রার্থনা

আপনার কখন সাহাজ্য দরকার তা জানা এবং অন্যের কাছে সাহাজ্য প্রার্থনার বিষয়টি শেখা বা করা বিস্ময়করভাবে একটু কঠিনই বটে। কারণ প্রচলিত ধারণা হলো এতে অন্যরা আপনাকে দূর্বল বা অযোগ্য ভাববে।

কিন্তু হার্ভার্ড বিজনেস স্কুলের সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, এই দক্ষতাটি অর্জন করতে পারেলে আপনাকে আরো বেশি যোগ্য লোক মনে হবে। কারণ আপনি যখন কারো কাছে সাহাজ্য চান তখন আপনি আসলে তাদের বুদ্ধিমত্তা এবং দক্ষতার উচ্চ মূল্যায়ন করেন। এতে তার সঙ্গে আপনার সম্পর্ক আরো ঘনিষ্ঠ হবে।

৫. সঙ্গতি

যে কোনো কাজেই সাফল্য লাভ করতে হলে সঙ্গতি বজায় রাখাটা গুরুত্বপূর্ণ। লোকে অনেক সময় শীর্ষস্থানে পৌঁছার পর কঠোর পরিশ্রম বন্ধ করে দেন। কিন্তু শীর্ষস্থান ধরে রাখতে হলে বরং আরো বেশি কঠোর পরিশ্রম করা দরকার। এবং কাজের ধারাবাহিকতা বা সঙ্গতি বজায় রাখতে হবে।

৬. ইতিবাচক আত্ম-কথন

অন্যরা আপনার ব্যাপারে কী ভাবে চুড়ান্ত বিচারে তাতে কিছুই যায় আসে না। কিন্তু আপনি নিজের ব্যাপারে কী ভাবেন না ভাবেন তা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সুতরাং ইতিবাচক আত্মকথনের মাধ্যমে নিজের ব্যাপারে নিজের মধ্যে আত্মবিশ্বাস ও সক্ষমতা গড়ে তুলুন।

৭. নিজের চরকায় তেল দেওয়া

এই দক্ষতা অর্জনে অনেক সময় লাগে। অন্যদের বিষয়ে নাক গলাতে গেলে শুধু আপনার নিজের সময় এবং শক্তির অপচয়ই হবে।

৮. কখন মুখ বন্ধ করতে হবে বুঝা- এবং তা করা

রাগের মাধায় আমরা এমন অনেক কিছুই বলে ফেলি যার জন্য পরে আমরা অনুতাপ করি। সুতরাং এমন সময় মুখ বন্ধ রাখতে পারার দক্ষতাটি সবচেয়ে মূল্যবান দক্ষতাগুলোর একটি। আর এটি সবচেয়ে কঠিন কাজগুলোরও একটি বটে।

৯. শোনা

কাজের চাপে আমরা অনেক সময় কোনো কিছু ঠিকভাবে শুনতে পারি না। সুতরাং কোনো কিছু ঠিকমতো শোনার জন্য সবচেয়ে ভালো একটি কৌশল হলো, যা শুনেছেন তা পুনরায় বলা।

১০. গুজব ছড়ানো থেকে বিরত থাকা

কারো জীবনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জিনিস হলো সম্পর্ক। আর সুসম্পর্ক গড়ে তোলা এবং বজায় রাখার ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো আস্থা বা বিশ্বাস।

আর লোকের আস্থা হারানোর সবচেয়ে সহজ উপায়গুলোর একটি হলো লোকের পেছনে তাদের নিয়ে গুজব ছড়ানো।

১১. সততা

কারো বিষয়ে মূল্যায়নে পুরোপুরি সৎ হওয়াটা একটু অস্বস্তিকর বটে। কিন্তু তার মানে এই নয় যে, আপনার ভালো কিছু বলার না থাকলে আপনি কিছু্ই বলবেন না। বরং আপনি যা ঠিক মনে করেন তাই বলুন সততার সঙ্গে।

১২. বর্তমানে বাস করা

গবেষণায় দেখা আমরা ৪৭% সময়েই যা করছি তা ভাবছি না। আর এ কারণেই বেশি অসুখি হন লোকে। সুতরাং সুখি হতে হরে বর্তমানে বাস করা শিখতে হবে। যে মুহূ্র্তে যে কাজটি করছেন তাকেই উপভোগ্য করে তুলতে হবে।

১৩. চিন্তার নিয়ন্ত্রণ

আপনি যা করতে চান তা করা এবং যা সম্পন্ন করতে চান তা সম্পন্ন করতে হলে সচেতনভাবেই আপানার নিজের চিন্তাকে পরিচালিত করতে হবে।

চ্যালেঞ্জটি হলো, আমরা আমাদের অতীত অভিজ্ঞতার ফল। আর আমাদের সকল চিন্তাই আমাদের অতীত অভিজ্ঞতা থেকে উৎসারিত হয়। কিন্তু তথাপি মনে রাখবেন অতীত কখনো ভবিষ্যতের সমকক্ষ হতে পারে না।

১৪. নতুন ভাষা শেখা

এতে শুধু আপনি নতুন কথপোকথন করার সুযোগ এবং পেশাগত ক্ষেত্রে নতুন সুযোগই পাবেন না। বরং এর মধ্য দিয়ে আপনি নতুন মনোভঙ্গি, নতুন আবেগানুভূতি এবং চিন্তার নতুন পদ্ধতি অর্জন করবেন। নতুন কোনো ভাষা শিখলে সেই ভাষা সংশ্লিষ্ট সংস্কৃতির খুটিনাটিও আয়ত্বে চলে আসে, যা কোনো সহজ অর্জন নয়।

১৫. জনসম্মুখে কথা বলা

জনসম্মুখে কথা বলা আমাদের অনেকের জন্যই বেশ কঠিন। বিশ্বের শীর্ষ ধনী ওয়ারেন বাফেটও এক সময় লোকের সামনে কথা বলতে গিয়ে আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়তেন। এমনকি ডেল কার্নেগির বক্তৃতার কোর্স করে নিজের এই ভয় দূর করেছিলেন বাফেট। বাফেট বলেন, আপনিও যদি চর্চা করেন এবং শুধু চর্চা করে যান তাহলে এই মূল্যবান দক্ষতাটি অর্জন করতে পারবেন।

সূত্র: বিজনেস ইনসাইডার

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 21 - Rating 4 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)