মরদেহ কিছুদিন সংরক্ষণ করা কি ঠিক?

ইসলামিক শিক্ষা 19th Dec 16 at 1:33pm 1,044
Googleplus Pint
মরদেহ কিছুদিন সংরক্ষণ করা কি ঠিক?

প্রশ্ন : মৃত ব্যক্তিকে কবর না দিয়ে কয়েক দিন রাখা কি ঠিক?

উত্তর : না। রাসূল (সা.)-এর সুন্নাহ হচ্ছে, মৃত্যুর পরপরই যত দ্রুত সম্ভব মৃত ব্যক্তির দাফনের ব্যবস্থা করা। এটা হচ্ছে সুন্নাহ। সুন্নাহর পরিপন্থী কাজ হচ্ছে, কোনো ব্যক্তিকে মৃত্যুর পরে একদিন, দুদিন, তিন দিন রেখে দেওয়া। এটা আবেগের কারণে হয় আমাদের সমাজে।

হয়তো সন্তান অথবা আরো কেউ আছে, যারা আসছে অথবা আসবে, কোনো কারণে আসতে দেরি হচ্ছে ইত্যাদি কারণে এই বিলম্ব করা হয়ে থাকে। সে ক্ষেত্রে এই দেরি করাটা হারাম বা নিষিদ্ধ নয়।

কিন্তু এই দেরি করাটা উত্তম নয়, আবার শরিয়তে নিষেধও করা হয়নি। যদি কোনো প্রয়োজন দেখা দেয়, তাহলে সেখানে দেরি করা যাবে।

কিন্তু অপ্রয়োজনীয়ভাবে, অর্থাৎ দেরি করার যদি কোনো কারণ না থাকে, তাহলে দেরি করা কিন্তু ইসলামী শরিয়া অনুযায়ী নিষিদ্ধ, ঠিক না।

যেমন, সন্তান বলছে যে আমি আসছি অথবা পথিমধ্যে আছে, তাহলে তাঁর জন্য অপেক্ষা করা যাবে। অথবা এমন কোনো ব্যক্তি, যিনি এই মৃত ব্যক্তির সঙ্গে সম্পৃক্ত, খুবই ঘনিষ্ঠ অথবা সেখানে তাঁর কোনো হক জড়িত আছে, যার জন্য অপেক্ষা করতে হবে। অর্থাৎ সুনির্দিষ্ট কোনো হক যদি এর সঙ্গে জড়িত থাকে, তাহলে কিন্তু দেরি করাটা জায়েজ রয়েছে।

এই কাজ ইসলামী শরিয়ায় খুব বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়নি, কারণ মৃত্যুর আগে আর পরে মানুষের স্বাভাবিক অবস্থা কিন্তু এক থাকে না। শারীরিক অবস্থাও যেমন এক রকম থাকে না, অনুরূপভাবে কোনো অসুস্থতা বা দুর্ঘটনায় মৃত্যু হলে তাঁর শরীরের বিকৃতি আসতে পারে।

এই জন্য শরিয়ায় একজন মানুষের যেই মর্যাদা আছে, সেই মর্যাদাটুকু যাতে কোনোভাবেই, এমনকি মৃত্যুর পরও মানুষের কাছে ক্ষুণ্ণ না হয়, সে জন্য এভাবে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

রাসূল (সা.) হাদিসে বলেছেন, ‘মৃত ব্যক্তি জীবিত অবস্থায় তাঁর যতটুকু সম্মান রয়েছে, ঠিক মৃত অবস্থায়ও তাঁর ততটুকু মর্যাদা এবং সম্মান রয়েছে।’

তাই সে সম্মানটুকু যাতে সে লাভ করতে পারে, সেদিকে আমাদের খেয়াল রাখতে হবে। খুব বিশেষ ওজোর না থাকলে বিলম্ব না করে দাফনের ব্যবস্থা করাটাই উত্তম কাজ।

সূত্রঃ আপনার জিঙ্গাসা, এনটিভি অনলাইন

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 25 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)