কীসের টানে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন বিবাহিতরা?

লাইফ স্টাইল 2nd Dec 16 at 11:56pm 1,256
Googleplus Pint
কীসের টানে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন বিবাহিতরা?

ভালবাসা খুঁজে ফেরেন সকলেই। স্বাভাবিক প্রবৃত্তিতেই তাই বাঁধা পড়েন সম্পর্কে। কিন্তু তাহলে আবার সেই সম্পর্কের বাঁধন ছেড়েই কেন বেরিয়ে পড়তে চায় মানুষ? তবে কি চেনা সম্পর্কের আড়ালেই কোথাও থেকে যায় দমবন্ধ করা পরিবেশ! নাকি নিছক অ্যাডভেঞ্চারের নেশায় সম্পর্কের খোলস কাটিয়ে বেরিয়ে পড়তে চান অনেকে? এ প্রশ্ন বরাবরেরই। যাঁরা এক সম্পর্কে আস্থাশীল, তাঁরা একে অন্যায় বলেই মনে করেন। কিন্তু শুধু কি অন্যায়! নাকি নেপথ্যে থেকে যাচ্ছে মনস্তত্বের জটিল গতিবিধি? কেন আচমকাই পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন বিবাহিতরা? দেখে নেওয়া যাক মনোবিদরা কোন কারণগুলি তুলে ধরেছেন।

১) বিয়ে-অসন্তোষের কারণ
সামাজিক প্রতিষ্ঠান হিসেবেই অনেকে যে কোনও সঙ্গীর সঙ্গে বিবাহকে মেনে নেন। কিন্তু যত দিন যায় তত বাড়তে থাকে অসন্তুষ্টি। সঙ্গীকে ঠিকভাবে চেনা না থাকার ফলে বাহ্যিক গাঁটছড়া পড়ে বটে, কিন্তু মনের কম্পাঙ্কগুলো মেলে না। আর তাই জীবনের গতিপথে যদি কেউ এসে পড়েন, যাঁর সঙ্গ পেলে মনের তারে সাড়া পড়ে, মানুষ জড়িয়ে পড়তে চায় তাঁর সঙ্গেই।

২) দীর্ঘদিনের বিয়ে
যাঁরা কম বয়সে বিয়ে করে ফেলেন, তাঁদের ক্ষেত্রে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা বেশি। দীর্ঘদিনের বিয়ের ফলে দাম্পত্যে একটা স্থিতাবস্থা চলে আসে। জীবনযাপন তখন দিনগত অভ্যাসে গিয়ে ঠেকে। এই থোড়-বড়ি-খাড়ার জীবন থেকে বেরোতেই নতুন কোনও সম্পর্কের খোঁজ করেন কেউ কেউ।

৩) ঝামেলা থেকে মুক্তি
সংসারের নানা ঝামেলা সময় সময় অনেককে ক্লান্ত করে। যত দিন যায় মানুষের জীবনে তত দায়িত্ব বাড়তে থাকে। পরিবারের বোঝা এসে ক্লান্ত করে। এর থেকে মুক্তি পেতেই নতুন সম্পর্কের দিকে হাত বাড়ায় বিবাহিতরা। সন্তানসন্ততি থেকে বৃদ্ধ মা-বাবার নানা সমস্যায় ক্রমশ জেরবার হতে থাকেন মধ্যবয়স্ক বিবাহিতরা। তখনই ঝোঁক বাড়ে পরকীয়ার দিকে।

৪) নিছক কামনা
কখনও আবার এসব কোনও সমস্যাই থাকেন। মানুষ স্বভাবত বহুগামী। আর তাই নিছক কামনার বশবর্তী হয়েই সম্পর্কের ভিতর থেকেও অন্য কারওর প্রতি আকৃষ্ট হয়ে পড়েন অনেকে। এক্ষেত্রে যৌনতাটাই প্রধান হয়ে পড়ে। শারীরিক আকর্ষণই মুখ্য হয়ে দাঁড়ায়। তবে অনেক সময় এর পিছনে অন্য একটি কারণও দেখা যায়। যত দিন গড়ায় বিবাহিতরা যৌনতার ক্ষেত্রে ক্রমশ প্রথমদিককার উত্তেজনা হারিয়ে ফেলেন। শারীরিক অসন্তুষ্টি তাঁদের নতুন কোনও সম্পর্কের দিকে যেতে প্ররোচিত করে। তখনই পেয়ে বসে অ্যাডভেঞ্চারের নেশা।

৫) মনের যোগাযোগ
চেনা সম্পর্ক চলছিল বেশ বাঁধা গতে। কিন্তু জীবন তো অদ্ভুত। আচমকা জীবনে এমন কারওর সঙ্গে দেখা যায়, যার সঙ্গে অনেক বিষয়ে মনের মিল পাওয়া যায়। হয়তো একই শখ বা একই জিনিস পছন্দ করার ক্ষেত্রে, কিংবা রুচির ক্ষেত্রে অসম্ভব মিল দেখা যায়। অথবা নিজের সঙ্গীর মধ্যে ঠিক যে যে অভাবগুলো অনুভব করেন কেউ কেউ, অন্য কারওর মধ্যেই আচমকা তা খুঁজে পেয়ে যান। আর এর ফলেই সম্পর্কে থাকা সত্ত্বেও নতুন সম্পর্ক পাতিয়ে ফেলেন অনেকে।

৬) প্রতিশোধ নিতে
আশ্চর্য লাগলেও এটাও সত্যি। নিজের সঙ্গীর প্রতি প্রতিশোধ নিতে কেউ কেউ বেছে নেন অন্য সম্পর্ক। ধরা যাক, কোনও কারণে বর্তমান সম্পর্কে তিক্ততা দেখা দিয়েছে। বা সঙ্গী অন্য কোনও সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছে এরকম সন্দেহ দানা বেধেছে। অথবা নিজের অনুভূতিতে, আনন্দে-বিষাদে কাছের মানুষটিকে নির্বিকার দেখে রাগ হয়েছে। আর এসব ক্ষেত্রে সঙ্গীর উপর প্রতিশোধ নিতেই অন্য সম্পর্কে হাত বাড়ান অনেকে। সেক্ষেত্রে পরকীয়ায় নিজেকে অনেকটা ক্ষমতাশীল রাখতেই পছন্দ করেন বিবাহিতরা।

মনের তল পাওয়া ভার। এছাড়াও তাই বহু কারণ থেকে যায়। তবে মূলত এই কারণগুলি থেকেই পরকীয়ায় ঝোঁকের ধরনটি চিনে নেওয়া যায়। জানা থাকলে ভাল। তাতে নিজেকে চিনতে অনেকটা সুবিধা হয়। বাকিটা ব্যক্তিগত।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 23 - Rating 6 of 10

পাঠকের মন্তব্য (1)