সুরা কাহাফ পাঠের ফযীলত

ইসলামিক শিক্ষা 9th Aug 16 at 9:40am 819
Googleplus Pint
সুরা কাহাফ পাঠের ফযীলত

সুবাহান আল্লাহ আল্লাহ রাব্বুল আলামিন কত ভাবে তাহার বান্দাকে মুক্ত করার পথ শিখিয়েছেন, তার পরেও আমরা যদি খাঁটি মুসলমান না হয়ে কবরে যাই তাহলে দোযক অনিবার্য।যে ব্যক্তি সুরা কাহাফ-এর প্রথম দশ আয়াত মুখস্ত করে সে দাজ্জালের ফেতনা থেকে নিরাপদ থাকবে।

হযরত আবুদ্দারদা (রাঃ) থেকে অন্য একটি রেওয়াতে বর্ণিত এই বিষয়বস্তু সুরা কাহফের শেষ দশ আয়াত মুখস্ত করা সম্পর্কে বর্ণিত রয়েছে। (মুসলিম, আবুদাউদ, তিরমিযি, নাসায়ী ও মুসনাদে আহমাদ)

মুসনাদে আহমাদে হযরত সাহল ইবনে মু’আয (রাঃ) এর রেওয়াতে আছে, যে ব্যক্তি শুক্রবার দিন সূরা কাহফ-এর প্রথম ও শেষ আয়াতগুলো পাঠ করবে তার পা থেকে আকাশের উচ্চতা পর্যন্ত নূর হয়ে যাবে, এবং যে ব্যক্তি সম্পূর্ণ সুরা পাঠ করবে তার জন্য জমিন থেকে আসমান পর্যন্ত নূর হয়ে যায় । (মুসনাদে আহমাদ)

হাদীসে আরও বর্ণিত আছে, যে ব্যক্তি শুক্রবার দিন সূরা কাহাফ পাঠ করবে তার পা থেকে আকাশের উচ্চতা পর্যন্ত নূর হয়ে যাবে, যা কেয়ামতের দিন আলো দিবে এবং বিগত জুমআ’র থেকে এ জুমআ পর্যন্ত তার সব গুনাহ মাফ হয়ে যাবে।যা কেয়ামতের দিন আলো দিবে।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 30 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)