কীভাবে কাজ করে ফেসটাইম অ্যাপ?

এপস রিভিউ 18th Jul 16 at 8:43pm 573
Googleplus Pint
কীভাবে কাজ করে ফেসটাইম অ্যাপ?

তুরস্কে সেনা অভ্যুত্থান চলাকালে প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান ফেসটাইম অ্যাপ ব্যবহার করে সংবাদমাধ্যমে সরাসরি সাক্ষাৎকার দিয়েছিলেন। অনেকেই বলছেন, এরদোয়ানের এই সাক্ষাৎকারই অভ্যুত্থানকে ব্যর্থ করে দিয়েছে। আর এজন্য এরদোয়ানের সবচেয়ে মোক্ষম অস্ত্র হিসেবে কাজ করেছে ফেসটাইম অ্যাপ।

এরদোয়ান নিজে সবসময় ইন্টারনেট ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ওপর নিয়ন্ত্রণ বজায় রেখে চলেছেন। কিন্তু বিপদের সময় এই প্রযুক্তিকে ব্যবহার করেই নিজেকে রক্ষা করেছেন তিনি। আর এরদোয়ানের প্রযুক্তি ব্যবহারের কারণে ‘ফেসটাইম’ অ্যাপ সম্পর্কে সাধারণ মানুষদের আগ্রহ বাড়িয়ে দিয়েছে।


ফেসটাইম মূলত একটি ভিডিও কলিং অ্যাপ যা অ্যাপলের আইওএস ও ম্যাকিন্টোশ অপারেটিং সিস্টেমে চলে। ভিডিওর পাশাপাশি এই অ্যাপটির একটি অডিও ভার্সনও রয়েছে যা দিয়ে শুধু অডিও কল করা যায়। অ্যাপলের তৈরি আইফোন, আইপ্যাড ও ম্যাকিন্টোশ কম্পিউটারে ব্যবহার করা যায় অ্যাপটি।
২০১০ সালের ৭ জুন অ্যাপলের তৎকালীন প্রধান নির্বাহী স্টিভ জবস ফেসটাইম অ্যাপটির সঙ্গে সবার পরিচয় করিয়ে দেন। আইফোন ৪ মডেলে সর্বপ্রথম অ্যাপটি ব্যবহার করা হয়।

ম্যাক অপারেটিং সিস্টেমের ফেসটাইম সংস্করণ ঘোষণা করা হয় ২০১০ সালের ২০ অক্টোবর। ২০১১ সালের মার্চে প্রথমবারের মতো আইপ্যাড ২-এর জন্য উন্মুক্ত করা হয় অ্যাপটি।

অর্থাৎ অ্যাপলের আইওএস অথবা ম্যাক অপারেটিং সিস্টেম ছাড়া ফেসটাইম অ্যাপটি চালানো সম্ভব নয়। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানও আইফোনের মাধ্যমেই সাক্ষাৎকারটি দিয়েছিলেন।
অ্যানড্রয়েড অপারেটিংয়ে চালিত অন্যান্য ভিডিও কলিং অ্যাপের মধ্যে রয়েছে স্কাইপে, ফেসবুক মেসেঞ্জার, ভাইবার ইত্যাদি। তবে স্কাইপেতে যেমন একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে ভিডিও কল করা যায়, ফেসটাইমে সেই রকম সুবিধা নেই। ফেসটাইম ব্যবহার করে শুধু দুজন ব্যক্তি ভিডিও কল করতে পারেন। তবে ফেসটাইমে ভিডিও কল করার মধ্যে ফোনে যদি কোনো কল, মেসেজ বা নোটিফিকেশন আসে ব্যবহারকারীরা তা দেখতে পাবেন।

আইওএস ৬-এর মাধ্যমে ওয়াইফাই সংযোগ ব্যবহার করে ফেসটাইম অ্যাপ ব্যবহারের সুবিধা চালু হয়। ফেসটাইমের আরেকটি বৈশিষ্ট্য হলো নিজের অবস্থান গোপন রেখে অন্যের সাথে যোগাযোগ করা যায়।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 28 - Rating 6 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)