ম্যাজিক: বাতাসে ভাসা ধাতব বল

জাদুর বিদ্যা 3rd Jul 16 at 1:07pm 3,037
Googleplus Pint
ম্যাজিক: বাতাসে ভাসা ধাতব বল

আজকে আমরা একটা ধাতব বলকে বাতাসে ভাসাবো। এর আগেও আমরা কাগজের কাপ এবং কমলাকে বাতাসে ভাসিয়েছি। তখন আমরা দুইহাতের একটি করে বৃদ্ধাঙ্গুলিকে কাপ এবং কমলার মধ্যে আটকে রেখেছিলাম। এইবার আমরা কোন আঙ্গুলই আটকে রাখবো না। চাইলে সবগুলো আঙ্গুল একদম খুলে খুলে দেখাতে পারবো। কীভাবে? আরে সেইখানেই তো বিজ্ঞান এবং ফাঁকিবাজির কারিশমা। তার আগে দেখে নেই চলো আমাদের কী কী লাগবে—

১। বড় একটা ডালের চামচ

ব্যাস আর কিছু নয়। ভাবছো কি আমি ভুল বকছি? বাতাসে ভাসাবো ধাতব বল আর আমাদের উপকরণে আছে শুধু একটি ডালের বড় চামচ? তা কী করে হয়? তোমরা কি কখনও মন দিয়ে ডালের চামচ দেখেছো? ডালের চামচগুলো কেমন বিশাল আর গভীর হয়। ডালের চামচের পিছনে তাকালে অদ্ভুত গোল একটা আয়নাও দেখা যায়। সেই আয়নাও মুখের প্রতিবিম্ব হয় একদম উল্টো। একটা ডালের চামচ হলো একটি গোলকের সোজা অর্ধেক। হুম এবার মনে হয় তোমরা আমার ফাঁকিবাজি একটু একটু ধরতে পারছো। আমরা মোটেই একটা আস্ত বল বা গোলক দেখাচ্ছি না। আমরা দেখাবো একটি গোলকের অর্ধেক।

আচ্ছা সে না হয় হলো, আমরা একটা গোলকের অর্ধেক দেখিয়ে দিলাম। এর যে হাতলটা আছে সেটিকে কোথায় লুকাবো? আসলে আমাদের ম্যাজিকের আসল ফাঁকি অর্ধ গোলকে না। আসল ফাঁকি হচ্ছে এই হাতলে। এই হাতলটা লুকানোর মধ্য দিয়েই আমরা গোলককে আটকে রাখবো। কিন্তু সেটি কীভাবে?

এই ম্যাজিক তোমরা শীত গ্রীষ্ম যে কোনো ঋতুতেই করি না কেন, আমাদের অবশ্যই একটা ফুল হাতা জামা পড়তে হবে। এই জামার হাতার ভিতরে ডালের চামচের হাতলটিকে সোজা ঢুকিয়ে দিবো। ফলে চামচের অর্ধ গোলক অংশটা একদম আমাদের হাতের তালুতে এসে ঠেকবে। এবার দুই হাত দিয়ে চামচটিকে লুকিয়ে দর্শকদের সামনে সোজা করে ধরবো। এরপরে হাতের আঙ্গুলগুলো সরিয়ে সরিয়ে নাড়িয়ে দেখাবো যে বলটি ভাসছে। চাওও তো নিজে বানানো কোনো ছড়াকে মন্ত্র বলে চালিয়ে দিতে পারো। মন্ত্র বলতে থাকলে তোমার ম্যাজিকে একটু সাউন্ড ইফেক্টও যোগ হবে। দর্শকরা বেশ মজাও পাবে।

Googleplus Pint
Jafar IqBal
Administrator
Like - Dislike Votes 67 - Rating 4 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)