অন্ন জোগাবে অ্যাপ

এপস রিভিউ 2nd Jul 16 at 9:24am 659
Googleplus Pint
অন্ন জোগাবে অ্যাপ

একজন খেতে না পেরে ফেলে দিচ্ছে, অন্যজন খাবারের অভাবে না খেয়ে কষ্ট পাচ্ছে। ধনী-গরিবের বৈষম্য এমনই। যে প্রতিষ্ঠানটি উদ্বৃত্ত খাবার ফেলে দিচ্ছে, হয়তো সেটির সামনের রাস্তা দিয়েই অভুক্ত কেউ হেঁটে যাচ্ছে। উদ্বৃত্ত এই খাবার যদি মুঠোফোনের একটি বোতাম চেপেই ওই অভুক্তদের কাছে পৌঁছে দেওয়া যেত! ‘কোপিয়া’ নামের নতুন এক অ্যাপ সেই স্বপ্ন দেখাচ্ছে। এর সাহায্যে বেঁচে যাওয়া খাবার কোনো অলাভজনক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে নিকটস্থ অভুক্তদের দান করে দেওয়া যায়।

কোপিয়া কিন্তু একটি লাভজনক প্রতিষ্ঠান। তবে তারা কাজ করছে অলাভজনক প্রতিষ্ঠানের হয়ে। যেকোনো ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান, অনুষ্ঠানের আয়োজক কিংবা যে কেউ তাঁদের উদ্বৃত্ত খাবার যদি অভুক্তদের মধ্যে বিলিয়ে দিতে চান, তবে প্রথমে অতিরিক্ত খাবারের একটি ছবি তুলে কোপিয়া অ্যাপে ছেড়ে দিতে হবে।

এই খাবারগুলো সংগ্রহ করে নিয়ে যাওয়ার সময়টাও সেই অ্যাপ অথবা ওয়েবসাইটে লিখে দিতে হবে। যেকোনো ধরনের অতিরিক্ত খাবার—রান্না করা কিংবা কাঁচা, প্যাকেটজাত বা খোলা—সবই পৌঁছানো যায় এই অ্যাপের মাধ্যমে। এরপর অ্যাপটি নিজে থেকেই কাছের কোনো প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে দানের বিষয়টি ঠিকঠাক করে ফেলে।

কোন খাদ্য কোথায় যাবে, তা ঠিক হয় একটি অ্যালগরিদমের মাধ্যমে। কেননা ভিন্ন ভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পছন্দের খাদ্যতালিকা ভিন্ন এবং অবস্থানটাও আলাদা। তাই খাবারের ধরন, প্রতিষ্ঠানের অবস্থান এবং কতটা ঘন ঘন খাবার পাঠানো হবে—এই তিন হিসাবের ভিত্তিতে অ্যালগরিদম সাজানো হয়। গন্তব্য ঠিক হয়ে গেলে, একজন চালক গাড়ি নিয়ে সেখানে এসে খাবারগুলো নিয়ে যাবেন এবং নির্ধারিত স্থানে পৌঁছে দেবেন। এই চালকদের বলা হয় ‘ফুড হিরো’।

প্রতিটি দানের জন্য অ্যাপটি একটি প্রতিবেদন তৈরি করে, যাতে দেখা যায় সেই খাবার কোথা থেকে কোথায় গেল এবং কতজন অভুক্ত মানুষ সেই খাবার খেতে পারল। আপাতত যুক্তরাষ্ট্রে সীমাবদ্ধ থাকলেও ২০১৭ সালের ভেতর সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়বে কোপিয়া—এমনই আশা এই অ্যাপ নির্মাতাদের।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 47 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)