গান শোনার দারুন অ্যাপস

এপস রিভিউ 4th Jun 16 at 3:47pm 579
Googleplus Pint
গান শোনার দারুন অ্যাপস

আপনার গানের দুনিয়া এখন হবে হাজার লাখে, আপনার পছন্দ আর কল্পনার সব কালেকশন নিয়ে। গান শোনার এমন নতুন অভিজ্ঞতার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতে অতি সম্প্রতি বাংলাদেশে চালু হয়েছে অনলাইন মিউজিক স্ট্রিমিং অ্যাপস এমজ্যামস্। এশিয়ার সবচেয়ে দ্রুত বর্ধনশীল এই অ্যাপকে বাংলাদেশে নিয়ে এসেছে শীর্ষ কনটেন্ট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান মোবিমিডিয়া।

এম জ্যামসের সবচেয়ে বড় শক্তি গানের বিরাট কালেকশন। ইউনিভারসাল মিউজিক, সনি ও ওয়ার্নার মিউজিকের সব গান নিয়ে এমজ্যামসে রয়েছে আন্তর্জাতিক সংগীতের সবচেয়ে বড় সংগ্রহ। আপনি এখন আক্ষরিক অর্থেই দুনিয়ার প্রায় সব গান বৈধভাবে শোনার সুযোগ পাচ্ছেন বাংলাদেশ থেকে। আর এই গানের বিরাট সংগ্রহ সাজানো হয়েছে আপনার সুবিধার কথা চিন্তা করেই। জেনে নিন এমজ্যামসের কিছু আকর্ষণীয় সুবিধা।

* আন্তর্জাতিক সংগীতের সবচেয়ে বড় কালেকশন : শুধু হলিউড কিংবা বলিউড নয়, পৃথিবীর জনপ্রিয় সব মিউজিক রিলিজ হওয়ার পরই চলে আসবে আপনার কাছে, এমজ্যামসের মাধ্যমে। এর সঙ্গে অবশ্যই আছে বাংলাদেশের গান৷ একই প্ল্যাটফরমে আন্তর্জাতিক শিল্পীদের পাশাপশি বাংলাদেশি শিল্পীরা তাদের নিজেদের গান তুলে ধরতে পারবেন বিশ্ববাজারে৷

* আপনি যা খুঁজছেন: এমজ্যামসে গানের বিরাট কালেকশন সাজানো আছে খুব সহজ বিন্যাসে। আপনি গানের খুব খোঁজখবর রাখেন বা না রাখেন তাতে কোনো সমস্যা নেই। আজকের হাইলাইটস, নিউ রিলিজ, পপুলার প্লেলিস্ট, পপুলার আর্টিস্ট, পপুলার ট্র্যাকস ও পপুলার অ্যালবাম ইত্যাদি নানা ক্যাটাগরিতে সাজানো ট্যাব এখানে আপনাকে প্রিয় গানটি খুঁজতে সাহায্য করবে, সহজে।

* আপনার গান, আপনার মতো করেই: সকালে ধীর লয়ে কিংবা সন্ধ্যায় গাড়িতে করে বাড়ি ফেরার সময় আপনি কী গান শুরতে চান সেটি জানে এমজ্যামস। পার্টির আমেজ কিংবা বৃষ্টির দিনে আপনার প্লেলিস্টটি তৈরি থাকবে এখানে। আর এই কাজটি কম্পিউটার লজিক দিয়ে করা হচ্ছে না। এমজ্যামসে গানের মতো মননশীল ব্যাপারের তালিকা তৈরি করানো হয় গানের সমঝদার মানুষদের দিয়ে। আর এজন্যই এমজ্যামসের গানের তালিকাগুলো একেবারে অনন্য, একদম আপনার মনের মতো করে।

আপনার প্রিয় তারকা কিংবা মানুষের প্রিয় গানের লিস্টও শুনতে পারবেন আপনি। সেইসঙ্গে নিজের গানের প্লেলিস্ট তৈরি করে তা শেয়ার করতে পারবেন বন্ধুদের সঙ্গেও।

গত ১৯ মে বাংলাদেশে চালু হয়েই সংগীতপ্রেমীদের মনে সাড়া জাগিয়েছে এমজ্যামস। প্রথম ৬ দিনে এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন ৩২ হাজার মানুষ। গানের নতুন দিনের এই মিছিল ভারী হচ্ছে প্রতিনিয়ত। এ প্রসঙ্গে অ্যামজ্যামসের গ্রুপ মার্কেটিং ম্যানেজার অ্যাড্রিয়ান বার্টন বলেন, বাংলাদেশে সাড়া দেখে আমরা অভিভূত। এখানকার জন্য খুব শিগগিরই আরো নতুন নতুন ফিচার নিয়ে আসছি আমরা। সেই সঙ্গে আপনাদের প্রিয় বাংলা গানের কালেকশন দ্রুতই বড় হচ্ছে।

এমজ্যামস চলবে যেকোনো অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন থেকে, টুজি বা থ্রিজি নেটওয়ার্কে। গুগল প্লেস্টোর থেকে সহজেই নামিয়ে নিতে পারেন অ্যাপটি। এছাড়া http://mja.ms সাইট থেকেও ডাউনলোড করা যাবে এমজ্যামস মোবাইল অ্যাপস। সবচেয়ে বড় খবর হলো আগামী ১৮ জুন পর্যন্ত সম্পূর্ণ বিনা মূল্যে আপনি এই সেবা পাবেন। আপনার গানের দুনিয়া সাজান নিজের মতো করে।

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 30 - Rating 5 of 10

পাঠকের মন্তব্য (0)